১৭ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

দরপতনে শেষ হলো সপ্তাহ

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ দরপতনে শেষ হলো চলতি সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসের লেনদেন। গতকাল বুধবার উভয় বাজারে সূচকের পতন হয়েছে। এর ফলে ২য় দিনের উত্থান শেষে ফের পতনে বিরাজ করছে বাজার। দিনশেষে সূচক কিছুটা কমলেও বেড়েছে অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ার দর। আর টাকার অঙ্কে লেনদেনে আগের দিনের তুলনায় কিছুটা বেড়েছে। বুধবার বাজারে ওষুধ-রসায়ন, বীমা এবং বস্ত্র খাতের বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ার দর বৃদ্ধি পেয়েছে।

প্রসঙ্গত, দুর্গাপূজা উপলক্ষে আজ বৃহস্পতিবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) লেনদেন ও দাফতরিক কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। বুধবার বাজারে দরপতন প্রসঙ্গে পুঁজিবাজার বিশ্লেষক অধ্যাপক আবু আহমেদ বলেন, বাজারের উন্নতির জন্য সংশ্লিষ্ট সকল প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের সক্রিয় হতে হবে। এদিন বিনিয়োগকারীদের মধ্যে বড় মূলধনী কোম্পানির শেয়ার ক্রয়ে তেমন একটা সক্রিয়তা ছিল না। মৌলভিত্তিক কোম্পানিগুলোর শেয়ারেও বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ খুব একটা লক্ষ্য করা যায়নি। এরই ধারবাহিকতায় এদিন বাজারে সূচক কিছুটা কমেছে বলে মনে করছেন তিনি।

বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, এদিন দিনশেষে ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৯ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৪৬৪৭ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ২ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১১১৩ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৪ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১৭৬২ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩১৫টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১৬১টির, কমেছে ১৩১টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৩টি কোম্পানির শেয়ার দর। টাকায় লেনদেন হয়েছে ৩৫৬ কোটি ১৭ লাখ ৯৪ হাজার টাকা। এর আগে মঙ্গলবার ডিএসই ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ১৩ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করে ৪৬৫৭ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৬ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করে ১১১৫ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৩ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করে ১৭৬৬ পয়েন্টে। ওইদিন লেনদেন হয় ৩৩৯ কোটি ১৬ লাখ ১৩ হাজার টাকা। সে হিসেবে বুধবার ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ১৭ কোটি ১ লাখ ৮১ হাজার টাকা।

বুধবার লেনদেনের শীর্ষে ছিল লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট। দিনশেষে কোম্পানির ২২ কোটি ৬৯ লাখ ৮ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা বেক্সিমকো ফার্মার লেনদেন হয়েছে ১৫ কোটি ৪৬ লাখ ৯৯ হাজার টাকা। ১৪ কোটি ৬৫ লাখ ২৯ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে কেডিএস এক্সেসরিজ। লেনদেনে এরপর রয়েছে যথাক্রমে- শাহজিবাজার পাওয়ার, আমান ফিড, বেঙ্গল উন্ডসোর, সাইফ পাওয়ারটেক, ইউসিবি, গ্রামীণফোন, ফার কেমিক্যাল। এদিকে দিনশেষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সাধারণ মূল্যসূচক ১৮ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৮৬৩৬ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ২৩০টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১০১টির, কমেছে ৯৫টির ও দর অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৪টির। যা টাকার অঙ্কে লেনদেন হয়েছে ৩০ কোটি ৬৩ লাখ ১০ হাজার টাকা। এর আগে মঙ্গলবার সিএসইর সাধারণ মূল্যসূচক ৪৩ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৮৬৫৮ পয়েন্টে। ওইদিন লেনদেন হয় ২৯ কোটি ৮৯ লাখ ৩১ হাজার টাকা। সে হিসেবে বুধবার সিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ৭৩ লাখ ৭৯ হাজার টাকা।

নির্বাচিত সংবাদ