১৩ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কদমতলীর ফ্ল্যাটে শিশু খুন, মা ও বোনসহ আহত তিন

  • ডোবা থেকে বিদেশ ফেরত যুবকের লাশ উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীর কদমতলীতে ফ্ল্যাটে হামলায় এক শিশু নিহত এবং তার মা ও বোনসহ তিনজন আহত হয়েছে। বিমানবন্দর কাউলা রেলগেটসংলগ্ন কচুরিপানাভর্তি ডোবায় বিদেশ ফেরত এক যুবকের পা বাঁধা পচাগলা লাশ উদ্ধার ও মিরপুরে পাইকপাড়ার এক শিশু গৃহকর্মীর লাশ উদ্ধার হয়েছে। যাত্রাবাড়ীতে অজ্ঞানপার্টির খপ্পরে পড়ে এক ব্যবসায়ী সর্বস্ব খুইয়েছেন। মঙ্গলবার পুলিশ ও মেডিক্যাল সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

রাজধানীর কদমতলীর পাটেরবাগ এলাকায় বহুতল ভবনের একটি ফ্ল্যাটে হামলায় এক শিশু নিহত হয়েছে। এলোপাতাড়ি কোপে জখম হয়েছে শিশুটির মা, বোন ও এক প্রতিবেশী। কারা এবং কী উদ্দেশে এ ঘটনা ঘটিয়েছে তা পুলিশের কাছে স্পষ্ট নয়; বাসা থেকে কিছু খোয়া গেছে কিনা তাও তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি। মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে এলাকার আল মদিনা মসজিদের কাছে ওই ভবনের দ্বিতীয় তলায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। নিহতের নাম সোহেলী

আক্তার (১২), সে একে স্কুলে ষষ্ঠ শ্রেণীতে পড়ত। সোহেলীর মা সাহিদা মৃধা ডলি (৩৫), বোন সারা (৭) ও প্রতিবেশী জালাল আহমেদকে (৩৫) ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। কদমতলী থানার ওসি কাজী ওয়াজেদ আলী বলেন, ঘটনাস্থলে এক শিশু নিহত হয়েছে। আহত বাকি তিন জনকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বিমানবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামাল উদ্দিন জানান, সোমবার গভীররাতে বিমানবন্দর কাউলা রেলগেটসংলগ্ন একটি ডোবা থেকে রানা সরকার (২৬) নামে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়। পরে তার লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ওসি জানান, গত ২৯ অক্টোবর রাতে সিঙ্গাপুর থেকে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নামার পর রানা সরকার নিখোঁজ হন। তিন দিন পর সোমবার রাতে বিমানবন্দর থানা পুলিশ তার পা বাঁধা পচাগলা লাশ উদ্ধার করে। তিনি জানান, মৃতদেহের হাত-পায়ের রগ কাটা ও বাঁধা অবস্থায় ছিল। মঙ্গলবার সকালে ঢামেক হাসপাতাল মর্গে ময়নাতদন্ত শেষে তার মরদেহ পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করেছে পুলিশ। স্বজনরা মৃতদেহ নিয়ে গ্রামের বাড়ি বগুড়া জেলার নন্দিগ্রাম থানার ডইল গ্রামে রওনা হয়েছেন। ওসি কামাল উদ্দিন আরও বলেন, এ ঘটনায় নিহতের ভগ্নিপতি মশিউর রহমান বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন। যার নম্বর ৪। ধারণা করা হচ্ছে, তিন দিন আগে তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে লাশটি গুম করার উদ্দেশ্যে ওই স্থানে ফেলে রাখা হয়। এদিকে নিহতের বাবা আব্দুল হামিদ জানান, গত ২৯ অক্টোবর রাত সাড়ে ৮টার দিকে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নামেন ছেলে রানা সরকার। পরে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা বলেন ছেলে রানা। এরপর থেকেই তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। পরিবারের লোকজন অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তার সন্ধান পাননি। তিনি আরও জানান, তিন দিন পর সোমবার দুপুরে বিমানবন্দর থানা পুলিশ একটি মৃতদেহ উদ্ধারের খবর দেন তাদের। খবর পেয়ে তারা এসে রানার মৃতদেহ শনাক্ত করেন। এদিকে সোমবার গভীররাতে পুলিশ রাজধানীর মিরপুরে পাইকপাড়ার একটি বাড়ি থেকে আকলিমা (১২) নামে এক শিশু গৃহকর্মীর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়। হাসপাতাল সূত্র জানান, ওই গৃহকর্মীর শরীরে নির্যাতনের একাধিক চিহ্ন ছিল। রাতেই পুলিশ বিনা ময়নাতদন্তে তার মৃতদেহ গৃহকর্তার হাতে তুলে দেয়া হয়। নিহতের গৃহকর্তা রফিকুল ইসলাম জানান, সোমবার রাতে ওই গৃহকর্মীর থাকার ঘরে তিনি লাশটি ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান। তার ভাষ্য, রাতে খাওয়া-দাওয়ার পরে সবাই যে যার ঘরে চলে যায়। পরে তারা আকলিমাকে তার ঘরে ফ্যানের সঙ্গে ওড়না দিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান। পরে তিনি ওই গৃহকর্মীর নিথর দেহটি উদ্ধার করে রাত সাড়ে ১২টার দিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসেন। লাশটি ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের জরুরী বিভাগের মর্গে রাখা হয়েছে। ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক মোজাম্মেল হক ঘটনার স্বীকার করে জানান, বিনা ময়নাতদন্ত ছাড়াই তার লাশ পরিবারের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে।

অজ্ঞানপার্টির খপ্পরে ব্যবসায়ী ॥ রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থানার রায়েরবাগ এলাকায় অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়ে হানিফ (৪০) নামের এক ব্যবসায়ী ৪৫ হাজার টাকা খুইয়েছেন। পরে তাকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধারের পর ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।