২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রাজধানীতে ছেলের হাতে মা খুন, স্টোভ বিস্ফোরণে বউ-শাশুড়ি দগ্ধ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীর মিরপুরে ছেলের ছুরিকাঘাতে মা খুন হয়েছে। এদিকে মহাখালীতে রান্না ঘরের স্টোভ চুলা বিস্ফোরণে বউ-শাশুড়ি মারাত্মক দগ্ধ হয়েছে। যাত্রাবাড়ীতে ভাড়াটিয়ার ছুরিকাঘাতে এক গৃহবধূ গুরুতর আহত হয়েছে। ক্যান্টনমেন্ট ও জুরাইন এলাকায় ছিনতাইকারীরা দুই ব্যক্তিকে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে নগদ টাকা ও মালামাল ছিনিয়ে নিয়েছে। শুক্রবার পুলিশ ও মেডিক্যাল সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, রাজধানীর মিরপুরের বড়বাগ এলাকায় ছেলের ছুরিকাঘাতে রেহানা আক্তার (৪০) নামে এক নারী খুন হয়েছে। নিহত রেহানার স্বামীর নাম মতিউর রহমান। নিহতের এক আত্মীয় জানান, সোমবার রাতে মিরপুরে বড়বাগ এলাকার নিজের বাসায় ছেলের ছুরিকাঘাতে রেহানা আক্তার গুরুতর আহত হন। পরে তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে তাকে নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে (আইসিইউতে) স্থানান্তর করা হয়। সেখানে চারদিন মৃত্যুর সঙ্গে লড়ে শুক্রবার বিকেলে তার মৃত্যু হয়। নিহতের প্রতিবেশীরা জানান, ছেলে ইমন ওরফে রিমন তার মা রেহানা আক্তারকে ছুরিকাঘাত করেন। ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক মোজাম্মেল হক জানান, পরে রেহানার লাশের ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। আজ শনিবার সকালে তার লাশের ময়নাতদন্ত করা হবে বলে তিনি জানান। পরিদর্শক মোজাম্মেল জানান, তার এক আত্মীয় ছাড়া আর কাউকে হাসপাতালে পাওয়া যায়নি। এমনকি তার স্বামী। বাবা-মা কেউ আসেননি।

চুলার আগুনে বউ-শাশুড়ি মারাত্মক দগ্ধ ॥ রাজধানীর মহাখালীর ওয়ারলেস গেট এলাকায় রান্না ঘরের কেরোসিন তেলের স্টোভ চুলার বিস্ফোরণে বউ-শাশুড়ি দগ্ধ হয়েছেন। দগ্ধরা হচ্ছেন, শাশুড়ি মোছাঃ সালমা (৬৫) তার ছেলে বউ নাজমা আক্তার (৩৫)। তাদেরকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, সালমার শরীরে ৭৪ শতাংশ পুড়ে গেছে। এতে তার শ্বাসনালী পুড়ে গেছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। আর নাজমার শরীর ৩৫ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে।

আহত নাজমার স্বামী আবুল কালাম জানান, মহাখালী কলেরা হাসপাতালে পাশে শহীদ তাজউদ্দীন সরণির একটি টিনশেড বাড়িতে ভাড়া থাকেন তারা। বৃহস্পতিবার রাতে বাসার রান্নাঘরের স্টোভ চুলা ধরাতে গিয়ে হঠাৎ বিস্ফোরণ ঘটে। এতে প্রথমে মা সালমার শরীরে আগুন ধরে যায়। মার চিৎকারে স্ত্রী নাজমা তাকে বাঁচাতে এগিয়ে যায়। এতে স্ত্রীর শরীরেও আগুন ধরে যায়। পরে স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করেন।

ভাড়াটিয়ার ছুরিকাঘাতে গৃহবধূ আহত ॥ রাজধানীর যাত্রাবাড়ী এলাকায় সাবলেট ভাড়াটিয়ার ছুরিকাঘাতে সাথী আক্তার (২৫) নামের এক গৃহবধূ গুরুতর আহত হয়েছেন। পরে তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আহতের স্বামী শহিদুল জানান, উত্তর যাত্রাবাড়ীর ৭৮ নম্বর দুই রুম ভাড়া নেন। পরে এক রুম এক ব্যক্তিকে সাবলেটে ভাড়া দেন। তিনি জানান, শুক্রবার ভোরের দিকে কাজের সন্ধানে তিনি বাইরে যান। এই সুযোগে ওই সাবলেট ভাড়াটিয়া তার রুমে লুট করার চেষ্টা করে। এ সময় তার স্ত্রী সাথী আক্তার তাকে বাধা দেয়। এতে ওই সাবলেট ভাড়াটিয়া ব্যক্তি সাথীকে ছুরিকাঘাত করে স্বর্ণালংকার ও টাকা পয়সা নিয়ে পালিয়ে যায়। শহিদুল জানান, পরে তিনি বাসায় ফিরে সাথীকে আহত অবস্থায় দেখেন। পরে তাকে উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করেন।

ছিনতাই ॥ রাজধানীর ক্যান্টনমেন্ট এলাকায় ছিনতাইকারীরা রফিকুল ইসলাম নামে এক যুবককে মারধর করে নগদ ৩০ হাজার ও মোবাইল ফোন সেট ছিনিয়ে নিয়ে যায়। পরে তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার বাবার নাম মোয়াজ্জেম হোসেন। তিনি পশ্চিম মাটিকাটা এলাকায় বসবাস করেন। আহত রফিকুল জানায়, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১ টার দিকে ক্যান্টনমেন্ট পশ্চিম মাটিকাটা এলাকায় কয়েকজন সন্ত্রাসী তাকে গতিরোধ করে। এক পর্যায়ে তারা তাকে মারধর করে নগদ ৩০ হাজার টাকা ও মোবাইল সেট ছিনিয়ে নিয়ে যায়। ক্যান্টনমেন্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জানান, ভাসানটেক এলাকায় ঘটনাটি ঘটছে। তবে তা ছিনতাই নয়। ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসার টাকার বিরোধ নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটেছে।

এদিকে একই দিন মধ্যরাতে পুরনো ঢাকার শ্যামপুর থানাধীন জুরাইন কমিশনার গলিতে ছিনতাইকারীরা আলাল (৪০) নামে এক সিএনজি অটোরিক্সার চালক ছুরিকাঘাত করে তার সিএনজি ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ সময় ছিনতাইকারীরা তার সিএনজি অটোরিক্সাটি ছিনতাই করে নিয়ে যায়। আহত আলাল মিরপুর দারুস সালাম এলাকায় থাকেন।