১১ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

অনুশীলনে যোগ দিলেন সাকিব

অনুশীলনে যোগ দিলেন সাকিব
  • মিরপুর শেরেবাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামের ইনডোরে টানা দুই ঘণ্টার মতো নেটে ব্যাটিং অনুশীলন করেছেন

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে সিরিজে অংশ নিতে সন্তান সম্ভবা স্ত্রীকে ছেড়ে শনিবার যুক্তরাষ্ট্র থেকে দেশে ফিরেছেন বাংলাদেশ অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। ফিরেই রবিবার অনুশীলন শুরু করেছেন। মিরপুর শেরেবাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামের ইনডোরে টানা দুই ঘণ্টার মতো নেটে ব্যাটিং অনুশীলন করেছেন।

জাতীয় দলের অনুশীলন ২৯ অক্টোবর শুরু হলেও এতদিন যুক্তরাষ্ট্রে ছুটিতে থাকায় সাকিব অনুশীলনে যোগ দেননি। রবিবার দলের অনুশীলন ছিল না। তবুও যুক্তরাষ্ট্র থেকে ফিরেই অনুশীলনে নেমে গেছেন এ বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। শুধু সাকিব নন, স্বেচ্ছায় অনুশীলন করেছেন জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে সিরিজে খেলতে দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে ফেরত আসা সাব্বির রহমান রুম্মনও। জাতীয় দলে সুযোগ পাওয়া আল আমিন হোসেন ও নবাগত কামরুল ইসলাম রাব্বিও মিরপুর স্টেডিয়ামে আসেন।

জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে সিরিজের উদ্দেশে গত বৃহস্পতিবার থেকেই অনুশীলনে নেমে গেছে বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। প্রধান কোচ চন্দ্রিকা হাতুরাসিংহের তত্ত্বাবধানে অনুশীলন করছেন মাশরাফি, মুশফিক, তামিমরা। এ সিরিজের অনুশীলনে যোগ দেয়ার জন্য ১৮ সদস্যের প্রাথমিক দল ঘোষণাও করেছিল বিসিবি। সেই দলের ১১ জন এতদিন অনুশীলন করে যান। সাত ক্রিকেটার অনুশীলনে যোগ দেননি। এতদিন অনুশীলনে উপস্থিত ছিলেন না সাকিব। দক্ষিণ আফ্রিকায় বাংলাদেশ ‘এ’ দলের হয়ে খেলতে যাওয়া সাব্বির রহমান রুম্মন, সৌম্য সরকার, লিটন কুমার দাস, আল আমিন হোসেন, কামরুল ইসলাম রাব্বি ও জুবায়ের হোসেনও উপস্থিত থাকতে পারেননি অনুশীলনে। আজ থেকেই সবাই অনুশীলনে যোগ দেবেন। অবশ্য চূড়ান্ত দল ঘোষণা করায় এখন সংখ্যা ৪ জন কমে গেছে। তিন ওয়ানডে ও দুই ম্যাচের টি২০ সিরিজ খেলতে আজ বাংলাদেশের মাটিতে পা রাখবে জিম্বাবুইয়ে ক্রিকেট দল। ৭, ৯ ও ১১ নবেম্বর যথাক্রমে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় ওয়ানডে এবং ১৩ ও ১৫ নবেম্বর যথাক্রমে প্রথম ও দ্বিতীয় টি২০ ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে।

এ সিরিজে সাকিব না খেললেও বিসিবি কিছুই বলত না। এরপরও যতদূর জানা গেছে, সাকিবই সিরিজ খেলতে চেয়েছেন। সন্তান সম্ভবা স্ত্রীকে সঙ্গ দিতে এতদিন যুক্তরাষ্ট্রে ছিলেন সাকিব। বিসিবি থেকে নেয়া ছুটি শেষ করে এখন দেশে অবস্থান করছেন। এ সময়টাতে অবশ্য সাকিব যুক্তরাষ্ট্রেই থাকতেন। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজ শেষ হতেই স্ত্রীর পাশে থাকতে যুক্তরাষ্ট্রে জেতেন। একেবারে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ (বিপিএল-টি২০) শুরুর আগে আসতেন। কিন্তু অস্ট্রেলিয়া সিরিজ স্থগিত হয়ে যায়। নিরাপত্তাজনিত কারণ দেখিয়ে অস্ট্রেলিয়া দল বাংলাদেশে খেলতে আসেনি। আর তাই স্ত্রীকে সময় দিতে বিসিবি থেকে ছুটি নিয়ে দ্রুতই যুক্তরাষ্ট্রে চলে যান সাকিব। ২১ নবেম্বর অনাগত সন্তানের মুখ দেখার মিলবে। কিন্তু কন্যার মুখ না দেখেই দেশে ফিরে এসেছেন সাকিব। জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে সিরিজের জন্য অনুশীলন ক্যাম্পেও যোগ দিয়েছেন।