২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ফরিদপুরে সংঘর্ষ, বাড়ি দোকান ভাংচুর ॥ আহত ৪৩

নিজস্ব সংবাদদাতা, ফরিদপুর, ২২ অক্টোবর ॥ নগরকান্দায় দুইদল গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে ৪৩ আহত হয়েছে। এছাড়া তিনটি দোকান ও পাঁচটি বাড়ি ভাংচুর ও লুটপাট করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে সংঘর্ষের এ ঘটনা ঘটে উপজেলার কোদালিয়া শহীদ নগর ইউনিয়নের কোদালিয়া গ্রামে।

জানা যায়, ওই গ্রামে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে আক্কাস আলী ও ফজলু মাস্টারের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। এক সপ্তাহ আগে এলাকার তরুণদের মধ্যে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। বুধবার রাতে এ বিরোধ নিয়ে পুনরায় উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। ফলে দুই পক্ষ বৃহস্পতিবার সকাল থেকে রামদা, ঢাল, সড়কি নিয়ে প্রস্তুত হয়ে গ্রামের দুইপ্রান্তে অবস্থান নেয়। এ সময় পাশের ঈশ্বর্দী, শেখরকান্দি গ্রামের কয়েকজন ব্যক্তি ফজলু মাস্টারের সমর্থকদের কাছে গিয়ে বলে সালিশ করে এ বিরোধ মেটানোর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এ কথা ফজলুর পক্ষের লোকজন যে যার মতো নিজ নিজ বাড়িতে চলে যেতে শুরু করে। এ সময় অতর্কিতে আক্কাসের সমর্থকরা ফজলু সমর্থকদের ওপর হামলা চালালে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

সোনারগাঁয়ে আহত ১০

নিজস্ব সংবাদদাতা, সিদ্ধিরগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ থেকে জানান, সোনারগাঁয়ের কাফুরদী গ্রামে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে ১০ জন আহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার পর একপক্ষের বাড়িঘরে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাট করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। জানা গেছে, উপজেলার মোগরাপাড়া ইউনিয়নের আশ্ররবদী গ্রামের সার্বজনীন পূজাম-পে বুধবার রাতে কাফুরদী উত্তরপাড়া গ্রামের নুরুজ মিয়ার সঙ্গে আলাবদী গ্রামের উজ্জ্বলের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে উজ্জ্বল ক্ষিপ্ত হয়ে নুরুজ মিয়াকে মারধর করে। এর জের ধরে বৃহস্পতিবার দুপুরে কাফুরদী গ্রামের নুরুজ মিয়ার নেতৃত্বে ২০-২৫ জনের একটি দল একত্রিত হয়ে উজ্জ্বলের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাট করে।

সিরাজদিখানে প্রতিপক্ষের

বাড়িতে

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ থেকে জানান, সিরাজদিখান উপজেলার বালুরচর ইউনিয়নের মোল্লাকান্তি বালুরচর গ্রামে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের বাড়িতে হামলা ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় লুটপাটেরও অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় এ ঘটনা ঘটে। জানা যায়, ওই গ্রামের আনোয়ার হোসেন এবং তার আপন ভাই মৃত আজগর আলীর ছেলে সাইফুল ইসলাম (৪০), সফিকুল ইসলাম (৩৮), আনিছুল (২৬) এবং আজাদ আলীর সঙ্গে বাড়ি নিয়ে দীর্ঘদিন বিরোধ চলে আসছিল। এ নিয়ে ইতোপূর্বে এলাকায় বিচার-সালিশও হয়েছে। বৃহস্পতিবার হঠাৎ করে আনোয়ার হোসেনের চার ভাতিজা কিছু ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী নিয়ে তার বাড়িতে হামলা করে টিনশেড ঘর ও রান্নাঘর ভেঙ্গে দেয়। এ সময় বাড়িতে লুটপাটও করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ বিষয়ে সিরাজদিখান থানার এসআই আব্দুল সালাম জানান, বিষয়টি মীমাংসা করে দেয়ার চেষ্টা চলছে। তবে ভুক্তভোগী আনোয়ার হোসেনের স্ত্রী রহিমা বেগম বলেন, মীমাংসার ব্যাপারে আমার সঙ্গে কোন কথা হয়নি। আমি থানায় মামলা করতে গেলে পুলিশ মামলা না নিয়ে মীমাংসার কথা বলে বিভিন্ন টালবাহানা করে আসছে।

কালকিনিতে আহত ৭

নিজস্ব সংবাদদাতা কালকিনি মাদারীপুর থেকে জানান, সরকারী খাস জমি দখলকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার সকালে কালকিনি উপজেলার লক্ষ্মীপুর এলাকায় ভূমিদস্যুদের দু’পক্ষের দফায়-দফায় সংঘর্ষে কমপক্ষে ৭ জন আহত হয়েছ। আহতদের শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ নিয়ে দুই পক্ষের মাঝে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।

জানা গেছে, লক্ষ্মীপুর এলাকার সূর্যমনি হাটের পাশে খাস ৩২ শতাংশ জমি দখলের জন্য জুলফিকার আলী সরদার ও জালাল লস্করের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়।

রূপগঞ্জে আহত তিন

নিজস্ব সংবাদদাতা রূপগঞ্জ থেকে জানান, স্থানীয় সন্ত্রাসীরা দোকান দখল নিতে হামলা ও ভাংচুর চালিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। প্রতিবাদ করায় সন্ত্রাসীদের হামলায় আহত হয়েছেন ৩ জন। গত বুধবার রাতে রূপসী সিটি গ্রুপ মিলের পাশে এ ঘটনা ঘটে। আহত হাজী আলী আহাম্মদ (৬৫), সজিব, জামানকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। হাজী আলী আহাম্মদ জানান, তার জমির ওপর একটি দোকান নির্মাণ করেন।