২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

স্থগিতাদেশ প্রত্যাহারে উদ্যোগ নেবে কমিশন

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ ১৯৯৬ সালে পুঁজিবাজার কেলেঙ্কারিতে আলোচিত চিটাগাং সিমেন্টের শেয়ার কারসাজি মামলার স্থগিতাদেশ প্রত্যাহারের উদ্যোগ নেবে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। রবিবার বিএসইসির আইনজীবী আবদুল্লাহ এম রফিকুল ইসলাম এ তথ্য জানান। বিশেষ ট্রাইব্যুনালে উপস্থিত সাংবাদিকদের তিনি বলেন, উচ্চ আদালত মামলার কার্যক্রমের ওপর ৬ মাসের স্থগিতাদেশ দিয়েছেন। আমরা তার আগেই মামলা চালুর জন্য উদ্যোগ গ্রহণ করব।

প্রসঙ্গত, গত ৩ নবেম্বর সিকিউরিটিজ এ্যান্ড এক্সচেঞ্জ অধ্যাদেশ-১৯৬৯-এর ২৫এ ধারায় অর্পিত ক্ষমতা সংক্রান্ত বিষয়কে কেন্দ্র করে মহামান্য হাইকোর্টের বিচারপতি নাঈমা হায়দার ও বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলামের বেঞ্চে রিট করেন আসামি এ এস এম শহিদুল হক বুলবুল। রিটের শুনানি শেষে চিটাগাং সিমেন্টের মামলা কার্যক্রমের ওপর ছয় মাসের স্থগিতাদেশ দেয় উচ্চ আদালত।

অপরদিকে চিটাগাং সিমেন্ট মামলার কার্যক্রম চালুর উদ্যোগের বিষয়ে এ মামলার আসামি ও উচ্চ আদালতে রিট দায়ের করা এ এস এম শহিদুল হক বুলবুল সাংবাদিকদের বলেন, এর আগে যেহেতু সিকিউরিটিজ এ্যান্ড এক্সচেঞ্জ অধ্যাদেশ ১৯৬৯-এর ২৫এ ধারাকে চ্যালেঞ্জ করে দুটি রিট রয়েছে, সেহেতু সে দুটি রিট নিষ্পত্তি না করে চিটাগাং সিমেন্টের মামলা চালু করা যাবে না। যদি বিএসইসি রিট নিষ্পত্তির আগেই চিটাগাং সিমেন্টের মামলা চালুর উদ্যোগ নেয় তাহলে তা অনৈতিক হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি। এদিকে চিটাগাং সিমেন্ট মামলার যুক্তিতর্ক শেষ হওয়ার পর গত ২৭ অক্টোবর পুঁজিবাজার মামলা নিষ্পত্তিতে গঠিত ট্রাইব্যুনালের বিচারক হুমায়ুন কবীর ৮ নবেম্বর রায় ঘোষণার দিন ধার্য করেছিলেন।

কিন্তু উচ্চ আদালতের স্থগিতাদেশের কারণে রবিবার এ মামলার রায় ঘোষণা করা সম্ভব হয়নি। রবিবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক রায়টি ঘোষণা হলে সবার জন্য ভাল হতো বলে মন্তব্য করেন। তিনি বাদী ও বিবাদী উভয়পক্ষের আইনজীবীর উদ্দেশে বলেন, কি রায় দিতাম তা আপনারা ভাবতেও পারেন না।