২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

জেলেদের স্বস্তির সমুদ্র যাত্রা

জেলেদের স্বস্তির সমুদ্র যাত্রা

নিজস্ব সংবাদদাতা, মংলা ॥ আবশেষে শুটকি আহরনে সুন্দরবনের ভিতর দিয়ে জেলেদের চলাচলে নিষেধাঞ্জা প্রত্যাহার করে নিয়েছেন বন বিভাগ। ফলে বৃহস্পতিবার ভোর থেকে মত্স্য আহরণে সমুদ্রে যাত্রা শুরু করছে উপকূলের ৩০ হাজার জেলে।

এদিকে জেলেদের ওই সমুদ্র যাত্রাকে ঘিরে বৃহস্পতিবার ভোর থেকেই পশুর নদীর চিলা খালের মোহনায় তৈরি হয়েছে ভিন্ন রকম এক পরিবেশ। স্ত্রী-ছেলে ও স্বজনদের কাছ থেকে বিদায় নেয়ার পাশাপাশি চলে ধর্মীয় বিধি-বিধানের হরেকরকম আনুষ্ঠানিকতা। দোয়া ও মিলাদ মাহফিল ছাড়াও খোয়াজ খিজির (রা.) ও গাজী কালুর নামে শিরনি বিতরণের মধ্য দিয়ে শুরু হয় জেলেদের সমুদ্র যাত্রার আনুষ্ঠানিকতাা।

এরআগে, হঠাৎ করে বন বিভাগ সুন্দরবনের পশুর নদী সহ বনের মধ্যকার নদী-খাল ব্যবহার করে মৎস্য আহরনের উপর নিষেধাজ্ঞা জারী করায় লক্ষাধিক জেলে পরিবার শুটকি আহরন মৌসুমকে সামনে রেখে দুবলায় যেতে পারছিলো না। এ অবস্থায় তারা বন বিভাগের এ হটকারী সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে ফুসে ওঠে এবং হাজার হাজার জেলে অতœাহুতির হুমকি দেয়।

পরে বন বিভাগের উদ্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে বুধবার বিকালে এই নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার হয় বলে এ প্রতিবেদককে নিশ্চিত করেছেন সুন্দরবন পূর্ববন বিভাগের ডিএফও মো. সাইদুল ইসলাম ।

নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের পর পুলিশ ও কোস্টগার্ডের প্রহরাসহ ফিশারম্যান গ্রুপের নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় ৩০ হাজার জেলে বৃহস্পতিবার ভোর থেকে মৎস্য আহরণের উদ্দেশ্যে সারিবদ্ধভাবে সমুদ্রে যাত্রা শুরু করছে । আগামী কাল(শুক্রবার) থেকে জেলে মহাজনরা সাগরের উদ্দেশ্যে রওনা দিবেন বলেও জানান তিনি।