২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সব কারাগারের নিরাপত্তা জোরদার

স্টাফ রিপোর্টার ॥ সারাদেশের ৬৮ কারাগারের সার্বিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদারের নির্দেশ দিয়েছে কারা অধিদফতর। কারা কর্তৃপক্ষের এ নির্দেশ সংশ্লিষ্ট কারাগারকে পরিপূর্ণভাবে পালনের জন্য বলা হয়েছে। নির্দেশে নিরাপত্তা ব্যবস্থা সম্পূর্ণ ত্রুটিমুক্ত রাখতে প্রয়োজনীয় সকল ব্যবস্থা গ্রহণের কথাও বলা হয়। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, কারা কর্তৃপক্ষ নিয়মিত কার্যক্রমের অংশ হিসেবে এ নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে। নির্দেশের পর পরই সারাদেশের সব কারাগারের নিরাপত্তা ব্যবস্থা ঢেলে সাজানো হয়েছে।

সরেজমিন ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, কারাগারের প্রধান ফটক দিয়ে ভিআইপি বন্দীদের সঙ্গে সাক্ষাত ছাড়া সব প্রকার বন্দীর সাক্ষাত বন্ধ রয়েছে। তবে সাধারণ বন্দীর সঙ্গে স্বজনদের সাক্ষাত চালু রয়েছে। কারা এলাকায় ৬৪টি সিসি টিভি ক্যামেরার মাধ্যমে কারাভ্যন্তরে ও কারাগারের অফিসে যাতায়াতকারীদের ওপর নজরদারি করা হচ্ছে। আশপাশের প্রতিটি রাস্তার ওপর নিরাপত্তা বৃদ্ধির পাশাপাশি আশপাশে কাউকে অযথা ঘোরাঘুরি করতে দেখলে বা সন্দেহ হলেই প্রয়োজনে গতিরোধ করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

কারাসূত্র জানায়, ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের ভেতরে ও বাইরে জঙ্গীসহ শীর্ষ সন্ত্রাসী, বিভিন্ন সময়ের আলোচিত হত্যা মামলার আসামির পাশাপাশি সব বন্দীর ওপর কারা গোয়েন্দারা নজরদারি বাড়িয়েছে। গত এক নবেম্বর থেকে কারাগারের ভেতরে ও আশপাশে পাহারার জন্য স্বাভাবিকের চেয়ে কারারক্ষীর সংখ্যা বৃদ্ধি করা হয়েছে। এছাড়া কারাগারের নিজস্ব গোয়েন্দা বাহিনী, ভেতরের সিআইডি, কারা সম্পর্কিত যে কোন অনাকাক্সিক্ষত পরিস্থিতি এড়াতে গঠিত কারা দাঙ্গা বাহিনীকে প্রস্তুত রাখা হয়েছে। কারাগারের নিজস্ব ওয়াচ টাওয়ার থেকে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। সশস্ত্র কারারক্ষীর সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। এসএমজি, চাইনিজ রাইফেল নিয়ে তারা কারাগারের আশপাশে টহল দিতে দেখা যায়। এছাড়া সকল কারারক্ষীকে সার্বিক অবস্থা নজরদারি করতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। কারা বিভাগের নিজস্ব বাহিনীর পাশাপাশি র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ান (র‌্যাব) তাদের নজরদারি বৃদ্ধি করেছে। কারাফটকে র‌্যাব সদস্যরা সোমবার সকাল থেকে পাহারা দিতে দেখা গেছে। এর বাইরে র‌্যাবের দুটি পেট্রোল টিম কারাগারের আশপাশে টহল দিতে দেখা গেছে। পুলিশসহ সাদা পোশাকে বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যদেরও তৎপর দেখা গেছে। অপর একটি সূত্র জানায়, এ নিরাপত্তা ব্যবস্থা আগামী কয়েকদিন পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে।

ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার মোঃ জাহাঙ্গীর কবির জনকণ্ঠকে বলেন, কারা অধিদফতরের নির্দেশেই কারাগারের নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। যে কোন প্রকার অনাকাক্সিক্ষত ঘটনা এড়াতে কারা কর্তৃপক্ষ দিনরাত ২৪ ঘণ্টাই প্রস্তুত রয়েছে। কারাগার এলাকায় আমাদের নিজস্ব গোয়েন্দার পাশাপাশি সরকারী অন্যান্য বাহিনী যেমন র‌্যাব পুলিশও নিয়মিত পাহারা দিচ্ছেন। এছাড়া সকল গোয়েন্দা সংস্থা নিরাপত্তা রক্ষায় কাজ করছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে অতিরিক্ত কারা মহাপরিদর্শক কর্নেল ফজলুল কবির বলেন, সারাদেশের সব কারাগারের নিরাপত্তা ব্যবস্থা ত্রুটিমুক্ত রাখতে এ নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে। মূলত রুটিন কাজের অংশ হিসেবে এ নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। তাছাড়া কারা কর্তৃপক্ষ বন্দীর সর্বোচ্চ নিরাপত্তার স্বার্থে সর্বদাই সতর্ক অবস্থান বজায় রাখেন।