২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মধ্যপ্রাচ্যের মানচিত্র বদলানো ॥ পশ্চিমাদের লক্ষ্য

  • ‘সিরিয়ায় দু’মুখো খেলা খেলছে তারা’

রুশ প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন সিরিয়ার ‘সন্ত্রাসী দল’গুলোকে নিয়ে ‘দু’মুখো নীতি’ অনুসরণের দায়ে পাশ্চাত্যকে অভিযুক্ত করেছে। সিরিয়াতে মস্কো ও মার্কিন নেতৃত্বাধীন এক কোয়ালিশন পৃথক পৃথকভাবে বোমা বর্ষণ চালিয়ে যাচ্ছে। খবর এএফপির।

পুতিন বলেন, দু’মুখো খেলা খেলতে যাওয়া সব সময়েই কঠিন। এটি হলো সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণার পাশাপাশি একই সময়ে তাদের কিছুসংখ্যককে নিজের স্বার্থে মধ্যপ্রাচ্যের মানচিত্র বদলাতে কাজে লাগানোর চেষ্টা করা। তিনি বৃহস্পতিবার সোচিভে ‘ভালদাই ক্লাব’ নামে পরিচিত রাষ্ট্রবিজ্ঞানীদের এক সমিতির উদ্দেশে ভাষণ দিচ্ছিলেন।

পুতিন বলেন, যদি পছন্দ নয় এমন শাসকগোষ্ঠীকে উৎখাত করতে সন্ত্রাসীদের কোন কোন অংশকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করা হয়, তা হলে সন্ত্রাসবাদ দমন করা অসম্ভব। রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ সিরীয় সংঘাত নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনার জন্য শুক্রবার ভিয়েনায় মার্কিন তুর্কি ও সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে মিলিত হওয়ার কথা। চার বছর ধরে চলমান ওই যুদ্ধে আড়াই লাখেরও বেশি লোক নিহত এবং লাখ লাখ মানুষ তাদের বাড়িঘর ছেড়ে চলে যেতে বাধ্য হয়েছে।

ওই উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকের আগে সিরীয় প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদ পুতিনের সঙ্গে আলোচনার জন্য মঙ্গলবার হঠাৎ মস্কো সফর করেন। সঙ্কটাপন্ন আসাদ ২০১১ সালের পর এ প্রথম কোন বিদেশ সফর করেন। রাশিয়া জোর দিয়ে বলেছে, সে যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়াতে ইসলামিক স্টেট ও অন্যান্য সন্ত্রাসী দলকে লক্ষ্য করে ৩০ সেপ্টেম্বর থেকে বিমান হামলা চালাচ্ছে এবং সিরীয় নেতৃত্বের অনুমোদনেই সেটি করা হচ্ছে। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্র ও এর মিত্ররা বলছে, মস্কো আসাদের বিরুদ্ধে লড়াইরত পশ্চিমা সমর্থিত মধ্যপন্থী বিদ্রোহীদের ওপরই বিমান হামলা চালাচ্ছে।

পুতিন বলেন, সন্ত্রাসীদের মধ্যপন্থী ও অমধ্যপন্থী হিসাবে পৃথক করতে বাকচাতুর্যের কোন প্রয়োজন নেই। তিনি বলেন, তাদের মধ্যে পার্থক্য কি? তিনি বোঝাতে চান যে, কোন কোন বিশেষজ্ঞের মতে তথাকথিত মধ্যপন্থী দস্যুরা শান্তভাবে বা ভদ্রতার সঙ্গে লোকজনের শিরñেদ করে থাকে।

ক্রেমলিন জানায়, আসাদের সঙ্গে আলোচনার সময় পুতিন যুদ্ধ বন্ধ করার চেষ্টায় সব দলকে নিয়ে এক রাজনৈতিক সমাধানের আহ্বান জানান।

আসাদ পুতিনকে বলেন যে, তিন সপ্তাহ ধরে রাশিয়ার বোমাবর্ষণ তার দেশে ‘সন্ত্রাসীদের বিস্তার’ রোধ করতে সহায়ক হয়েছে। সিরীয় নেতৃত্ব মস্কোর প্রশংসা করলেও হোয়াইট হাউস রুশ হস্তক্ষেপের নিন্দা করে একে ক্ষতিকর বলে অভিহিত করেছে।

রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বৃহস্পতিবার জানায় যে, রাশিয়া গত ২৪ ঘণ্টায় সিরিয়ায় ৭২টি সন্ত্রাসী লক্ষ্যস্থলে হামলা চালায়। এর ফলে সিরিয়ায় তৎপর প্রধান সন্ত্রাসী দলগুলোর যুদ্ধ সামর্থ্য বিনষ্ট হয়। উর্ধতন সামরিক কর্মকর্তা আন্দ্রে কার্তাপোলভ রুশ বার্তা সংস্থাগুলোকে জানান, রুশ বিমান হামলার পর সবচেয়ে বেশি প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত সন্ত্রাসী দলগুলো লড়াই করার সক্ষমতা হারিয়েছে। তাদের কমান্ড ও সরবরাহ পথ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে।

তিনি বলেন, রুশ হামলায় প্রতিবেশী ইরাক থেকে সন্ত্রাসী যোদ্ধাদের কাছে রসদ সরবরাহ পাঠানোর জন্য ব্যবহৃত শোয়াত নদের ওপরকার এক সেতু বিধ্বস্ত হয়। রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাসারভা উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় ইদলিন প্রদেশের এক ফিল্ড হাসপাতালের ওপর রুশ বিমান হামলায় মেডিক্যাল স্টাফসহ অন্তত ১২ ব্যক্তি নিহত হওয়ার খবরের সত্যতা অস্বীকার করেন।

এর আগে সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস ওই খবর প্রচার করে। ব্রিটেনভিত্তিক ওই পর্যবেক্ষণ গ্রুপটি রুশ হামলায় এ পর্যন্ত ৩৭০ ব্যক্তি নিহত হয় বলে জানায়। এর এক তৃতীয়াংশই বেসরকারী লোক। মানবিক সংখ্যাগুলো বোমা হামলার নিন্দা করেছে। আন্তর্জাতিক রেডক্রস কমিটি বলেছে, সিরিয়ায় বিমান হামলা বেসামরিক লোকজনের জন্য অপরিহার্য ত্রাণসামগ্রী সরবরাহ বাধাগ্রস্ত করছে।