২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পর্বতারোহী দল কেয়াজো ও আমা-দাবলাম অভিযানে যাবে

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশের পর্বতারোহী দল আমা-দাবলাম ও কেয়াজো-রি পর্বত জয়ের উদ্দেশে আগামী ২৭ অক্টোবর নেপালের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করবেন। এভারেস্ট বিজয়ী এমএ মুহিতের নেতৃত্বে এ অভিযানে অংশ নিচ্ছেন নূর মোহম্মদ, কাজি বাহলুল মজনু, শামীম তালুকদার, ইকরামুল হাসান শাকিল, শায়লা পারভীন ও ফৌজিয়া আহমেদ। শায়লা পারভীন ও ফৌজিয়া আহমেদ প্রথমবারে মতো পর্বত অভিযানে অংশ নিলেও বাকিদের সবারই পর্বতাভিযানের অভিজ্ঞতা রয়েছে।

শুক্রবার সকালে রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্চে হিমালয়ের অন্যতম দুর্গম পর্বত ‘আমা-দাব্লাম’ শিখরে বাংলাদেশের প্রথম এবং ‘কেয়াজো-রি’ শিখরে দ্বিতীয় অভিযান উপলক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়। সংবাদ সম্মেলনে অভিযানের বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরেন এমএ মুহিত। পরে অভিযাত্রীদের হাতে জাতীয় পতাকা তুলে দেন এমেরিটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামান।

এ সময় এমেরিটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামান বলেন, বাংলাদেশের পবর্তারোহী দল নানা অভিযানে বছরের পর বছর ধরে কাজ করে চলছে। এভারেস্ট জয় করেই কাজ শেষ হয়ে যায়নি। এভারেস্টের চেয়ে ছোট কিন্তু জয় করা দুরূহ এমন সব পর্বত জয় করতে হবে। তরুণদের মধ্যে এই যে জয়ের এ প্রবণতা তা অত্যন্ত ইতিবাচক। নতুন পর্বতারোহীদের অভিনন্দন জানিয়ে তিনি আরও বলেন, বিশেষ করে এবার যারা প্রথমবারে মতো যাচ্ছেন, আশা করি এ অভিযান তাদের আরও উঁচুতে উঠতে সাহায্য করবে।

বিজিএমইর সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট ফারুক হাসান বলেন, পর্বতারোহীদের পৃষ্ঠপোষকতা করতে পেরে আমরা অনন্দিত। আশা করি আগামীতেও আমরা সম্পৃক্ত থাকতে পারব। কয়েক বছরের মধ্যে বাংলাদেশের পোশাক শিল্প এক নম্বরে উঠে আসবে এমন প্রত্যাশা ব্যক্ত করে তিনি আরও বলেন, পোশাক শিল্পে বর্তমানে বাংলাদেশের অবস্থান দ্বিতীয়। তবে বছর দুয়েকের মধ্যে তা এক নম্বরে উঠে আসতে পারে। পবর্ত জয় বাংলাদেশী পোশাক শিল্পের ব্রান্ডিং হিসেবে কাজ করতে পারে।

এবারের অভিযানটি পরিচালনা করছে বাংলা মাউন্টেইনিয়ারিং অ্যান্ড ট্রাকিং ক্লাব। যৌথভাবে স্পন্সর করেছে এপেক্স গ্রুপ, শাহ সিমেন্ট, বিজিএমইএ, বার্জার পেইন্ট্স বাংলাদেশ লিমিটেড ও জনতা ব্যাংক লিমিটেড। ওই সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন এপেক্স ফুটঅয়ার লিমিটেডের হেড অব মার্কেটিং জোহেব আহমেদ, বিজিএমইএর সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট ফারুক হাসান, জনতা ব্যাংক লিমিটেডের ম্যানেজার রেইনা আশফীন খান প্রমুখ।