১৯ আগস্ট ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মন্ত্রীরা জাতীয় ঐক্য সৃষ্টিতে বাধা সৃষ্টি করছেন ॥ রিপন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুসহ সরকারের মন্ত্রীরা দেশে বিদ্যমান সঙ্কট নিরসনে জাতীয় ঐক্যে বাধা সৃষ্টি করছেন বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির মুখপাত্র ও আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন। বুধবার বিকেলে নয়াপল্টনে দলটির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন। দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়কে কারাগারে প্রেরণের নিন্দা জানিয়ে অবিলম্বে তাদের মুক্তি দাবি করেন রিপন।

রিপন বলেন, সারাদেশ এখন সঙ্কটের মধ্যে রয়েছে। আর এ থেকে উত্তরণে বিএনপির পক্ষ থেকে জাতীয় ঐক্যের ডাক দেয়া হয়েছে। কিন্তু সরকারের মন্ত্রীরা ঐক্য চান না বলেই বিভ্রান্তিমূলক বক্তব্য দিচ্ছেন। তিনি বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচন হলে হাসানুল হক ইনুর জামানত বাজেয়াপ্ত হবে। তাই প্রধানমন্ত্রীকে সন্তুষ্ট রেখে নিজের মন্ত্রিত্ব রক্ষা করতে তিনি খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের বিরুদ্ধে বিরূপ মন্তব্য করে যাচ্ছেন। আমরা তার এ ধরনের বক্তব্যের নিন্দা জানাচ্ছি।

রিপন বলেন, স্বাধীনতার পর শেখ মুজিবুর রহমানকে একদিনও শান্তিতে থাকতে দেয়নি ইনু সাহেবরা, যা আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতারা জানেন। তখন হত্যা, লুণ্ঠন ও গুদামে আগুন দেয়াসহ মৌলবাদী ও সন্ত্রাসী কর্মকা-ে লিপ্ত ছিলেন তারা। অথচ তারা এখন ক্ষমতাশালী।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সেলিমা রহমান, শিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক খায়রুল কবির খোকন, সহ-দফতর সম্পাদক আবদুল লতিফ জনি, আসাদুল করিম শাহীন, শামীমুর রহমান শামীম প্রমুখ।

এদিকে, বুধবার সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের স্ত্রী রাহাত আরা বেগম বলেছেন, বার বার ফখরুলকে জেলে যেতে হচ্ছে। আমাদের দুর্ভাগ্য যে, আমরা সঠিক বিচার পাচ্ছি না। আমরা কার কাছে বিচার চাইব? বলার কোন ভাষা নেই। তার মতো সহজ-সরল একজন অসুস্থ মানুষকে এভাবে হয়রানি করা হচ্ছে। সঠিক বিচার হলে তো তাকে এতবারও জেলে যেতে হতো না। আমরা আশা করি, মির্জা ফখরুলের শারীরিক ও মানবিক দিক বিবেচনা করে তাকে যেন মুক্তি দেয়া হয়। রাজনীতি করার অপরাধে যেন তাকে হয়রানি না করা হয়, সরকারের কাছে এ আহ্বান জানাচ্ছি।

এই মাত্রা পাওয়া