১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সেমিতে উত্তরণের জন্য কাল মাঠে নামছে চার দল

স্পোর্টস রিপোর্টার, চট্টগ্রাম থেকে ॥ স্বাস্থ্য বিষয়ক একটি বিজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, ‘বাঁচতে হলে জানতে হবে!’ তেমনি ‘শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট’-এ ‘বি’ গ্রুপের দলগুলোকেও ‘টিকতে হলে জিততে হবে’ কাল। এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে শনিবারের প্রথমে ম্যাচ স্বাগতিক চট্টগ্রাম আবাহনী লিমিটেড বিকেল সাড়ে ৪টায় মুখোমুখি হবে পাকিস্তানের করাচি ইলেকট্রিক ফুটবল ক্লাবের। একই ভেন্যুতে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় দ্বিতীয় ম্যাচ ঢাকা আবাহনী লিমিটেড মোকাবেলা করবে ভারতের কলকাতা ইস্ট বেঙ্গলকে। এই গ্রুপের প্রতিটি দলের এমনই অবস্থা, কোন দলই এখনও বিদায় নেয়নি আবার কোন দলই (২টি) গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন ও গ্রুপ রানার্সআপ হয়ে সেমিতে নাম লেখাতে পারেনি। তার মানে প্রতিটি দলেরই সেমিতে যাওয়ার সুযোগ আছে! সবমিলিয়ে জটিল এক অবস্থা!

ঢাকা আবাহনীর কথাই ধরা যাক। করাচি ইলেকট্রিককে হারিয়ে শুভসূচনা করে তারা। অনেকেই ধরে এমন জয়ে ধরে নেয়া হচ্ছিল এই গ্রুপের শীর্ষ দল হিসেবে সেমিতে নাম লেখাবে তারা। কিন্তু পরের ম্যাচেই চট্টগ্রাম আবাহনীর কাছে হেরে সব হিসেব-নিকেশ গ-গোল হয়ে যায়! গ্রুপসেরা হওয়া তো দূরের কথা, রানার্সআপ হয়ে শেষ চারে যাওয়াটাই মুশকিল হয়ে দাঁড়িয়েছে তাদের জন্য! টুর্নামেন্টে টিকে থাকতে হলে আজ শক্তিশালী ইস্ট বেঙ্গলের বিরুদ্ধে জয় পাওয়া ছাড়া কোন বিকল্প নেই তাদের। এক জয় এবং এক হারে ঢাকা আবাহনীর সংগ্রহ ৩ পয়েন্ট। সমান পয়েন্ট চট্টগ্রাম আবাহনীরও। তবে গোলগড়ে স্বাগতিকরা এগিয়ে। অবস্থান দ্বিতীয়। তাদের পরেই আছে ঢাকা আবাহনী। দুই ম্যাচ হেরে পয়েন্টশূন্য করাচি ইলেকট্রিক চতুর্থ স্থানে। আজ ঢাকা আবাহনীকে শুধু ইস্ট বেঙ্গলকে হারালেই হবে না, সেমিতে যেতে হলে অন্তত ৩-০ গোলে জিততে হবে তাদের! কারণ টানা দুই ম্যাচ জিতে ইস্ট বেঙ্গল ৬ পয়েন্ট নিয়ে শুধু শীর্ষেই নয়, গোল ব্যবধানেও বাকি তিন দলের চেয়ে অনেক এগিয়ে তারা। সেক্ষেত্রে আজ তাদের সেমিতে যেতে কমপক্ষে ড্র করলেই চলবে। হারলেও আশা টিকে থাকবে তাদের। সেক্ষেত্রে গ্রুপের অন্য ম্যাচের ফলের দিকে তাকিয়ে থাকতে হবে তাদের।