২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ভবন নির্মাণকাজ তিন বছর ধরে বন্ধ

  • কুতুবকাঠি প্রাইমারী স্কুল

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঝালকাঠি, ৬ নবেম্বর ॥ সদর উপজেলার শেখেরহাট ইউনিয়নের কুতুবকাঠি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নির্মাণকাজ তিন বছর ধরে ঝুলিয়ে রেখেছে ঠিকাদার। বিদ্যালয় প্রকল্প বাস্তবায়নকারী প্রতিষ্ঠান এলজিইডি বিভাগ নির্ধারিত সময়ের মধ্যে প্রকল্প বাস্তবায়ন সমাপ্ত না করায় ঠিকাদারদের বিরুদ্ধে কোন ধরনের ব্যবস্থা নিচ্ছে না। বিদ্যালয়টি নির্মাণকালীন পুরাতন ভবন ভেঙ্গে ফেলা হয় এবং পুরাতন বিদ্যালয়ের স্থানেই নতুন ভবন নির্মাণ করা হচ্ছে। প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা কুতুবকাঠী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দুটি কক্ষ ব্যবহার করে পালাক্রমে এই প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ক্লাস চালাচ্ছে। এর ফলে মাধ্যমিক বিদ্যালয়টি শ্রেণীকক্ষ কমে যাওয়ায় তাদের শিক্ষা কার্যক্রমও ব্যাহত হচ্ছে। ভবন নির্মাণ দীর্ঘসূত্রতার কারণে এই প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীরাও ঝরে পড়ছে।

বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটি ঠিকাদারকে ভবন নির্মাণের তাগিদ দিলে তাদেরও ঠিকাদার হুমকি-ধমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে এবং বিষয়টি নিয়ে শিক্ষা বিভাগের কর্মকর্তা ও এলজিইডি বিভাগের কাছে বার বার ধরনা দিয়েও কোন প্রতিকার পাওয়া যাচ্ছে না। ঝালকাঠির এলজিইডি বিভাগের উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ আরিফুদ্দৌলা জানান, আগামী তিন-চার মাসের মধ্যে অসমাপ্ত কাজ শেষ করা যাবে। ঝালকাঠির গাভা রামচন্দ্রপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও স্থানীয় আ’লীগ নেতা আমিনুল ইসলাম লিটন ২০১২ সালে এই বিদ্যালয়ের ঠিকাদার নিযুক্ত হন। ৫১ লাখ ৯১ হাজার টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ে তাকে কার্যাদেশ প্রদান করা হয়। ঠিকাদার ৪০% কাজ করে ছাদসহ ৬০% কাজ অসমাপ্ত রেখে তিন বছর ধরে ফেলে রেখেছে। বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ধীরেন ম-ল জানান, ঠিকাদারকে কাজের জন্য তাগিদ দিলে তারা হুমকি-ধমকি দিচ্ছে। ঝালকাঠি এলজিইডি বিভাগের উপজেলা প্রকৌশলী জানান, ঠিকাদারকে বার বার তাগিদ দেয়া হচ্ছে এবং আগামী দুই-তিন মাসের মধ্যে এই ভবনের নির্মাণকাজ শেষ করা যাবে।