২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঢাবি ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতি, ২ জনের জেল

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতির অভিযোগে মোঃ আব্দুস সালাম ও মোঃ জোবায়দুল ইসলাম নামের দুই পরীক্ষার্থীকে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদ- দেয়া হয়েছে। বিষয়টি গুরু পাপে লঘু দ- হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন অনেকে। কারণ এর আগে সমপরিমাণ এবং এর তুলনায় অনেক লঘু অপরাধে গুরুতর শাস্তি প্রদান করা হয়েছে। শুক্রবার দুপুরে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারাওয়াত মেহজাবীন এই রায় দেন বলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. এএম আমজাদ জানিয়েছেন। এদিকে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের সম্মান প্রথম বর্ষের ‘ডি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নোত্তর মুঠোফোনে পাওয়ায় দু’জনকে আটক করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক এএম আমজাদ জানান, সালামকে শেরেবাংলা নগর গবর্নমেন্ট বয়েজ স্কুল ও জোবায়দুলকে মতিঝিল সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় পরীক্ষা কেন্দ্র থেকে দায়িত্বরত শিক্ষক সন্দেহবশত আটক করেন। তাদের কাছে মোবাইলফোন পাওয়া যায়। মোবাইলফোন জব্দ করে দেখা যায়, সেখানে উত্তর দেয়া আছে। পরবর্তীতে তাদের প্রক্টর কার্যালয়ে আনা হয়। অপরাধের তুলনায় শাস্তি কম হওয়ার কারণ জানতে চাইলে তিনি জানান, ম্যাজিস্ট্রেট যেটা ভাল মনে করেছেন সেই অনুযায়ী রায় দিয়েছেন। ঢাকা জেলার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারাওয়াত মেহজাবীন জানান, অপরাধের ধরন বিবেচনায় রেখে ১৮৬০ সালের দ-বিধি ১৮৮ ধারা অনুযায়ী এই দ- প্রদান করা হয়েছে। অভিযুক্তদের কাছ থেকে পাওয়া মোবাইলফোন এবং এর মেসেজের মাধ্যমে পাওয়া উত্তরপত্রের প্রমাণ থাকা সত্ত্বেও লঘু দ-ের কারণ জানতে চাইলে তিনি জানান, আইনের অনেক ফাঁকফোকর আছে।

মুঠোফোনে প্রশ্নোত্তর পাওয়ায় দুইজনকে আটক ॥ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের সম্মান প্রথম বর্ষের ‘ডি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নোত্তর মুঠোফোনে পাওয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের চতুর্থ ব্যাচের শিক্ষার্থী রাশেদুল ইসলাম ও ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থী রাকিবুল হাসান নামে দুই শিক্ষার্থীকে আটক করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর নূর মোহাম্মদ জানান, আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।