১১ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আরও বড় দায়িত্ব মুস্তাফিজের

আরও বড় দায়িত্ব মুস্তাফিজের
  • ‘কাটার’ চমক দেখা যাবে আবার!

মোঃ মামুন রশীদ ॥ গত তিনটি সিরিজে অন্যরকম এক বাংলাদেশ দলকে দেখা গেছে। চিরাচরিত নিয়মের গ-ি থেকে বেরিয়ে এসেছে ঘরের মাটিতে প্রতিপক্ষকে মোকাবেলার পরিকল্পনা থেকে। স্পিননির্ভর উইকেট এবং স্পিনারদের আধিক্যে দল গড়ার ঐতিহ্য পাকিস্তান, ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সিরিজ থেকেই বাদ গেছে। এমনটি চার পেসার নিয়েও খেলেছে দল। আর এ পরিবর্তনটা অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা শুরু করে দিয়েছেন। বিশ্বকাপে দলের পেসারদের দারুণ নৈপুণ্যের পর শুধু স্পিননির্ভরতা কমে গেছে। এখন পেসারদের নিয়েও আস্থা তৈরি হয়েছে বাংলাদেশ দলে। বিশেষ করে তরুণ উদীয়মান মুস্তাফিজুর রহমান মাত্র দুটি ওয়ানডে সিরিজ খেলেই চমক দেখিয়েছেন, হয়ে গেছেন অন্যতম নির্ভরতা। এবার জিম্বাবুইয়ের বিরুদ্ধে ঘরোয়া সিরিজে আরও গুরুদায়িত্ব তাঁর কাঁধে। কারণ ইনজুরির কারণে নির্ভরযোগ্য দুই পেসার রুবেল হোসেন ও তাসকিন আহমেদ দলে নেই। আবার অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা নিজেই শুক্রবার সংবাদ সম্মেলনে স্বীকার করেছেন পুরোপুরি ফিট নন তিনি। সবমিলিয়ে ‘কাটার’ মুস্তাফিজ নাম পাওয়া ২০ বছর বয়সী বাঁহাতি এ সাতক্ষীরার পেসারের ওপরই নির্ভর করতে হবে বাংলাদেশ দলকে। স্পিনবান্ধব উইকেট গড়া হয়নি গত তিন সিরিজে। গত বছর শেষদিকে জিম্বাবুইয়ের বিরুদ্ধে সিরিজ দিয়ে নতুন করে দলের নেতৃত্ব পাওয়ার পর থেকেই অধিনায়ক মাশরাফি শুরু থেকেই বলেছেন, পেসাররাও কিছু করতে সক্ষম, সেটা প্রমাণ করতে হবে। পেসাররা বিশ্বকাপ এবং এরপর ঘরের মাটিতে তিন পরাক্রমশালী দল পাকিস্তান, ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে নিজেদের প্রমাণ করেছেন। এর মধ্যে বিস্ময়ের জন্ম দিয়েছেন মুস্তাফিজ। বাংলাদেশে দীর্ঘদিন কার্যকরী ও নির্ভরযোগ্য বাঁহাতি পেসারের অভাববোধ থেকেই তাঁকে প্রথম আনা হয়েছিল ভারতের বিরুদ্ধে ওয়ানডে সিরিজে। আর সেখানেই চমক দেখান বিস্ময়কর ‘কাটার’ দেয়ার ক্ষমতা ও সুইং দিয়ে। ৫০ রানে ৫ উইকেট নিয়ে ওয়ানডে অভিযান শুরু এ তরুণের। ওই সিরিজে তাঁকে নিয়ে অনেক গবেষণা ও বিশ্লেষণ করেছে ভারতীয় দল। কিন্তু কাজে আসেনি। ৩ ম্যাচের সিরিজে ১৩ উইকেট নিয়েছেন যা যৌথভাবে অস্ট্রেলিয়ান পেসার রায়ান হ্যারিসের সঙ্গে বিশ্বরেকর্ড। তবে ক্যারিয়ারের শুরুর টানা তিন ম্যাচে এত বেশি উইকেট নিতে পারেননি কেউ।

সেই মুস্তাফিজের ওপর এবার দ্বিমুখী চাপ। যে সুনাম কুড়িয়েছেন বড় দলের বিরুদ্ধে সেটা করে দেখাতে হবে অপেক্ষাকৃত দুর্বলতর দল জিম্বাবুইয়ের বিরুদ্ধে। ৬ ওয়ানডেতে মাত্র ১২.৬১ গড়ে ১৮ উইকেট শিকারি মুস্তাফিজ এবার ভিন্ন সঙ্গী পাবেন। রুবেল-তাসকিনের ইনজুরির কারণে দলে ফিরেছেন আলআমিন হোসেন এবং নতুন মুখ হিসেবে কামরুল ইসলাম রাব্বি। আর অধিনায়ক মাশরাফি শুক্রবার নিজের বিষয়ে বলেন, ‘এখনও আমি শতভাগ ফিট নই। আরেকটু সেরে উঠতে পারলে বা আরেকটু অনুশীলন করে আসতে পারলে আমার জন্য ভাল হতো। আশা করি, পুরো সময় টিকে থাকতে পারব।’ বর্তমানে উইকেটও তৈরি করা হচ্ছে পেসবান্ধব।