২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রাজনৈতিক কর্মকান্ড না থাকায় উগ্রবাদের আশঙ্কা রয়েছে - রিপন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ দেশে রাজনৈতিক কর্মকান্ড না থাকায় উগ্রবাদের আশঙ্কা রয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির মুখপাত্র ও আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন। বৃহস্পতিবার দুপুরে নয়াপল্টন বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নীচতলায় প্রকাশক ফয়সল আরফিন দীপনের আত্মার মাগফিরাত কামনায় বিএনপি আয়োজিত দোয়া মাহফিলে তিনি এ কথা বলেন।

রিপন বলেন, উগ্রপন্থার তখনই আবির্ভাব ঘটে যখন গণতান্ত্রিক পন্থা ও আইনের শাসন না থাকে। তবে জাতীয় সংকট মোকাবেলায় দল মত নির্বিশেষে সবাইকে মিলেমিশে কাজ করতে হবে। কোন বিভেদ থাকলে চলবে না। দীপনের হত্যাকারীদের ধরতে আওয়ামী লীগ ও বিএনপিসহ সব দলকে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করতে হবে। তিনি বলেন, ফয়সল আরেফিন দীপন সরাসরি বিএনপি করতেন না। মিছিল মিটিংয়ে অংশ না নিলেও তিনি জিয়াউর রহমানের আদর্শ বুকে ধারণ করতেন। তিনি ছিলেন বিএনপির সহযোগী প্রতিষ্ঠান জিয়া স্মৃতি পাঠাগারের সহ-সভাপতি।

রিপন বলেন, দেশে এখন অস্বাভাবিক পরিস্থিতি বিরাজ করছে। মানুষ ভয়, উৎকণ্ঠায় দিন কাটাচ্ছে। আজ শিক্ষক, প্রকাশক ও রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ সন্ত্রাসীদের আক্রামণের শিকার হচ্ছে। ঘরে ঘরে মানুষ আর্তনাত করছে। গণতন্ত্র, জবাবদিহিতা ও আইনের শাসন না থাকায় উগ্রপন্থা হুমকি হয়ে উঠছে। সরকারকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, রাজনৈতিক জবাবদিহিতা না থাকায় দেশে হত্যাকান্ডের প্রবণতা বেড়ে যাচ্ছে। তবে দেশে গণতন্ত্র ফিরে এলে এ ধরনের কর্মকান্ড বন্ধ হবে। তাই সাম্প্রতিক হত্যাকান্ড নিয়ে বিরোধী দলের প্রতি ব্লেইম গেইম না দিয়ে বাস্তবতা উপলব্দি করুন।

দোয়া মাহফিলে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির দফতর সম্পাদক আব্দুল লতিফ জনি, সহ-তথ্য গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক হাবীবুর রহমান হাবীব, নির্বাহী কমিটির সদস্য তকদির হোসেন জসিম, শ্রমিক দলের সভাপতি আনোয়ার হোসেন, ওলামা দলের সভাপতি এম এ মালেক, মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক শিরিন সুলতানা, স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি মনির হোসেন প্রমুখ।