২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ইসরাইলী আরব- ইহুদি সন্দেহ অবিশ্বাস বাড়ছে

  • ফিলিস্তিনে সহিংসতা

জেরুজালেমে এক রেস্তরাঁয় ইহুদি ও আরব ইসরাইলীদের জন্য ছাড় মূল্যে হাম্বুস ও এ ধরনের অন্যান্য খাবারের ব্যবস্থা থাকায় আশার সঞ্চার হলেও বাস্তবে এখানে গত এক সপ্তাহ ধরে ভীতি ও ক্রোধ ছড়িয়ে পড়ছে ইসরাইলী-ফিলিস্তিনীদের মধ্যে চলমান সহিংসতার কারণে।

জেরুজালেম ও অন্যান্য শহরে সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ায় ইহুদি ও ইসরাইলী আরবদের মধ্যে পরস্পরের বিরুদ্ধে সৃষ্টি হয়েছে সন্দেহ ও অবিশ্বাসের। এ সন্দেহ-সংশয় ইহুদি ও ইসরাইলী আরবদের মধ্যে পারস্পরিক প্রাথমিক জীবনযাত্রায় হুমকি হয়ে দেখা দিয়েছে। ইসরাইলী কর্তৃপক্ষ দীর্ঘদিন যাবত এক সঙ্গে বসবাসকারী ইসরাইলী আরব ও ইহুদিদের সঙ্গে তাদের বহুজাতিক সমাজ কাঠামোর ওপর গুরুত্ব দেয়ার চেষ্টা করেছে। কয়েকটি শহরে তুলনামূলকভাবে বেশ সমন্বয়ও গড়ে ওঠেছে। মোটের ওপর এ দু’সম্প্রদায় বসবাস করছে সমান্তরালভাবেই। ইসরাইলের জনসংখ্যার মধ্যে প্রায় ১৭ দশমিক ৫ শতাংশ হচ্ছে আরব ইসরাইলী। এ আরব ইসরাইলীরা হচ্ছে ফিলিস্তিনীদের বংশধর। ১৯৪৮ সালে ইসরাইল রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা হওয়ার পর তারা এখানে থেকে যায়। এদের অধিকাংশ অধিকৃত অঞ্চলে বসবাসকারী ফিলিস্তিনীদের সমর্থক। নিরাপত্তা বাহিনী ও ফিলিস্তিনী বিক্ষোভকারীদের মধ্যে চলমান সহিংসতায় পারস্পরিক অবিশ্বাস আরও বেড়ে গেছে। ইহুদিদের বিরুদ্ধে চলছে আগ্নেয়াস্ত্র, ছুরি হামলা এবং ঘটছে গাড়ি দিয়ে আঘাতের ঘটনা। জেরুজালেম ও অন্যান্য শহরের রাস্তায় ইসরাইলীরা এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাতের আশঙ্কায় ভীত এবং ফিলিস্তিনী ও ইসরাইলী আরব ভীতি রয়েছে। জনতার সহিংস আক্রমণ বা পুলিশের গুলির শিকার হওয়ার আশঙ্কায়। কোন কোন ইসরাইলী রাজনীতিবিদ আগ্নেয়াস্ত্র বহনের জন্য বেসামরিক নাগরিক উৎসাহিত করা শুরু করেছেন। অফিসগুলোতে মোতায়েন করা হয়েছে সশস্ত্র গার্ড। এ উত্তেজনাকর পরিস্থিতির জন্য ঘটছে ভুলবশত মর্মান্তিক ঘটনা। এর চরম উদাহরণ হচ্ছে, এক ইরিত্রীয় নাগরিক রবিবার গুলিতে আহত হওয়ার পর আক্রান্ত হয় জনতার রুদ্ররোষে এবং মারা যায়। কয়েক দিন আগে গুলিতে ১ সৈন্য নিহত ও প্রায় ১০ জন আহত হওয়ার ঘটনার সঙ্গে ঐ ইরিত্রীয় জড়িত রয়েছে বলে তার ওপর গুলি চালানো হয়।

কিন্তু পুলিশের এ ধারণা ছিল ভুল। জেরুজালেমের সংযুক্ত পূর্বাঞ্চলের বাসিন্দা এক ফিলিস্তিনী ছাত্র হোসাম শহরের পশ্চিমাঞ্চলে এক রেস্তরাঁয় কাজ শেষে ফিরছিল। সে একটি ট্যাক্সি নেয় তাড়াতাড়ি বাড়ি ফেরার জন্য। কারণ তার মা দুশ্চিন্তায় ছিলেন তার জন্য। কিন্তু তাকে রাস্তায় তল্লাশি করা হয় কয়েকবার। সে বলে, আমি পকেটে হাত ঢুকিয়ে হাঁটলে ইসরাইলীরা মনে করে আমার পকেটে আগ্নেয়াস্ত্র রয়েছে। Ñএএফপি

নির্বাচিত সংবাদ