২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

টানা তিন দিনের ছুটিতে ভোগ্যপণ্যের বাজার জমজমাট

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ টানা তিনদিনের সরকারী ছুটিতে ভোগ্যপণ্যের বাজার জমে উঠেছে। বেড়েছে সব ধরনের কেনাকাটা। শারদীয় দুর্গোৎসবের সঙ্গে সাপ্তাহিক ছুটির কারণে বাজারগুলোতে কেনাকাটা বেড়েছে। ইলিশ মাছ, মুরগি, মাংস ও সবজির বাজার জমজমাট। এতে করে আরেক দফা বেড়েছে সব ধরনের সবজির দাম। শীতকালীন শাক-সবজিতে ভরে উঠছে বাজার কিন্তু দাম বেশি দিয়েই কিনতে হচ্ছে ভোক্তাদের। অপরিবর্তিত রয়েছে চাল, ডাল, ভোজ্যতেল, চিনি এবং আটার দাম। মাছ ও মাংসের দাম কিছুটা বেড়েছে। অপরিবর্তিত রয়েছে পেঁয়াজ, আদা ও আলুর দামও। শুক্রবার রাজধানীর ফকিরাপুল বাজার, মুগদা এবং মালিবাগ বাজার ঘুরে নিত্যপণ্যের দরদামের এসব তথ্য পাওয়া গেছে।

ফকিরাপুল বাজারে নিত্যপণ্যের বাজার করতে এসেছেন শাজাহানপুরের বাসিন্দা চাকরিজীবী আওলাদ হোসেন। তিনি জনকণ্ঠকে বলেন, টানা তিনদিনের ছুটি তাই প্রস্তুতি নিয়ে একটু বেশি বাজার করার জন্য আসা হয়েছে। ইলিশ মাছ ও মাংসের পাশাপাশি বেশি পরিমাণে সবজি নেয়া হয়েছে। তিনদিন ঘরে থাকতে হবে। এই সময়টাতে পরিবার-পরিজনের সঙ্গে ভালো খাবারগুলো খাওয়া হবে। তাই বাড়তি আয়োজন। তবে সবজির দামে অসন্তুষ্ট তিনি। শীতকালীন সবজির কোন ঘাটতি নেই কিন্তু দাম অনেক বেশি। সবজি ছাড়া অন্যান্য পণ্যের দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

এদিকে ওই বাজারের ব্যবসায়ীরাও জানালেন, টানা তিনদিনের সরকারী ছুটির কারণে অন্য সময়ের চেয়ে বেচাবিক্রি বেড়েছে। হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজার বেচাবিক্রি তো আছেই। তার সঙ্গে সাপ্তাহিক ছুটি বাড়তি বোনাস হিসেবে এসেছে। ফলে নগরবাসী বেশি করে বাজার করছেন। এতে করে তাদের বেচাবিক্রি ভাল হচ্ছে।

এদিকে, পেঁয়াজ এখনও বাড়তি দামে বিক্রি হচ্ছে। বর্তমানে প্রতিকেজি দেশী পেঁয়াজ ৬০Ñ৭০ টাকা ও ভারতীয় পেঁয়াজ ৫০Ñ৫৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। অপরিবর্তিত রয়েছে চালের বাজার। বাজারগুলোতে প্রতিকেজি খুচরা গুটি স্বর্ণা চাল ৩২Ñ৩৪ টাকা বিক্রি হচ্ছে। এ ছাড়া বিআর আটাশ ৩৫Ñ৩৭ টাকা, বিআর ঊনত্রিশ ৩৫Ñ৩৬ টাকা, মিনিকেট জাত ও মানভেদে ৪০Ñ৫০ টাকা, হাসকি (আধা সিদ্ধ) ৩৫Ñ৩৬ টাকা, নাজিরশাইল ৪৬Ñ৫২ টাকা এবং পোলায়ের চাল ৭০Ñ১০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এদিকে কমেছে আদার দাম। দেশী আদা ৭০Ñ৯০ টাকা ও ভারতীয় আদা ১০০Ñ১৩০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এক মাস আগে দেশী আদা ১০০Ñ১১০ টাকা ও ভারতীয় আদা ১১০Ñ১৬০ টাকায় বিক্রি হয়। বাজারে প্রতিকেজি ব্রয়লার মুরগির ১২০Ñ১৩০ টাকা ও লেয়ার ১৪০Ñ১৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তবে গত সপ্তাহের তুলনায় শাকসব্জির বাজার চড়া। কেজিপ্রতি শাকসবজিতে ৫-৭ টাকা বেড়েছে। এখনও বাজারে ৬০ টাকার নিচে কোন সবজি পাওয়া যাচ্ছে না। প্রতিকেজি গরু ৩৮০-৪০০ এবং খাসির মাংস ৫৫০ থেকে ৬০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া প্রতিজোড়া মাঝারি সাইজ ইলিশ মাছ বিক্রি হচ্ছে ২ থেকে আড়াই হাজার টাকা।