২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

চাচার দেয়া অপবাদ সইতে না পেরে গৃহবধূর আত্মহত্যা

নিজস্ব সংবাদদাতা, সিদ্ধিরগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, ২২ অক্টোবর ॥ সোনারগাঁয়ের সনমান্দি ইউনিয়নের পূর্ব সনমান্দি গ্রামে অপবাদ সইতে না পেরে গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে। কীটনাশক ট্যাবলেট (পোকা মারার বড়ি) খেয়ে সে আত্মহনন করে। পুলিশ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ওই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার পূর্ব সনমান্দি গ্রামের আল আমিনের সঙ্গে একই গ্রামের আলমগীরের মেয়ে আঁখি মনির এক বছর আগে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের পর পর পারিবারিক কলহের জের ধরে আঁখি মনি তার স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে বাবার বাড়ি চলে আসে। পরে বুধবার রাতে একই এলাকার রিফাত নামের এক যুবককে মোবাইলের জটিলতা সংক্রান্ত সমাধান করার জন্য আঁখি তার বাড়িতে ডেকে নিয়ে আসে। এ বিষয়টি আঁখি মনির চাচা দেখতে পেয়ে আঁখি মনিকে ওই যুবকের সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক রয়েছে বলে অপবাদ দেয়। এ নিয়ে রাতেই উভয় পক্ষের বাবা-মাকে নিয়ে পারিবারিকভাবে সালিশ বসে। সালিশেও তাকে ওই যুবকের সঙ্গে অবৈধ সম্পর্কের অপবাদ দেয়া হয়। এ ঘটনার পর রাতের কোন এক সময় আঁখি মনি কীটনাশক ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহনন করে। পরে তার পরিবার বৃহস্পতিবার তার ঘরের কক্ষে লাশ পড়ে থাকতে দেখে। খবর পেয়ে সোনারগাঁ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

সোনারগাঁ থানার ওসি (তদন্ত) হারুন-অর-রশিদ জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।