২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

প্রণব মুখার্জীকে প্রধানমন্ত্রী করতে চাননি রাজীব গান্ধী!

প্রণব মুখার্জীকে প্রধানমন্ত্রী করতে চাননি রাজীব গান্ধী!

অনলাইন ডেস্ক ॥ ১৯৯০ সালে বিশ্বনাথপ্রতাপ সিংহ সরকারের পতনের ভারতের প্রধানমন্ত্রী পদে প্রণব মুখার্জীর নাম প্রস্তাব করেছিলেন দেশটির তত্কালীন রাষ্ট্রপতি আর বেঙ্কটরামন। এমনটা হলে ২৫ বছর আগেই প্রথম বাঙালি প্রধানমন্ত্রী পেত ভারত। তবে রাষ্ট্রপতির ওই প্রস্তাব আমলে নেননি কংগ্রেস নেতা রাজীব গাঁধী। প্রণবকে প্রধানমন্ত্রী করার বদলে তিনি চন্দ্রশেখরকে সমর্থন করার সিদ্ধান্ত নেন। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনার কথা শুনিয়েছেন বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা মাখনলাল ফোতেদার।

নেহরু-গান্ধী পরিবারের সদস্য ছাড়া অন্য কাউকেই কংগ্রেসের শীর্ষ পদে উঠতে দেওয়া হয় না বলে দীর্ঘ দিন ধরেই দাবি বিজেপি-সহ কংগ্রেস বিরোধী দলগুলির। ফোতেদারের বই সেই অভিযোগেই আরও ইন্ধন জোগাবে বলে মনে করছেন রাজনীতিকেরা।

কিছু দিনের মধ্যেই প্রকাশিত হবে ফোতেদারের বই ‘দ্য চিনার লিভস’। তাতেই এই দাবি করেছেন ওই নেতা। ফোতেদারের দাবি, ১৯৯০ সালে বিশ্বনাথপ্রতাপ সিংহের সরকারের পতনের পরে রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করতে তৎকালীন রাষ্ট্রপতি প্রয়াত আর বেঙ্কটরামনের সঙ্গে দেখা করেন তিনি। তখন বেঙ্কটরামন জানান, প্রণব মুখোপাধ্যায়কে প্রধানমন্ত্রী পদের জন্য সমর্থন করা উচিত রাজীব গাঁধীর।

ফোতেদারের কথায়, ‘‘কথাটা শুনে একেবারে হতবম্ব হয়ে গিয়েছিলাম। তাঁর ইচ্ছের কথা রাজীবকে জানানোর ভার বেঙ্কটরামন আমাকেই দিলেন।’’ বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা জানিয়েছেন, রাষ্ট্রপতির ইচ্ছের কথা শুনে রাজীবও অবাক হয়ে গিয়েছিলেন। তার পরেই প্রধানমন্ত্রী পদে চন্দ্রশেখরকে সমর্থনের সিদ্ধান্ত নেন রাজীব।

ফোতেদারের আরও দাবি, প্রণবকে রাষ্ট্রপতি পদের জন্য প্রার্থী করার ক্ষেত্রে কংগ্রেসে সর্বসম্মতি ক্রমে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। কারণ, ওই পদের জন্য তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংহই প্রণবের নাম সুপারিশ করেছেন বলে খবর ছড়িয়ে পড়ে। ফলে, প্যাঁচে পড়েছিল দল। সেই অস্বস্তি এড়াতেই প্রণবের নাম নিয়ে সর্বসম্মতি ক্রমে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা