১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বিহারের নির্বাচন ॥ নীতিশ কুমারের জয়ের কয়েকটি কারণ

দীর্ঘ অপেক্ষার অবসান। অবশেষে রবিবার ভারতের বিহার রাজ্য বিধানসভা নির্বাচনের ছবিটা স্পষ্ট হয়ে গেছে। সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়ে শেষ হাসিটা হাসছে নীতিশ কুমারের নেতৃত্বাধীন মহাজোটই। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দল বিজেপি নেতৃত্বাধীন জোটকে হারিয়ে তৃতীয়বারের মতো বিহারের মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পথে তিনি। যেহেতু এবার নির্বাচনী লড়াই ছিল মোদি বনাম নীতিশের মধ্যে, তাই এ নির্বাচনে বিপর্যয়ের দায়ও অনেকটা নিতে হবে মোদিকে। বিহারে নীতিশের জয়ে কয়েকটি কারণ তুলে ধরেছে ভারতের প্রথমসারির ইংরেজী সংবাদপত্র টাইমস অব ইন্ডিয়া :

১. নীতিশ কুমারের জনপ্রিয়তা : বিহার ভোটে মহাজোটের জয়ের ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় ফ্যাক্টর হলো নীতিশের অসাধারণ জনপ্রিয়তা। প্রায় সব জরিপেই সবচেয়ে জনপ্রিয় মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসেবে আর্বিভূত হয়েছেন তিনি।

২. রাজ্য বনাম লোকসভা : ভোটাররা স্থানীয় ও লোকসভা নির্বাচনকে ভিন্ন বলে দেখতে শুরু করে। তারা যাকে উপযুক্ত মনে করছে তাকেই তাদের প্রতিনিধি নির্বাচন করেছে। মোদি বা অমিত শাহ বিহারের মানুষের ভাবাবেগের সঙ্গে একাত্ম হতে পারেননি। তাই নীতিশের ওপরই আরও একবার ভরসা দেখিয়েছে বিহারবাসী।

৩. আরএসএস প্রধানের কোটা মন্তব্য : বর্ণভিত্তিক কোটা সংরক্ষণ নিয়ে আরএসএস প্রধান মোহন ভগবতের মন্তব্য বিহার নির্বাচনে বিজেপির জন্য সবচেয়ে অশুভ মুহূর্ত হয়ে দাঁড়ায়।

৪. মুসলিম ও বিজেপির মধ্যে আস্থার ঘাটতি : মুসলিম ও বিজেপির মধ্যে সবসময়ই আস্থার ঘাটতি রয়েছে। বিহারের জনসংখ্যার ১৫ শতাংশ মুসলিম এবং তারাই সবসময় বিজেপির জন্য চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

৫. মোদি ঝড় কমে যাওয়া : মোদি এখনও দেশজুড়ে সবচেয়ে জনপ্রিয় নেতা। তবে তার নাম নিয়ে সব নির্বাচনে জয়ের আশা করতে পারে না বিজেপি। এ ভোটের ফলাফলের পর বিজেপি নেতারাই বলছেন, গত দেড় বছর মোদি সরকারের বিরুদ্ধে দেশজুড়ে যে অসন্তোষ তৈরি হয়েছে, তার প্রতিফলনও বিহার নির্বাচনে হয়েছে।

৬. স্থানীয় সংগঠনের চেয়ে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বে বেশি নজর দেয়া : আর একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলোÑ বিজেপিকে বুঝতে হবে, শুধু কেন্দ্রের জোরে রাজ্য রাজনীতিতে ঘাঁটি গাঁড়া যাবে না। রাজ্যে দলীয় সংগঠনকে মজবুত করতে হবে। লোকসভায় যে মোদি হাওয়া ছিল সেই হাওয়ায় পাখা দিয়ে সব রাজ্যে ক্ষমতায় আসা যাবে না।

৭. দলিত মৃত্যু নিয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর মন্তব্য : ফরিদাবাদে দুই দলিত শিশুর মৃত্যু নিয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ভি কে সিংয়ের মন্তব্য মহাজোটের জন্য দলিতদের ভোট পাওয়া নিশ্চিত করে।

৮. সমাজের পিছিয়ে পড়া সম্প্রদায় গড়েছে তফাতটা : সমাজের কম সুবিধাপ্রাপ্ত, সামাজিক ও অর্থনৈতিকভাবে পিছিয়ে পড়া সম্প্রদায়ের সাহস যারা রাজ্যের ওপর অত্যধিক মাত্রায় নির্ভরশীল তারাই বিহারের এ নির্বাচনের ফলের ভিতটা গড়ে দিয়েছেন।