১৩ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মুন্সীগঞ্জে ক্রসফায়ারে শীর্ষ সন্ত্রাসী পিচ্চি সেন্টু নিহত ॥ ৩ পুলিশ আহত

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ মুন্সীগঞ্জে পুলিশের সাথে ক্রসফায়ারে ২ বছরের সাজাপ্রাপ্ত ৮ মামলার আসামী শীর্ষ সন্ত্রাসী সেন্টু ব্যাপারী ওরফে পিচ্চি সেন্টু (৩৫) নিহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার ভোর রাত পৌনে ৩ টার দিকে টঙ্গীবাড়ি উপজেলার কাঁঠাদিয়ায় ঈদগাঁ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় সন্ত্রাসীদের সাথে বন্ধুকযুদ্ধে ৩ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন টঙ্গীবাড়ি থানার দারোগা (এসআই) মো. জসিম উদ্দিন, কনস্টেবল দেলোয়ার হোসেন ও মিজানুর রহমান। তাদের মুন্সীগঞ্জ জেলানারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ২ রাউন্ড গুলি ভার্তি ১টি রিভলবার, ১ টি চাইনিজ কুড়াল, ২টি রামদা ও ৫টি লোহার ছোটবড় রড উদ্ধার করেছে।

এসব তথ্য দিয়ে টঙ্গীবাড়ি থানার ওসি আলমগীর হোসেন জানান, দুর্ধর্ষ এ সন্ত্রাসীকে বুধবার দুপুরে উপজেলার পাইকপারা চৌরাস্তা এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। থানা হাজতে জিজ্ঞাসাবাদে মজুদ থাকা অস্ত্রের সন্ধান দেয় সেন্টু। রাতে সেন্টুকে নিয়ে উপজেলার কাঠাদিয়া এলাকায় অভিযান চালানো হয়। এ সময় কাঠাদিয়া ঈদগাঁ এলাকায় পৌঁছলে আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা সেন্টুর সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। আত্মরক্ষায় পুলিশ পাল্টা গুলি চালায়। উভয় পক্ষের মধ্যে অর্ধশতাধিকগুলি বিনিময় হয়। এ সময় পালাতে গিয়ে সন্ত্রাসীদের ছোড়া গুলিবিদ্ধ হয় সেন্টু। এ সময় তার শরীরের ৬টি গুলি লাগে। পরে তাকে মুন্সীগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে পুলিশ বাদী হয়ে টঙ্গীবাড়ি থানায় একটি মামলা করেছে।

পুলিশ সুপার বিজয় বিপ্লব তালুকদার জানিয়েছেন, পুলিশের সাথে বন্ধুকযুদ্ধে উভয়পক্ষের মধ্যে অর্ধ শতাধিক গুলি বিনিময় হয়েছে। পুলিশ ২৯ রাউন্ড গুলি ছুড়েছে। এর মধ্যে শর্ট গানের ২১ রাউন্ড, পিস্তলের ২ রাউন্ড ও চাইনজ রাইফেলের ৬ রাউন্ড গুলি ছোড়ে পুলিশ। সেন্টু টঙ্গীবাড়ি উপজেলার পশ্চিম সোনারং গ্রামের মৃত জয়নাল ব্যাপারীর পুত্র। টঙ্গীবাড়ী থানার দ্রুত বিচার আইনে সন্ত্রাস ও চাঁদাবাজির অভিযোগে দায়ের করা ৩২(৫)১২ মামলায় সেন্টুর ২ বছর সাজা হয়। পিচ্ছি সেন্টু দির্ঘদিন যাবৎ বিভিন্ন স্থানে পালিয়ে বেড়াচ্ছিল। তার বিরুদ্ধে টঙ্গীবাড়ী থানায় অস্ত্র, মাদক ও মারামারিসহ ৮টি মামলা রয়েছে। এর মধ্যে তার বিরুদ্ধে ৩টি মামলার ওয়ারেন্ট রয়েছে। একটি মামলায় সে ২ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামী। সে টঙ্গীবাড়ি থানার তালিকাভূক্ত চিহ্নত শীর্ষ সন্ত্রাসী।