২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মৃত ও জীবিতের জীবনগুলি

  • আলমগীর মাসুদ

গল্প, অল্পকথার ভেতর জীবন আর জীবনের জয় পরাজয় ফুটে ওঠার বয়ান। সাইফুল্লাহ সাইফ তরুণ গল্পকার। ‘মৃত ও জীবিতের জীবনগুলি’ তাঁর দ্বিতীয় গল্পগ্রন্থ। গদ্য সদ্য লেখা হলে সময়ের চাপ পড়ে; আর জীবনের তাপও পাওয়া যায়Ñভাপও ওঠে। সাইফুল্লাহ সাইফ এই সময়ের এক তরুণ প্রতিশ্রুতিশীল গল্পকার। তাঁর গল্পের বুনোনে সময়ের গন্ধ, মানুষের সম্পর্ক ভঙ্গের কাচ, অসুখী কাল আর জটিল প্রেম-কাম সহজে উঠে আসে।

‘ভাতের ভেতর লাল লাল রং ছোপ। আলতা রঙা জলের মতো।’ গল্পকারদের মতে, গল্পের শুরুতে এবং শেষে চমক থাকতে হবে। উপরের বাক্যটি সাইফুল্লাহ সাইফের গল্প ‘ভাত ও লালশাকের প্রশ্নবোধক বয়ান’ এর প্রথম লাইন। যা পাঠককে অনায়সে গল্পের ভেতরে টেনে নিয়ে যায় চোরাবালির মতো করে। ফলে, পাঠকও তাঁর গল্পের বর্ণনায়, চিত্রকল্প, উপমায় আটকে যায় এবং খুঁজে পায় জীবনের বৈচিত্র্যের স্বাদ।

‘মৃত ও জীবিতের জীবনগুলি’ গ্রন্থে তেরোটি গল্পের সমাবেশ ঘটানো হয়েছে। প্রতিটি গল্পই বিষয়বস্তু এবং আঙ্গিক নির্মাণের দিক থেকে স্বতন্ত্রের দাবিদার। তাঁর গদ্যের ভাষা ঝরঝরে এবং চেনা জানা শব্দের আবহে গড়ে ওঠে গল্পের একেক মাত্রা। সাইফুল্লাহ সাইফের গল্পের চরিত্রগুলো ও আধুনিক জীবনধারায় মানুষের টানাপড়েন, সুখ-দুঃখ এবং স্বপ্ন ও স্বপ্নভঙ্গের কথা বলে।

আমরা তাঁর গল্পে এভাবে খুঁজে পাই একজন নিদ্রাভঙ্গ মানুষকে বোধোদয়ের মাধ্যমেÑ ‘তারপর একদিন তন্দ্রাচ্ছন্নের মাঝে আয়াত আলি ঘরময় এক অপার্থিব আলোর সন্ধান পায়। চলন্ত আলো, জলন্ত আলো। আলোর একখান মুখ আছে, হাত আছে, পা আছে, ভরাট নিটোল বুক আছে, শরীরজুড়ে জোয়ার আছে। মুখে খই ফোঁটার শব্দ আছে, চোখে অতলান্তিক জল আছে। আয়াত আলি এসব দেখে জেগে ওঠে পুনর্জন্ম লাভ করে আবার।’

কথাগুলো লেখক গল্পের বয়ানে এনেছেন বইয়ের দ্বিতীয় গল্প ‘পরম্পরা’তে। যাতে লেখক বৃদ্ধ আয়াত আলির অসময়ে বাবা হওয়ার আনন্দের কথা বলেছেন। এই গল্প পড়ে মনে হয়, আয়াত আলি জীবনের চড়াই-উতরাই পার করে বেঁচে থাকা বয়ষ্ক মানুষের প্রতিনিধি। স্বপ্ন কখনও থমকে দাঁড়ায় না, বয়স যতই তাকে লাগাম ধরে টানুক না কেন। স্বপ্নই এঁকে দেয় একটি পরম্পরার আলোকবিশ্ব।

লেখকের বয়ান কৌশলে প্রতিটি গল্পের কাহিনী পাঠকের কাছে মনে হয় ঘটনাটি তাদেরই জীবনের একটি অংশ। আর এভাবে সাইফুল্লাহ সাইফের ‘অপরাহ্ন, ফেরা, থুতু, মার্বেল জীবন, ভাত ও লালশাকের প্রশ্নবোধক বয়ান এবং দেয়ালবন্ধু গল্পগুলো পাঠকের কাছে বিশেষ মর্যাদা পেয়ে যায়।

‘একটি পৌরাণিক গল্প’ প্রতীকী ধাঁচের একটি ভিন্নধর্মী কাজ। অশোক গাছ আর স্বর্ণলতার বয়ানের ভেতর দিয়ে মানুষের নিষ্ঠুরতা, সভ্যতার কুঠারাঘাত তুলে আনেন লেখক। সবশেষে একজন তরুণ গল্পকার সাইফুল্লাহ সাইফকে সাধুবাদ জানাব তাঁর এই অসাধারণ আবেদন জাগানিয়া গল্পগুলোর সৃজনকর্মে। অল্প কথায় তাঁর ‘মৃত ও জীবিতের জীবনগুলি’ গ্রন্থের সবটুকু তুলে আনা অসম্ভব কারণ পাঠের বাইরে থেকে পাঠসুধা সম্ভব নয়।

বইটি প্রকাশিত হয়েছে নওরোজ কিতাবিস্তান থেকে। মূল্য- ১০০ টাকা