১৭ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মাশরাফি সাকিব তামিমদের ভাগ্য নির্ধারণ আজ

মাশরাফি সাকিব তামিমদের ভাগ্য নির্ধারণ আজ
  • বিপিএল তৃতীয় আসর, রেডিসনে সকাল ১০টায় শুরু ‘প্লেয়ার্স বাই চয়েজ’

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের (বিপিএল-টি২০) তৃতীয় আসরে কোন দলে কোন ক্রিকেটার খেলছেন তা নির্ধারণ হবে আজ। হোক সে আইকন ক্রিকেটার, হোক সে এ, বি, সি, ডি ক্যাটাগরির ক্রিকেটার; আজই সকাল ১০টা থেকে শুরু হতে যাওয়া ‘প্লেয়ার্স বাই চয়েজে’ ক্রিকেটারদের দল নির্ধারণ হবে। লটারির মাধ্যমে দলগুলোকে ক্রিকেটার দলে ভেড়ানোর এ পদ্ধতির কার্যক্রম হোটেল রেডিসন ব্লু ওয়াটার গার্ডেনের বলরুমে অনুষ্ঠিত হবে। বেসরকারী টেলিভিশন ‘চ্যানেল-৯’ ক্রিকেটার দলে ভেড়ানোর এ কার্যক্রম সরাসরি দেখাবে।

কিভাবে এ কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হবে? প্রশ্ন থেকেই যায়। বিপিএল গবর্নিং কাউন্সিলের সদস্য সচিব ইসমাইল হায়দার মল্লিক জানিয়েছেন, ‘লটারিতে প্রথমে ৬টি দলের নাম তোলা হবে। যে দলটি প্রথম পর্বে ১ নম্বরে থাকবে, সেই দলটি দ্বিতীয় পর্বে ৬ নম্বরে থাকবে। এভাবে চলবে কার্যক্রম।’ এর আগে ২০১৩ সালের ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লীগেও এমন নিয়মে ক্রিকেটার দলে নেয়া হয়েছিল। নিয়ম অনুযায়ী শুরুতে ৬টি দলের মধ্যে লটারি হবে। ১ থেকে ৬টি দলের নাম লটারিতে তোলা হবে। এরপর দলগুলো সিরিয়াল করা হবে। প্রতিটি ক্যাটাগরিকে একটি পর্ব করে ধরা হবে। যে দলটির নাম লটারিতে প্রথমে উঠবে, সেই দল প্রথম পর্বে প্রথমেই ক্রিকেটার নিতে পারবে। এভাবে লটারিতে ওঠা দ্বিতীয়, তৃতীয়, চতুর্থ, পঞ্চম, ষষ্ঠ দল সিরিয়াল অনুযায়ী ক্রিকেটার দলে ভেড়াবে। প্রথম পর্বে যে দলটি শুরুতেই ক্রিকেটার দলে নেয়ার সুযোগ পেয়েছে, দ্বিতীয় পর্বে সেই দলটি সবার শেষে ক্রিকেটার নিজ দলে নেয়ার সুযোগ পাবে। এভাবে প্রতিটি পর্বেই দলগুলোর নাম রোল হতে থাকবে। আর ক্রিকেটার দলে ভেড়াতে পারবে। কোন দল যদি চায় কোন ক্যাটাগরি থেকে ক্রিকেটার না নিতে, তাও সে পারবে।

