১২ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

হালিমের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে মমতা-বুদ্ধ মুকুল এক মঞ্চে

বিধানসভায় স্পীকার হালিমের বিরুদ্ধেই অনাস্থা প্রস্তাব এনেছে বিরোধীরা। তুলকালাম বিতর্কে তার মু-ুপাত হয়েছে বিস্তর। স্পীকারের চেয়ারের দায়িত্ব হিসেবে তিনিই সে সব সামলেছেন। যখন তার জবাবের পালা এল, বিরোধীদের উদ্দেশে বার্তা দিলেন আমার সমালোচনা করছেন, করুন। কিন্তু সংসদীয় গণতন্ত্র যাতে ভঙ্গুর না হয়ে পড়ে, দেখার দায়িত্ব আপনাদেরই। খবর আনন্দবাজার পত্রিকা।

সোমবার সকালে পশ্চিমবঙ্গ তথা গোটা দেশের যে কোন রাজ্যের বিধানসভার ইতিহাসে দীর্ঘতম সময় স্পীকারের ভূমিকা পালন করে আসা হাসিম আব্দুল হালিমের অকস্মাত প্রয়াণে দলীয় ভেদাভেদ ভুলে একই রকম মূহ্যমান হয়ে পড়লেন সব শিবিরের রাজনৈতিক নেতারা। কঠোর হাতে বিধানসভার অধিবেশন সামলানোর পাশাপাশি বিরোধী শিবিরের নেতাদের সঙ্গে মসৃণ ব্যক্তিগত সৌজন্য বজায় রাখার যে নৈপুণ্য হালিম দেখাতে পেরেছিলেন, ঠিক এই সময়ের রাজ্য রাজনীতিতে তা সম্ভবত বিরল। সেই স্মৃতি মাথায় রেখেই এদিন মমতা ব্যানার্জি থেকে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য, মুকুল রায় থেকে পার্থ চট্টোপাধ্যায়, বিমান বসু থেকে মানস ভুঁইয়া প্রিয়জন হারানোর বেদনা অনুভব করার কথা বলেছেন।

রকেট কারখানার ছবি প্রকাশ করল বোকো হারাম

নাইজিরিয়ার ইসলামী জঙ্গী গ্রুপ বোকো হারাম রকেট তৈরির একটি কারখানার ছবি প্রকাশ করেছে। বোকো হারামের প্রকাশিত ছবিগুলো থেকে স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে যে, নাইজিরিয়ার উত্তর-পূর্বাঞ্চলে রকেট তৈরির একটি কারখানা রয়েছে। খবর বিবিসির।

অতীতে বোকো হারাম রকেটচালিত গ্রেনেড ব্যবহার করেছে। অনেক নাইজিরীয়র জিজ্ঞাসা, কোথা থেকে আসে এসব অস্ত্রশস্ত্র। ছবিগুলো দেখে বোঝা যায়, অস্ত্র তৈরির কারিগরি বিষয়টি সম্পর্কে জানে বোকো হারামের সদস্যরা।

ছবিটি বোর্নো রাজ্যে একটি কলেজ থেকে তোলা হয়েছে বলে ধারণা করা হয়। ক্যামেরুনের একটি টেলিফোন নম্বর ব্যবহার করে বিবিসি হাউসা সার্ভিসের কাছে হোয়াটস এ্যাপ বার্তার মাধ্যমে ছবিগুলো পাঠিয়েছে বোকো হারাম। বিশেষজ্ঞরা বলেন, মেশিনগুলো দেখে মনে হচ্ছে এগুলো নাইজিরিয়ার উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় বামা শহরের। সম্প্রতি বোকো হারামের কাছ থেকে এটি পুনর্দখল করা হয়েছে।