২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

গলাটিপে শিশু সন্তানকে হত্যা করল পাষণ্ড পিতা

স্টাফ রিপোর্টার, বাগেরহাট ॥ জেলার চিতলমারীতে পাষ- পিতা গলাটিপে ওসমান নামে আড়াই মাসের এক শিশু সন্তানকে হত্যা করেছে। শুক্রবার দুপুরের দিকে উপজেলার হিজলা নতুন চাঁন্দেরচর গ্রামের মর্মান্তিক এ ঘটনা ঘটে। পরকীয়ার কারণে শিশুটিকে হত্যা করা হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে পুলিশ ধারণা করছে। ঘাতক পিতাকে পুলিশ আটক করেছে। শিশুটির লাশ উদ্ধার করে হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, হিজলা নতুন চাঁন্দেরচর গ্রামের হান্নান শেখের মেয়ে লেবি আক্তারের পার্শ্ববর্তী বড়বাড়িয়া গ্রামের তোফাজ্জেল শেখের ছেলে ফায়জুল শেখের প্রায় বছরতিনেক আগে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে তাদের দাম্পত্য জীবন ভালই কাটছিল। গত আড়াই মাস আগে তাদের ঘরে ফুটফুটে একটি পুত্র সন্তানের জন্ম হয়। তার নাম রাখা হয় ওসমান। সন্তানটির জন্মের পর থেকে লেবি বাবার বাড়িতে অবস্থান করছিল। এ অবস্থায় গত মঙ্গলবার ফায়জুল স্ত্রী-সন্তানকে দেখতে শ্বশুর বাড়িতে বেড়াতে আসেন। নানা বিষয় নিয়ে স্ত্রী ও শ্বশুর বাড়ির লোকজনের সঙ্গে বিরোধ সৃষ্টি হয়। এরই জের ধরে শুক্রবার ফয়জুল তার আড়াই মাসের শিশু সন্তান ওসমানকে ঘুম পাড়ানোর কথা বলে নিয়ে গিয়ে গলাটিপে হত্যা করে। তবে অন্য এক নারীর সঙ্গে ফায়জুলের পরকীয়া রয়েছে বলে গুজব রয়েছে। এ নিয়ে স্ত্রীর সঙ্গে বিরোধের কারণে এ হত্যকা- ঘটতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ঘাতক পিতা ফায়জুল শেখকে আটক করেছে। সে হত্যার কথা স্বীকার করেছে। শিশুটির লাশ উদ্ধার করে হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। এ হৃদয়-বিদারক ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন এলাকাবাসী। এ ব্যাপারে চিতলমারী থানার পুলিশ জানায়, ঘাতক পিতা ফায়জুল তার সন্তানকে হত্যার কথা স্বীকার করেছে। এ ব্যাপারে তদন্ত চলছে। পরকীয়া না অন্য কোন কারণে শিশুটিকে হত্যা করা হয়েছে বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হচ্ছে।

নির্বাচিত সংবাদ