২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আব্বাস উদ্দিন স্মরণে নাশিদ কামাল-রাজা

আব্বাস উদ্দিন স্মরণে নাশিদ কামাল-রাজা

সংস্কৃতি ডেস্ক ॥ বাংলাদেশের লোক সঙ্গীতকে বিশ্বব্যাপী পরিচিত করাতে যে কয়জন শিল্পী আজীবন সঙ্গীত সাধনা করেছেন তার মধ্যে আব্বাসউদ্দীন অন্যতম। বাংলা গানের শেকড় সন্ধ্যানী এই জাত শিল্পী আমৃত্যু লোকজ ধারার গান চর্চা এবং পরিবেশন করে এর প্রসারে কাজ করেছেন। বিশেষ করে উত্তরবঙ্গের লোকগান তার কন্ঠে ছড়িয়েছে সুরের মাধুর্য। মূলত তার গায়কীর কারণেই বিশ্বব্যাপী পরিচিত পেয়েছে বাংলাগানের অন্যতম এই ধারাটি। বাংলাদেশের পল্লী গান তথা ভাওয়াইয়া সম্রাট আব্বাসউদ্দীনের জন্মদিন আগামী ২৭ অক্টোবর। কিংবদন্তী এই শিল্পীর জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে তাঁকে স্মরণ করবে স্যাটেলাইট চ্যানেল এসএটিভি। এ উপলক্ষ্যে আজ শনিবার রাত ১১ টায় এসএটিভিতে ‘গহীনের গান’ শিরোনামের অনুষ্ঠানে আব্বাসউদ্দীনের গাওয়া ভাওয়াইয়া গান গাইবেন সফিউল আলম রাজা। অনুষ্ঠানে ভাওয়াইয়া পরিবেশনা ছাড়াও ভাটিয়ালী, পল্লীগীতি, মুর্শিদী গান করবেন আব্বাসউদ্দীনের নাতনী জনপ্রিয় শিল্পী ড. নাশিদ কামাল। আজ রাত ১১ টায় শুরু হয়ে বিশেষ এই অনুষ্ঠান চলবে রাত ১টা পর্যন্ত। এসএটিভির ‘গহীনের গান’ অনুষ্ঠানে দর্শক তাঁর পছন্দের গান প্রিয় শিল্পীর কাছ থেকে শুনতে পারবেন পাশাপাশি শিল্পীর সঙ্গে ভিডিও কল করেও কথা বলতে পারবেন। ভিডিও কলের জন্য দর্শকদের তাঁর স্কাইপি একাউন্ট থেকে মিউজিকএসএটিভিতে সরাসরি কল করতে হবে। এছাড়া প্রিয় শিল্পীর সঙ্গে কথা বলার জন্য ফোন করতে হবে অনুষ্ঠানচলাকালীন টিভির স্কলে দেখানো নাম্বারে। আজকের অনুষ্ঠান প্রসঙ্গে শিল্পী সফিউল আলম রাজা বলেন, বিশেষ এই অনুষ্ঠানে শুধুমাত্র আব্বাসউদ্দীনের গাওয়া গান থেকেই আমাদের পরিবেশনা থাকবে। তবে ত্রিশ ও চল্লিশের দশকে আব্বাসউদ্দীনের কন্ঠে যে ভাওয়াইয়া গানগুলো শুনে আমাদের বাবা-মা, আত্মীয়-স্বজন তথা দেশবাসী আপ্লুত হতেন, সেই গানগুলো থেকেই বেশ ক’টি গান আমি পরিবেশন করবো। আব্বাসউদ্দীন পরিবার সম্পর্কে শিল্পী রাজা বলেন, এই পরিবারের কাছে আমরা লোকসঙ্গীত শিল্পীরা অনেক বেশি ঋণি। এক আব্বাসউদ্দীন বাংলাদেশের লোকসঙ্গীতকে অনেক বেশি সমৃদ্ধ করে গেছেন। লোকসঙ্গীতের অন্যতম ধারা ভাওয়াইয়াকে প্রথম সূধী সমাজের সামনে নিয়ে আসেন আব্বাসউদ্দীন। আমি সত্যিই সৌভাগ্যবান যে, আব্বাসউদ্দীন পরিবারের অনেকের সঙ্গেই আমার অনেকবার গান করার সুযোগ হয়েছে। এর মধ্যে ফেরদৌসী রহমান, মোস্তাফা জামান আব্বাসী এবং নাশিদ কামালের সাথে একাধিকবার বিভিন্ন চ্যানেলে লাইভ অনুষ্ঠানে গান করেছি। প্রসঙ্গত, শিল্পী সফিউল আলম রাজা দেশের তরুণ প্রজন্মকে শেকড়মুখী করতে এবং ভাওয়াইয়া’র প্রচার-প্রসারে রাজধানীতে ‘ভাওয়াইয়া’ গানের দল এবং ‘ভাওয়াইয়া স্কুল’ প্রতিষ্ঠার মধ্যদিয়ে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করে যাচ্ছেন।