১৬ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

জিম্বাবুইয়ের বিরুদ্ধে অনিশ্চিত সৌম্য সরকার

  • বিজয় অথবা ইমরুলের ভাগ্য খুলতে পারে

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ফিল্ডিং করতে গিয়ে মঙ্গলবার বাম পাঁজরে ব্যথা পেয়েছেন সৌম্য সরকার। ব্যথা এতটাই গুরুতর যে জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে সিরিজে খেলাই অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে সৌম্য সরকারের। ব্যথা যে এখনও আছে।

ভারতের পর দক্ষিণ আফ্রিকায় গিয়ে বাংলাদেশ ‘এ’ দলের হয়ে খেলে কোন আলোড়নই ছড়াতে পারেননি সৌম্য। জাতীয় দলের হয়ে দুর্দান্ত খেলতে থাকা এ ব্যাটসম্যান ভারত ‘এ’ দলের বিপক্ষে কিংবা দক্ষিণ আফ্রিকায় গিয়ে একটি অর্ধশতকও হাঁকাতে পারেননি। তবুও আশা ছিল, জাতীয় দলে নিজের ছন্দে ফিরতে পারেন। কিন্তু সেই ফেরা কী আর হচ্ছে। চূড়ান্ত দলে থেকেও এখন সরে যেতে হতে পারে। তার স্থানে শেষপর্যন্ত এনামুল হক বিজয় অথবা ইমরুল কায়েসকে দেখা যেতে পারে। মঙ্গলবার ইনজুরিতে পড়ার পর বুধবারই সৌম্যের এমআরআই করা হয়। ব্যথা তখনও থাকে। আজ সকালে এমআরআই রিপোর্ট মিলবে। এ রিপোর্টের উপরই নির্ভর করছে মূলত সৌম্যের সিরিজে খেলা। বিসিবির চিকিৎসক দেবাশিষ চৌধুরী তাই বললেন, ‘মঙ্গলবার সৌম্য ব্যথা পেয়েছে। আজ (বুধবার) সকালে তার এমআরআই করা হয়েছে। ব্যথা আছে। এখন বৃহস্পতিবার সকালে রিপোর্ট মিলবে। যদি সব ঠিক থাকে তাহলে তো খেলবেই। ব্যথা যদি থাকে তাহলে খেলা কঠিন হয়ে যাবে। এ সিদ্ধান্ত অবশ্য নেবে বিসিবিই।’

প্রধান নির্বাচক ফারুক আহমেদ অবশ্য এখনই কিছু ভাবতে নারাজ। চূড়ান্ত রিপোর্ট না দেখে কিছুই বলতে রাজি নন। জানালেন, ‘সৌম্য পাঁজরে ব্যথা পেয়েছে ঠিক। কিন্তু চূড়ান্ত রিপোর্ট বৃহস্পতিবার সকালে মিলবে। সেই রিপোর্ট না দেখে কিছুই বলা যাচ্ছে না। রিপোর্ট আসলে আর ব্যথা থাকলে তখন হয়ত ভাবনা হবে।’ তবে একটি সূত্রে জানা গেল, এখনই সৌম্যের বিকল্প নিয়ে ভাবতে শুরু করে দিয়েছেন নির্বাচকরা। সেই বিকল্প হতে পারেন বিজয় অথবা ইমরুল।

আজ জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে বিসিবি একাদশের প্রস্তুতি ম্যাচ রয়েছে। এই ম্যাচে বিজয় ও ইমরুল দুইজনই আছেন। দুইজনের যে বেশি ভাল ব্যাটিং করবেন, তাকেই নেয়া হবে। সৌম্য শেষপর্যন্ত না খেললে তার স্থানে হয় বিজয় নয়ত ইমরুলকেই নেয়া হবে। তবে আশা জেগেছে শাহরিয়ার নাফিসের বেলাতেও। যেহেতু জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে শাহরিয়ার ভাল খেলেন। তাই কোনভাবে শাহরিয়ারকে নেয়া যায় কিনা সেই ভাবনাও উদয় হয়। কিন্তু প্রাথমিক দলেই যে শাহরিয়ার ছিলেন না। তাই এনসিএলের শেষ রাউন্ডে ‘ব্যাক টু ব্যাক’ শতক করার পরও শাহরিয়ারের কোন সুযোগই হয় তো থাকছে না। তবে প্রস্তুতি ম্যাচটি বিজয় ও ইমরুলের জন্য হয়ে যেতে পারে ভাগ্যক্রমে চূড়ান্ত দলে স্থান করে নেয়ার সুযোগ। সৌম্য অনিশ্চিত হয়ে পড়াতেই সেই সুযোগ ধরা দিতে পারে।