২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

‘প্যায়ার কা পাঞ্চনামা টু’ এর বক্স অফিস চমক

  • পান্থ আফজাল

এও সম্ভব! কে জানে বাবা! সত্যিই বিচিত্র এ ধরণী। ততোধিক বিচিত্র বলিউড দুনিয়া। পাঠক বলিউডে মজার ব্যাপার হচ্ছে বিগ বাজেটের ফিল্মের সঙ্গে টেক্কা দিয়ে কিছু কিছু স্বল্প বাজেটের সিক্যুয়াল ফিল্মের আকাশছোঁয়া সাফল্য! এতদিন স্বপ্ন বেচাকেনার এই দুনিয়ার অলিগলি ঘোরাঘুরি করেও মাঝে মধ্যেই বিস্ময় বালকে রূপান্তরিত হই এসব বলিউডি কাণ্ড-কারখানা দেখে।

২০১৫ সালের দ্বিতীয়ার্ধে এসে বলিউডের বক্স-অফিসে চমক সৃষ্টি করছে এমন কিছু সিনেমা, যেগুলো আলোচনায় ছিল না কখনও। তেমনই একটি সিনেমা ‘প্যায়ার কা পাঞ্চনামা টু’। অল্প বাজেটে এবং স্বল্প পরিচিত অভিনয়শিল্পীদের নিয়ে নির্মিত সিনেমাটি প্রথম দিনের আয়ে পেছনে ফেলেছে ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চনের ফেরার সিনেমা ‘জাজবা’ কে। লাভ-রোমাঞ্চ আর হাস্যরসাত্মক সিনেমাটি শুক্রবার মুক্তি পেয়ে এক দিনেই আয় করে নিয়েছে ৬ কোটি ৮০ লাখ রুপি। বলিউডের সিনে বাণিজ্য বিশ্লেষক তরুণ আদর্শ মাইক্রোব্লগিং সাইট টুইটারে লেখেন, ‘প্যায়ার কা পাঞ্চনামা টুর দুর্দান্ত শুরু। শুক্রবার ৬.৮০ কোটি (১৪০০ পর্দায়) ভারতের বাণিজ্য।’

লাভ রঞ্জন পরিচালিত ২০১১-র অন্যতম সেরা হিট মুভি ‘প্যায়ার কা পঞ্চনামা’? এবার সেই ছবির সিক্যুয়েল তৈরি হয়েছে ‘প্যায়ার কা পঞ্চনামা টু’? এর ছবির প্রযোজনায় রয়েছে যৌথভাবে ভিয়াকম ১৮ মোশন পিকচারস এবং প্যানারমা স্টুডিও প্রডাকশনস। এই ছবির প্রযোজক অভিষেক পাঠক জানিয়েছেন আগের গল্পের সঙ্গে মিল থাকলেও ‘প্যায়াার কা পঞ্চনামা টু’-র গল্পে অন্যমাত্রা যোগ করার চেষ্টা করা হয়েছে?’ তবে সিক্যুয়েলে ও লাভ-রোমাঞ্চের টাচ আছে সে ব্যাপারটিও নিশ্চিত করেছেন। সিনেমাটি নির্মিত হয়েছে মাত্র ৯ কোটি রুপি বাজেটে। অভিনয় করেছেন নুসরাত ভারুচা, সোনালি সেহগাল, ইশিতা শর্মা, কার্তিক আরিয়ান, সানি সিং এবং ওমকার কাপুর। কমেডি-রোমান্স মিশেলের এই ফিল্মে মজার চরিত্র গোঁগোঁ এর ভূমিকায় তারকা কার্তিক আরিয়ান এবং চিক্কুর ভূমিকায় রয়েছে গ্লামারস নুসরাত ভারুচা। ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৫ তে এই ফিল্মের ট্রেইলার উদ্বোধন করা হয়েছিল, যা এই পর্যন্ত ব্যাপকহারে দেখা হয়েছে।

তিন বন্ধু কাম ফ্লাটমেট কার্তিক, সানি আর ওমকার কাপুর এর প্রতিদিনকার লাইফ স্টাইল ভালই যাচ্ছিল। এর সঙ্গে বাকি তিন সুন্দরীর ভিন্নভাবে তাদের জীবনে জড়িয়ে পড়ার কাহিনী আর লাভ-রোমাঞ্চ-কমেডি নিয়েই তৈরি এই ফিল্ম। ফিল্মের শুরুতেই দেখা যাবে গোঁগোঁ অর্থাৎ কার্তিকের সঙ্গে চিক্কুর মিটিং এবং সেই সূত্রেই চিক্কুকে কার্তিকের মোবাইল নাম্বার প্রদান। এদিকে সানি একটি পারিবারিক বিয়ের অনুষ্ঠানে সোনালিকে প্রথম দেখাতেই প্রেমে পড়ে যায়। অন্যদিকে ওমকার কাপুর একটি জিম হতে বের হবার সময় সুন্দরী ঈশিতার চোখাচোখি হয় এবং দুজন-দুজনার প্রেমে হাবুডুবু খাওয়া শুরু“করে। এভাবেই এই ফিল্মের গল্প অদ্ভুত পরিণতির দিকে মোড় নেয়।

২০১১ সালে মুক্তি পাওয়া ‘প্যায়ার কা পাঞ্চনামা’ এর এই সিকুয়ালটি মাত্র ১৪০০ প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েও ‘জাজবা’ এবং ‘কাট্টি বাট্টি’ এর চেয়ে প্রথম দিনের আয়ে এগিয়ে আছে। মুক্তির দিন ‘জাজবা’ আয় করে ৪ কোটি ২৩ লাখ রুপি, অন্যদিকে কাঙ্গানা রানাওয়াত ও ইমরান খান অভিনীত ‘কাট্টি বাট্টি’র প্রথম দিনের আয় ছিল ৫ কোটি ২৮ লাখ রুপি।

শুধু শিরোনামেই নয়, নিমেষেই একেবারে ব্লকব্লাস্টার হিট হয়ে গেল এই ছবির নতুন ৬ তারকা। তাদের ফিল্ম চলাকালীন মাহেন্দ্রক্ষণটি যে কতখানি উপভোগ্য হচ্ছে, তা তারাই শুধু অনুভব করতে পারছেন! আর হবে নাই বা কেন? লাভ রঞ্জনের ফিল্ম বলে কথা! আর এই সিক্যুয়াল ফিল্মে পরিচালকসহ সকলে যা পারফর্মেন্স করলেন, তাতে গোটা কয়েক বলিউডি এ্যাকাডেমি এ্যাওয়ার্ডের দাবি তো তাঁরা করতেই পারেন!