১৮ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

প্রস্তুতি ম্যাচেও অধিনায়ক মাশরাফি

  • পুরোদমে বোলিং শুরু করেছেন ‘নড়াইল এক্সপ্রেস’ ;###;জিম্বাবুইয়ের বিরুদ্ধে বিসিবি একাদশে খেলবেন জাতীয় দলের মুশফিক লিটন সাব্বির লিখন

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ জিম্বাবুইয়ে ক্রিকেট দল মঙ্গলবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত অনুশীলন করে। বাংলাদেশ দল আগের মতোই দুপুরে অনুশীলন করে। এদিন সুসংবাদ পাওয়ার মতো একটি ঘটনাও ঘটে। বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের নির্ধারিত ওভারের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা পুরোদমে রানআপ নিয়ে বল করেন। এমনকি বৃহস্পতিবার যে জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে ফতুল্লায় একদিনের একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে বিসিবি একাদশ, সেই দলের হয়ে খেলবেনও মাশরাফি। নেতৃত্বও দেবেন তিনিই। শুধু মাশরাফিই নন, প্রস্তুতি ম্যাচে জাতীয় দলের মুশফিকুর রহীম, লিটন কুমার দাস, সাব্বির রহমান রুম্মন ও জুবায়ের হোসেন লিখনও খেলবেন। বিসিবি একাদশ দলও ঘোষণা করা হয়েছে।

সফরকারী জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচকে সামনে রেখে ১৩ সদস্যের বিসিবি একাদশ ঘোষণা করেছে বিসিবি। মঙ্গলবার বিকেলে এ স্কোয়াড ঘোষণা করা হয়। প্রস্তুতি ম্যাচটি শেষে ৭, ৯ ও ১১ নবেম্বর যথাক্রমে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় ওয়ানডে অনুষ্ঠিত হবে। এরপর ১৩ ও ১৫ নবেম্বর যথাক্রমে প্রথম ও দ্বিতীয় টি২০ ম্যাচ হবে। সব ম্যাচ মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে। এ সিরিজে বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি খেলতে পারবেন কিনা তার নিশ্চয়তা মিলবে প্রস্তুতি ম্যাচে।

হঠাৎ করেই ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়েছিলেন মাশরাফি। এরপর ঠিক হলেও শরীর দুর্বলই ছিল। তা থেকে এখন অনেক সুস্থ মাশরাফি। তাই তো পুরোদমে বোলিং করতে পেরেছেন। তবে ম্যাচ খেলার জন্য পুরোপুরি ফিট কি না তা বুঝতে হলে ম্যাচ খেলা জরুরী। এ মুহূর্তে প্রস্তুতি ম্যাচ ছাড়া আর কোন ম্যাচই নেই। প্রস্তুতি ম্যাচেই তাই খেলবেন মাশরাফি। মাশরাফি আশা ছিল, জাতীয় ক্রিকেট লীগের (এনসিএল) এবারের আসরের একটি ম্যাচে খেলবেন। কিন্তু সেই আশা তার পূরণ হয়নি। এনসিএলের তৃতীয় রাউন্ডের ম্যাচে খেলার কথা ছিল মাশরাফির। দীর্ঘ পরিসরের ক্রিকেটে খেলে আবার টেস্টে ফেরার স্বপ্ন দেখছিলেন বাংলাদেশ ওয়ানডে অধিনায়ক। কিন্তু হঠাৎ করেই ডেঙ্গু জ্বরের কারণে জাতীয় লীগে খেলতে পারেননি এই পেসার। ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে এ্যাপোলো হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়েছে মাশরাফিকে। রংপুরের বিপক্ষে খুলনার হয়ে ১০ অক্টোবর শুরু হতে যাওয়া ম্যাচ খেলার জন্য ৯ অক্টোবর খুলনায় যাওয়ার কথা ছিল মাশরাফির। কিন্তু ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে আগের রাতে তাকে যেতে হয়েছিল হাসপাতালে। রাত আড়াইটার দিকে মাশরাফিকে এ্যাপোলো হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তখন তার গায়ে প্রচ- জ্বর ছিল। এক সপ্তাহ পর সুস্থ হয়ে ১৬ অক্টোবর হাসপাতাল ছেড়ে বাসাতেও চলে যান মাশরাফি। এমনকি মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামেও চলে আসেন। অনেকটাই সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরে মন টিকছিল না। আর তাই সন্ধ্যার পর চলে আসেন মিরপুর স্টেডিয়ামে। এসেই বলেছিলেন, ‘সকালেই আমি হাসপাতাল থেকে বাসায় এসেছি। পুরোপুরি সুস্থ হতে আরও খানিকটা সময় লাগবে।’ এখন পুরোপুরি সুস্থ মাশরাফি। এমনকি জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে সিরিজের জন্য অনুশীলনও করছেন। মঙ্গলবার তো পুরো রানআপে বোলিংও করেছেন। নিজেকে ঝালিয়ে নিতে প্রস্তুতি ম্যাচেও খেলবেন।

বিসিবি একাদশ ॥ ইমরুল কায়েস, এনামুল হক বিজয়, লিটন কুমার দাস, শাহরিয়ার নাফীস, মুশফিকুর রহীম, সাব্বির রহমান রুম্মন, মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক), মেহেদী মারুফ, জুবায়ের হোসেন লিখন, সানজামুল ইসলাম, দেলোয়ার হোসেন, শফিউল ইসলাম ও তৌহিদুল ইসলাম রাসেল।