২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আজ সংসদের অধিবেশন শুরু হচ্ছে

সংসদ রিপোর্টার ॥ আজ রবিবার থেকে শুরু হচ্ছে দশম জাতীয় সংসদের অষ্টম অধিবেশন। বিকেল সাড়ে ৪টা থেকে স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অধিবেশনটি শুরু হবে। এর আগে স্পীকারের সভাপতিত্বে সংসদ ভবনে কার্য-উপদেষ্টা কমিটির বৈঠকে অধিবেশনের মেয়াদ ও কার্যাবলী চূড়ান্ত করা হবে। তবে এ অধিবেশনটি সংক্ষিপ্ত হবে বলেই সংসদ সচিবালয় সূত্রে জানা গেছে।

এদিকে, সংসদ অধিবেশনকে সামনে রেখে জাতীয় সংসদ ভবন ও এর পার্শ¦বর্তী এলাকায় সব ধরনের মিছিল, সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। শনিবার ডিএমপি কমিশনার মোঃ আছাদুজ্জামান মিয়া স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়।

গত ১৫ অক্টোবর সংসদের অষ্টম অধিবেশন আহ্বান করেন রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ। এর আগে সর্বশেষ সংসদ বসে গত ১০ সেপ্টেম্বর। এক অধিবেশন শেষ হওয়ার ৬০ দিনের মধ্যে পরের অধিবেশনের বাধ্যবাধকতা রয়েছে। সংসদ সচিবালয় সূত্র জানায়, সংবিধানের বাধ্যবাধকতা মানতেই এই অধিবেশন বসছে। এ কারণে অধিবেশনের মেয়াদ সংক্ষিপ্ত হবে।

এদিকে, সংসদ অধিবেশনকে সামনে রেখে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে সংসদ সচিবালয়। অষ্টম অধিবেশনে উত্থাপনের জন্য এরই মধ্যে নতুন চারটি খসড়া আইন জমা পড়েছে সংসদ সচিবালয়ে। এগুলো হলো- ‘রাষ্ট্রপতির অবসর ভাতা, পারিতোষিক ও অন্যান্য সুবিধা বিল’, ‘বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন বিল’, ‘কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ বিল’ এবং উদ্বৃত্ত সরকারী কর্মচারী আত্তীকরণ বিল। এছাড়া গত অধিবেশনে বা তার আগে উত্থাপিত ১০টি বিল পাসের অপেক্ষায় আছে। পৌরসভা আইন সংশোধনে জারি করা অধ্যাদেশটিও অনুমোদনের জন্য এই অধিবেশনে উত্থাপিত হবে।

এছাড়া শুরু হওয়া এই অধিবেশনে দলীয় পরিচয় ও প্রতীকে নির্বাচন করার জন্য ইউনিয়ন পরিষদ, উপজেলা পরিষদ, সিটি কর্পোরেশন ও জেলা পরিষদ বিল উত্থাপিত হতে পারে। অধিবেশনের প্রথম দিন আজ প্রয়াত সমাজকল্যাণমন্ত্রী মহসিন আলীসহ বিভিন্ন ব্যক্তির মৃত্যুতে শোক প্রস্তাব উত্থাপন করা হবে। সংসদ সদস্য থাকা অবস্থায় কেউ মারা গেলে শোক প্রস্তাব উত্থাপনের পর অধিবেশন মুলতবি রাখার রেওয়াজ রয়েছে। মন্ত্রী মহসিন আলীর মৃত্যুতে আনা শোক প্রস্তাব উত্থাপনের পর তাঁকে নিয়ে আলোচনা শেষে সংসদ অধিবেশন মুলতবি করা হতে পারে।

সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ ॥ জাতীয় সংসদ ভবনের পার্শ্ববর্তী এলাকায় সব ধরনের মিছিল, সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ ঘোষণা করে ডিএমপি কমিশনার কর্তৃক জারিকৃত বিবৃতিতে বলা হয়, সংসদের অষ্টম অধিবেশনের কারণে শনিবার রাত ১২টা থেকে সব ধরনের অস্ত্রশস্ত্র, বিস্ফোরকদ্রব্য, অন্যান্য ক্ষতিকারক দ্রব্য বহব এবং যে কোন ধরনের সমাবেশ, মিছিল, শোভাযাত্রা, বিক্ষোভ প্রদর্শন নিষিদ্ধ করা হয়েছে। জাতীয় সংসদের অষ্টম অধিবেশন শেষ না হওয়া পর্যন্ত এ আদেশ বলবৎ থাকবে।

নিষিদ্ধ এলাকার মধ্যে রয়েছে- ময়মনসিংহ রোডের মহাখালী ক্রসিং থেকে পুরাতন বিমানবন্দর হয়ে বাংলামোটর ক্রসিং পর্যন্ত, বাংলামোটর লিংক রোডের পশ্চিম প্রান্ত থেকে হোটেল সোনারগাঁও রোডের সার্ক ফোয়ারা পর্যন্ত, পান্থপথের পূর্ব প্রান্ত থেকে গ্রীন রোডের সংযোগস্থল হয়ে ফার্মগেট পর্যন্ত, মিরপুর রোডের শ্যামলী মোড় থেকে ধানম-ি-১৬ নম্বর সড়কের সংযোগস্থল, রোকেয়া সরণির সংযোগস্থল থেকে পুরনো ৯ম ডিভিশন (উড়োজাহাজ) ক্রসিং হয়ে বিজয় সরণির পর্যটন ক্রসিং, ইন্দিরা রোডের পূর্ব প্রান্ত থেকে মানিক মিয়া এভিনিউর পশ্চিম প্রান্ত, জাতীয় সংসদ ভবনের সংরক্ষিত এলাকা এবং এ সীমানার মধ্যে অবস্থিত সব রাস্তা ও গলিপথ।