যেমন ধরা যাকÑ লটারিতে ১ নম্বরে ঢাকা, ২ নম্বরে চট্টগ্রাম, ৩ নম্বরে বরিশাল, ৪ নম্বরে সিলেট, ৫ নম্বরে রংপুর ও ৬ নম্বরে কুমিল্লার নাম উঠল। প্রথমেই যদি আইকন ক্রিকেটারদের নেয়ার সুযোগ দেয়া হয় তাহলে ঢাকা সবার আগে সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, মাশরাফি বিন মর্তুজা, মুশফিকুর রহীম, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ও নাসির হোসেন থেকে যে কোন একজনকে পছন্দ অনুযায়ী দলে নেবে। এভাবে লটারিতে ওঠা দ্বিতীয়, তৃতীয়, চতুর্থ, পঞ্চম ও ষষ্ঠ দলটি পছন্দের আইকন ক্রিকেটার নেবে। এক্ষেত্রে অবশ্য ষষ্ঠ দলের কাছে বিশেষ কোন পছন্দের আইকন ক্রিকেটার থাকবে না। বাধ্য হয়েই বাকি থাকা আইকন ক্রিকেটারকে নিতে হবে। আইকন ক্রিকেটারদের দলে ভেড়ানোর কাজ শেষ হলে শুরু হবে ক্যাটাগরি ‘এ’ থেকে ক্রিকেটার দলে নেয়ার কাজ। তখন আবার লটারিতে ১ নম্বরে ওঠা ঢাকা সবার আগে ক্রিকেটার নিতে পারবে না। তার অবস্থান হয়ে যাবে ৬ নম্বরে। অর্থাৎ সবার শেষে। এবার ২ নম্বরে থাকা চট্টগ্রাম শুরুতে ক্রিকেটার নেবে। এভাবে প্রতিটি পর্বেই পরের স্থানে থাকা দলগুলো আগে ক্রিকেটার নেয়ার সুযোগ পাবে।

বিপিএল গবর্নিং কাউন্সিলের সদস্য সচিব আগেই জানিয়েছিলেন, ‘২৬ অক্টোবর বিপিএলের ক্রিকেটারদের ‘প্লেয়ার্স বাই চয়েজ’ হওয়ার কথা ছিল। লটারির মাধ্যমে দলগুলো যে ক্রিকেটার দলে ভেড়াবে তা এখন ৪ দিন এগিয়ে (২২ অক্টোবর) আনা হয়েছে। নবেম্বরের ২ বা ৩ তারিখে জিম্বাবুইয়ে চলে আসবে। এ জন্য ক্রিকেটারদের অনুশীলনেও যোগ দিতে হবে। একবার জিম্বাবুইয়ে সিরিজের জন্য জাতীয় দলের ক্যাম্পে যোগ দিলে তখন আর বিপিএল শুরুর দুই একদিন আগে ছাড়া ফ্র্যাঞ্চাইজিরা ক্রিকেটারদের পাবে না। যদি ২৬ তারিখে হয় লটারি, তাহলে নিজ দলের ক্রিকেটারদের সঙ্গে ফ্র্যাঞ্চাইজিরা বসার খুব বেশি সুযোগ পাবে না। এমনকি বিজ্ঞাপনী কাজও করতে পারবে না। আর তাই ফ্র্যাঞ্চাইজিদের অনুরোধেই ৪ দিন এগিয়ে আনা হয়েছে।’ একইদিন আইকন ক্রিকেটারদের ভাগ্যও নির্ধারণ হবে বলে জানিয়েছিলেন মল্লিক, ‘আইকন ক্রিকেটারদের লটারিও একইদিনেই হবে।’

বিপিএলের খেলা শুরু হবে ২২ নবেম্বর। ২০ নবেম্বর হবে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে ১৫ ডিসেম্বর। ১৯৫ বিদেশী ও ১২২ দেশী ক্রিকেটারের তালিকা এরই মধ্যে দিয়েছে বিসিবি। এরসঙ্গে আরও দেশি ৮ থেকে ১০ ও বিদেশী ১৫ থেকে ২০ ক্রিকেটার যুক্ত হবে। এ ক্রিকেটারদের থেকেই বিপিএলে অংশ নেয়া ৬ দল ক্রিকেটারদের দলে ভেড়াবে। অবশ্য দেশী ক্রিকেটারদের আগেই দলে ভেড়াতে না পারলেও বিদেশী নামী ক্রিকেটারদের মধ্যে ক্রিস গেইল, শহীদ আফ্রিদি, কুমার সাঙ্গাকারা, তিলকারতেœ দিলশান, শোয়েব মালিকদের দলে ভিড়িয়ে নিয়েছে। আর তাই শোয়েব মালিক, ব্রেন্ডন টেইলর, কেভিন কুপারদের মত ক্রিকেটারদের তালিকা থেকে সরিয়ে ফেলা হয়েছে।

নির্বাচিত সংবাদ