১৩ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

শেষ নাটকের অপেক্ষায় শারজা টেস্ট

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ তবে কী জমে উঠবে শারজা টেস্ট? ইঙ্গিতটা তেমনই। জয়ের জন্য ২৮৪ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে দ্বিতীয় ইনিংসে ৪৬ রান তুলতেই (২২ ওভারে) ২ উইকেট হারিয়েছে ইংল্যান্ড। আজ শেষ দিনে এ্যালিস্টার কুকদের চাই আরও ২৩৮, পাকিস্তানের চাই ৮ উইকেট। আমিরাতের স্পিনিং পিচ, ম্যাচের পঞ্চম দিনে দ্বিতীয় ইনিংসের ব্যাটিং- বাস্তবতা বলে ইংলিশদের জন্য এ রান তোলা কঠিন, তবে অসম্ভব নয়। আজ তাই জমে উঠতে পারে সিরিজ নির্ধারণী তৃতীয় ও শেষ ম্যাচটি। পাকিস্তানের ২৩৪ ও ৩৫৫ রানের জবাবে প্রথম ইনিংসে ৩০৬ রান করে অলআউট হয় ইংল্যান্ড। প্রথম টেস্ট ড্র হয়, দ্বিতীয় ম্যাচ জিতে ১-০তে এগিয়ে মিসবাহ-উল হকের পাকিস্তান। ৩ উইকেটে ১৪৬ রান নিয়ে বুধবার দ্বিতীয় ইনিংসের খেলা শুরু করে পাকিস্তান। এদিন বাকি ৭ উইকেট হারিয়ে ২০৯ রান যোগ করে দলটি। ৯৭ রান নিয়ে নামা ওপেনার মোহাম্মদ হাফিজ তুলে নিয়েছেন ক্যারিয়ারের নবম সেঞ্চুরি। মঈন আলির বলে ইয়ান বেলের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরার আগে ১৫১ রানের দুর্দান্ত ইনিংস উপহার দেন তিনি। ২৬৬ বলে হাফিজের ৩৭১ মিনিটের ইনিংসটি ছিল ১৫ চার ও ৩ ছক্কায় সাজানো। পাকিস্তানের গোটা ইনিংসে এটির মূল্য অপরিসীম। কারণ আর কেউই বড় রান করতে পারেননি। অধিনায়ক মিসবাহ-উল হকের সঙ্গে গড়ে ওঠে সেরা জুটি। পঞ্চম উইকেটে ৩০ ওভারে ৯৩ রান যোগ করেন দু-জন। যেখানে হাফিজের অবদান ৪৯।

ব্যক্তিগত ৩৮ রানে পেসার স্টুয়ার্ড ব্রডের বলে এলবিডব্লিউ হন মিসবাহ। এরপর অবশ্য সপ্তম উইকেটে আসাদ শফিক ও সরফরাজ আহমেদের মধ্যে ৫৫ রানের গুরুত্বপূর্ণ আরেকটি জুটি গড়ে ওঠে। যা পাকিস্তানকে সাড়ে তিন শ’র কোটা পেরোতে সাহায্য করে। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৪৬ রান করে ব্রডের বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন শফিক। সরফরাজের ব্যাট থেকে আসে ৩৬ রান। শেষদিকে ২৭ বলে ২১ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন ওয়াহাব রিয়াজ। এরপর দ্বিতীয় ইনিংসে ইংল্যান্ডের সূচনাটা মন্দ ছিল না। ৪৩ বলে ২২ রান করা মঈন আলিকে এলবিডব্লিউ করে ব্রেক থ্রু এনে দেন স্পিনার শোয়েব মালিক। কিছুক্ষণ পর ইয়ান বেলকেও শূন্য হাতে ফেরান জীবনের শেষ টেস্ট খেলা এই অলরাউন্ডার। পঞ্চমদিনের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে জিততে হলে ভাল করতে হবে ক্রিজে থাকা জুটি কুক (১৭) ও জো রুটকে (৬)। আজ সকালের সেশনটা ইংলিশদের জন্য তাই মহাগুরুত্বপূর্ণ।