১১ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রাশিয়াকে আর ‘পরাশক্তি’ মানতে নারাজ আমেরিকা

অনলাইন ডেস্ক ॥ আড়াই দশক ধরে বিশ্বে ক্ষমতায় কেন্দ্রে ছিল আমেরিকা এবং সোভিয়েত ইউনিয়ন। কিন্তু আশির দশকে সোভিয়েতের পতনের পর থেকেই বাড়তে থাকে আমেরিকার একাধিপত্য। তবে এত দিন পর্যন্ত রাশিয়ার শক্তি নিয়ে মন্তব্য করেনি আমেরিকা। আর এ বার সরাসরি রাশিয়াকে সুপারপাওয়ার বা পরাশক্তি হিসাবে অস্বীকার করল হোয়াইট হাউজ। আমেরিকার দাবি, রাশিয়ার অর্থনীতির হালও বেশ খারাপ। সোভিয়েত ইউনিয়নের পতনের পর তাদের রাজনৈতিক ক্ষমতাও তলানিতে। ফলে রাশিয়া আর কোনও সুপারপাওয়ার নয়।

ইউক্রেনের উপর রাশিয়ার ‘আক্রমণ’ নিয়ে প্রথম থেকেই যখন সরব ছিল আমেরিকা। তার সঙ্গে যোগ হয়েছে সম্প্রতি সিরিয়ায় আসাদের সমর্থনে রাশিয়ার বিমানহানা। আমেরিকার অপছন্দের তালিকার একেবারে উপরের দিকে রয়েছেন আসাদ। সেই আসাদকে সমর্থন ভাল ভাবে নেয়নি আমেরিকা। হোয়াইট হাউজের প্রেস সেক্রেটারি জশ আর্নেস্ট বলেন, “আমরা বেশ কয়েক সপ্তাহ রাশিয়ার অর্থনীতির উপর নজর রাখছি। রাশিয়ার অর্থনীতির হাল বেশ খারাপ। নামতে নামতে এখন তা দাঁড়িয়েছে ১৫ নম্রে, স্পেনেরও নীচে। রাশিয়ার রাজনৈতিক সঙ্কট ক্রমশ স্পষ্ট হচ্ছে। সোভিয়েতের পতনের পর ওই অঞ্চলে রাশিয়ার রাজনৈতিক আধিপত্য কমেছে। সব দিক খতিয়ে দেখলে বোঝা যাচ্ছে, রাশিয়া আর সুপারপাওয়ার নেই।”

সিরিয়ায় রাশিয়ার হামলাকেও এ দিন কটাক্ষ করেছে আমেরিকা। হোয়াইট হাউজের দাবি, ওই অঞ্চলে বন্ধু খুঁজে পাচ্ছে না রাশিয়া। আসাদ এবং ইরান বাদে সবাই রাশিয়ার শত্রু বলে দাবি ওবামা প্রশাসনের।