১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বড় উদাহরণ বাংলাদেশ ॥ মতিয়া

নিজস্ব সংবাদদাতা, শেরপুর, ২২ অক্টোবর ॥ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী বলেছেন, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির উদাহরণ মানেই বাংলাদেশ, আর এটা বজায় রাখার চেষ্টা একমাত্র আওয়ামী লীগই করে। তিনি বৃহস্পতিবার বিকেলে শারদীয় দুর্গোৎসব উপলক্ষে শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার বিভিন্ন পূজামন্ডপ পরিদর্শন শেষে স্থানীয় গোপাল জিউর মন্দিরে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে ওই কথা বলেন।

মতিয়া চৌধুরী সনাতন ধর্মাবলম্বী নেতৃবৃন্দের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করে দুর্গোৎসবের মধ্য দিয়ে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি আরও সুদৃঢ় হবে বলে আশা প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, ধর্ম যার যার, উৎসব সবার। আর ধর্মীয় সহমর্মিতার মাধ্যমেই দেশ এগিয়ে যাবে। জাতি-ধর্ম নির্বিশেষে যে কোন দুর্যোগ হাতে হাত, কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে মোকাবেলা করা হবে। তিনি আন্দোলন-সংগ্রামের নামে বিএনপিসহ সমমনাদের সমালোচনা করে প্রশ্ন রেখে বলেন, শব-ই-বরাতের রাতে যারা মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করতে পারে, তারাই আবার ইসলামের নামে রাজনীতি করবে- এটা কোন্ ধর্ম ? আওয়ামী লীগ উন্নয়নের স্বার্থে ক্ষমাতে বিশ্বাসী, বদলা নিতে নয়। তবে ক্ষমা করা আর ভুলে যাওয়া এক জিনিস নয়।

মতবিনিময়কালে জেলা প্রশাসক ডাঃ এ এম পারভেজ রহিম, নালিতাবাড়ী উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম মোখলেসুর রহমান রিপন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু সাঈদ মোল্লা, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার শাজাহান মিয়া, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জিয়াউল হক মাস্টার, সাধারণ সম্পাদক ফজলুল হক, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রীস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি গোপাল চন্দ্র সরকার, পূজা উদযাপন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মনিন্দ্র চন্দ্র বর্মণ, সাধারণ সম্পাদক যোগেন রায়সহ স্থানীয় প্রশাসন ও আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এ দিন কৃষিমন্ত্রী নালিতাবাড়ী উপজেলার ৬টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে ৬০টি শীতের কম্বল ও দরিদ্রদের মাঝে ৪৩৩টি সোলার ল্যাম্প এবং নকলা উপজেলায় ১২০টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণীর ১ হাজার ২শ’ দরিদ্র-মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে শীতের কম্বল বিতরণ করেন।