২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সেরেনার হাতে পাকড়াও ছুটন্ত মোবাইল-চোর

সেরেনার হাতে পাকড়াও ছুটন্ত মোবাইল-চোর

অনলাইন ডেস্ক॥ সেরেনা উইলিয়ামসের ফোন নিয়ে কেটে পড়ার মতলব ভাঁজছেন? উঁহু ভুলেও ওই কাজটি করতে যাবেন না, সেরেনা তাহলে আপনার পিছু ধাওয়া করতে এক মুহুর্তও ভাববেন না!

২১টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম খেতাবজয়ী টেনিস তারকা ঠিক এই কাজটাই করে দেখিয়েছেন – আমেরিকার একটি রেস্তারাঁয় সটান তার ফোন চোরের পেছনে দৌড় লাগিয়ে তাকে পাকড়াও করে ছেড়েছেন।

এই ঘটনার কথা সেরেনা নিজেই তার ফেসবুক পেজে বিশদ বর্ণনা দিয়ে লিখেছেন – সঙ্গে দিয়েছেন ‘সুপারউওম্যানে’র বেশে নিজের একটি ছবি, যা এই ঘটনার সঙ্গে একেবারে মানানসই!

৩৪ বছর বয়সী সেরেনা লিখেছেন, ‘গতকাল একটা রেস্তোরাঁয় আমার সঙ্গে অদ্ভুত এক ঘটনা ঘটেছে’। তার দাবি অনুযায়ী, রেস্তোরাঁয় এক লোক হঠাৎই তার ফোনটা তুলে নিয়ে খুব দ্রুত সরে যাওয়ার চেষ্টা করে।

‘এক মুহুর্ত না ভেবে আমি সঙ্গে সঙ্গে লোকটাকে তাড়া করি। আমার দৌড়ে দু-একটা চেয়ার টেবিলও উল্টে গিয়েছিল, কিন্তু সে দিকে না তাকিয়ে আমি ওকে ধরার জন্য ছুট দিই (এই জন্যই সঙ্গে ‘সুপারউওম্যানে’র ছবি)!’

‘ওর চেয়ে আমি অনেক বেশি জোরে দৌড়চ্ছিলাম, ফলে নিমেষের মধ্যে ওকে পাকড়াও করতে আমার একটুও কষ্ট হয়নি।’

তারপরই বেশ ‘রূঢ় অথচ শান্ত, শীতল গলায়’ সেরেনা তাকে জিজ্ঞেস করেন, সে কি নেহাত ভুল করে রেস্তারাঁ থেকে অন্য কারও ফোন তুলে এনেছে?

জবাবে আমতা আমতা করতে লোকটি শেষ পর্যন্ত বলে ফেলে, ‘আসলে আপনি ঠিকই ধরেছেন। ওখানে ব্যাপারটা এত গোলমেলে ছিল, আমি নিশ্চয় ভুল ফোনটা তুলে এনেছি।’

সেরেনা আরও জানিয়েছেন, এই ঘটনার পর রেস্তোরাঁয় উপস্থিত সবাই তাঁকে দাঁড়িয়ে উঠে অভিবাদন (‘স্ট্যান্ডিং ওভেশন’) জানিয়েছেন।

এই বছর ইউ এস ওপেন ছাড়া বাকি তিনটি গ্র্যান্ড স্ল্যাম সিঙ্গলস খেতাবই সেরেনা উইলিয়ামসের দখলে গেছে – যদিও চোট আঘাত থেকে সের ওঠার জন্য বছরের বাকি সময়টা তিনি বিশ্রামে আছেন।

কিন্তু সেই বিশ্রামের সময় সেরেনার মুকুটে যে এমন একটা সাঙ্ঘাতিক পালক যোগ হয়ে যাবে, তা বোধহয় তিনি নিজেও কল্পনা করেননি।

সেরেনার নিজের কথাতেই, ‘এটা হল মহিলাদের জন্য একটা দারুণ জয়!

সূত্র : বিবিসি বাংলা