১৬ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

র‌্যাব পরিচয়ে ৪০ লাখ টাকা ছিনতাই, পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধের পর চারজন গ্রেফতার

নিজস্ব সংবাদদাতা, কেরানীগঞ্জ, ৮ নবেম্বর ॥ র‌্যাব পরিচয়ে রাজধানীর মতিঝিল থেকে ৪০ লাখ টাকাসহ এক ব্যক্তিকে অপহরণ করা হয়েছে। পরে কেরানীগঞ্জের ঝিলমিল আবাসন প্রকল্পের ভেতরে বন্দুকযুদ্ধের পর ৪ অপহরণকারীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলো, বাচ্চু (৪৫), হারুন (৪২), এনায়েত (৩৫) ও কামাল (৪০)। এদের মধ্যে বাচ্চু ও হারুনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ছিনতাই করা ৪০ লাখ টাকার মধ্যে ১৫ লাখ টাকা উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। রবিবার রাত ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ ছিনতাইকারীদের ব্যবহৃত একটি মাইক্রো (ঢাকা মেট্রো চ ১৫-৬৫৯৭), একটি বিদেশী পিস্তল, ৩ রাউন্ড গুলি, একটি ওয়াকিটকি, একটি হ্যান্ডকাফ এবং র‌্যাবের তিন সেট পোশাক উদ্ধার করে।

দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ওসি মনিরুল ইসলাম জানান, রবিবার বিকাল ৫টার দিকে মতিঝিল থেকে ৪০ লাখ টাকাসহ জালাল নামে এক ব্যক্তিকে অপহরণ করে গাড়িতে তুলে নেয় কয়েক ব্যক্তি। ছিনতাইকারীরা এ সময় নিজেদের র‌্যাবের সদস্য বলে পরিচয় দেয়। তারা ভিকটিমকে মারধর করে প্রায় ৩ ঘণ্টা পর কেরানীগঞ্জের ঝিলমিল আবাসন প্রকল্পের কাছে নামিয়ে দেয়। পরে ওই ব্যক্তি থানায় এসে বিষয়টি জানানোর পর পুলিশ ও ডিবির কয়েক দল ঝিলমিল আবাসন প্রকল্প এলাকাসহ আশপাশের সব এলাকা ঘিরে ফেলে। অভিযানের এক পর্যায়ে ছিনতাইকারীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়লে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। এক পর্যায়ে ২ জন গুলিবিদ্ধসহ ৪ দুর্বৃত্তকে গ্রেফতার করে পুলিশ। উদ্ধার করা হয় ছিনতাই করা ১৫ লাখ টাকা। ছিনতাইকারীদের এক সদস্য এ সময় বাকি টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়।

অপহরণের শিকার জালাল জানান, টুডে ইন্টারন্যশনাল মানি এক্সচেