১১ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আফগান মালালা...

আফগান মালালা...

পাকিস্তানের মালালা ইউসুফজাইয়ের নাম এখন বিশ্বজোড়া। নারী শিক্ষার পক্ষে ব্লগে লেখা। এ জন্য তালেবানের হামলার শিকার হওয়া। এরপর নোবেলজয়সহ বিশ্ব আইকনে পরিণত হওয়া। ঠিক পাকিস্তানের এই মালালার মতোই যুদ্ধে ক্ষতবিক্ষত আফগানিস্তানে আরেক মালালার সন্ধান পাওয়া গেছে। ১৪ বছর বয়সী এই মেয়েটির নাম আজিজা রহিমজাদা। এ পর্যন্ত এই আফগান মালালার প্রচেষ্টায় ২৫ হাজার শরণার্থী শিশু স্কুলে ভর্তি হয়েছে। শতাধিক শরণার্থী পরিবারের জন্য সুপেয় পানির ব্যবস্থা করেছে আজিজা। ইতোমধ্যে কাজের স্বীকৃতি হিসেবে আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছে মেয়েটি। বর্তমানে একটি আন্তর্জাতিক ত্রাণ সংস্থার হয়ে কাজ করছে কাজপাগল আজিজা।

আফগান যুদ্ধে অন্য হাজার হাজার পরিবারের সঙ্গে আজিজার পরিবারের জায়গা হয়েছে একটি শরণার্থী শিবিরে। শিবিরের ছোট্ট একটি স্যাঁতসেঁতে রুমে তার পরিবারের আট সদস্যের বাস। সেখানে বসেই গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলে আজিজা। সাদা ও কালো রংয়ের স্কার্ফ পরিহিত আজিজা বলে, শুধুমাত্র যুদ্ধই আমাদের জীবনকে এই অবস্থায় ফেলেছে। আমরা যুদ্ধের জন্য অনেক কষ্ট করছি। ঠিক এই ধরনের শিশুদের মনোবল ফেরাতে আমি কাজ করি। তাদের সামনে শিক্ষার মূল্য তুলে ধরি। মেয়েটি আরও বলে আমার পরিবারও অশিক্ষিত। আমি তাদেরও সহায়তা করছি। আর আমাদের এই রক্ষণশীল সমাজে অনেক সময় মেয়েদের শিক্ষার কথা বলায় অনেক সমস্যায় পড়তে হয়।

আজিজা যে ত্রাণ সংস্থার হয়ে কাজ করে সে সংস্থাটির প্রধান ডেভিড ম্যাশন বলেন, আজিজা সত্যিই অনন্য সাধারণ। মেয়েটি সহজেই মানুষকে বোঝাতে পারে। আফগানিস্তানের অপর মেয়েদের তুলনায় বেশি বুদ্ধিমতি এই মেয়েটি। আজিজাকে পেয়ে আমরা খুশি। ডন ও এএফপি অবলম্বনে