২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঋণের কিস্তি পরিশোধ করতে না পারায় গৃহবধূকে ধর্ষণ

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ চট্টগ্রামে ক্ষুদ্র ঋণের কিস্তির টাকা পরিশোধ করতে না পারায় ধর্ষিত হয়েছেন এক গৃহবধূ। নগরীর বাকলিয়া থানার কল্পলোক আবাসিক এলাকায় বৃহস্পতিবার রাতে গণধর্ষণের শিকার হন এই নারী। এ ঘটনায় দায়ের করা মামলার ভিত্তিতে পুলিশ শনিবার ২ জনকে গ্রেফতার করেছে। পুলিশ জানায়, গ্রেফতার ২ জন হলেন নুর মোহাম্মদ ও এ্যাডভোকেট মোঃ বাহাদুর। এর মধ্যে এ্যাডভোকেট বাহাদুরকে ধর্ষণে সহায়তাকারী ও অপরজনকে ধর্ষক হিসেবে গ্রেফতার করা হয়। ওই মহিলার দায়ের করা মামলায় আসামি চারজন। বাকি দু’জনকে গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান চলছে। বাকলিয়া থানার ওসি মোঃ মহসিন জানান, নুর মোহাম্মদসহ ক’জনের একটি মাল্টিপারপাস কোম্পানি রয়েছে, যে প্রতিষ্ঠানটি দরিদ্রদের মধ্যে ক্ষুদ্র ঋণ প্রদান করে থাকে। এ্যাডভোকেট বাহাদুরেরও এতে বিনিয়োগ রয়েছে। গত সেপ্টেম্বরের শেষ সপ্তাহে এই মহিলার স্বামী মাল্টিপারপাস কোম্পানি থেকে ৩ হাজার টাকা ঋণ নেন।

দুই কিস্তির অর্থ পরিশোধ করার পর তিনি আর্থিক টানাপোড়েনের কারণে পরবর্তী কিস্তির টাকা পরিশোধে ব্যর্থ হন। এরপর তার ওপর নানাভাবে চাপ প্রয়োগ করা হয়। টাকা আদায়ের জন্য বাকলিয়া থানার আবদুল লতিফহাট এলাকায় আবদুর নুর কলোনিতে অবস্থিত ওই গৃহবধূর বাসায় গিয়ে তাকে ও তার স্বামীকে তুলে আনে সাব্বির ও রাসেল নামের দু’জন। এরপর নিয়ে আসা হয় ক্ষুদ্র ঋণদানকারী ওই প্রতিষ্ঠানের অফিসে। সেখানে অবস্থান করছিলেন নুর মোহাম্মদ ও এ্যাডভোকেট বাহাদুর। রাত সাড়ে ৯টা থেকে ১১টা পর্যন্ত নির্যাতন চলে গৃহবধূ ও তার স্বামীর ওপর। এতে তারা জখমও হন। রাত ১১টার দিকে বাহাদুর চলে গেলে শুক্রবার ভোর ৪টা পর্যন্ত এ গৃহবধূর ওপর চলে যৌন নির্যাতন। রাসেলের সহায়তায় নুর মোহাম্মদ ও সাব্বির মিলে ১৮ বছর বয়সী এই গৃহবধূকে ধর্ষণ করে। ধর্ষিত নারী বাদী হয়ে ৪ জনকে আসামি একটি মামলা দায়ের করেন।

দিনাজপুরে ব্যবসায়ীর বাড়িতে ডাকাতি, আহত পাঁচ

স্টাফ রিপোর্টার, দিনাজপুর ॥ ফুলবাড়ী উপজেলার পৌর শহরের গৌরপাড়ায় শুক্রবার রাতে একজন ব্যবসায়ীর বাড়িতে ডাকাতির ডটনা ঘটেছে। ডাকাতদল নগদ ৩ লক্ষাধিক টাকা এবং স্বর্ণালঙ্কারসহ প্রায় ১০ লক্ষাধিক টাকার মাল লুট করেছে। এ সময় ডাকাতদলের পিটুনিতে গৃহকর্তা তার স্ত্রী সন্তানসহ দুই জন প্রতিবেশী আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে তিনজনকে ফুলবাড়ী স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। ফুলবাড়ী থানা থেকে প্রায় ২শ’ গজ দূরে গৌরপাড়ায় রাত ২টার দিকে জুয়েলারি ব্যবসায়ী ঠিকাদার মোর্শেদের বাড়িতে হানা দেয় ১০ থেকে ১৫ সদস্যের একদল মুখোশধারী ডাকাত।

বাইরের প্রবেশপথসহ ঘরের দরজা ভেঙ্গে অস্ত্রের মুখে গৃহকর্তাকে জিম্মি করে তারা।

আড়াইহাজার

নিজস্ব সংবাদদাতা, নারায়ণগঞ্জ, ৭ নবেম্বর ॥ আড়াইহাজার উপজেলার হাইজাদী ইউনিয়নের আশারামপুর গ্রামের দেলোয়ার হোসেন নামে কাপড় ব্যবসায়ীর বাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতি হয়েছে। ডাকাতরা অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ওই বাড়ি থেকে স্বর্ণ, নগদ টাকা ও অন্যান্য মালামালসহ প্রায় ৬ লাখ টাকার মাল লুট করে নিয়ে গেছে বলে পরিবার জানায়। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার রাত ১টার দিকে। এ ঘটনায় গৃহকর্তা বাদী হয়ে শনিবার দুপুরে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। গৃহকর্তা দেলোয়ার হোসেন জানান, শুকবার রাত ১টার দিকে মুখোশ পরিহিত ১৫-১৬ জনের অস্ত্রধারী ডাকাত প্রথমে ভবনের কেচি গেটের তালা কেটে ভেতরে প্রবেশ করে। পরে বাড়ির সকলকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ও গৃহকর্তার হাত-পা বেঁধে নগদ ৫০ হাজার টাকা, ১০ ভরি স্বর্ণালঙ্কার ও অন্যান্য মালামালসহ প্রায় ৬ লাখ টাকার মাল লুট করে নিয়ে যায়।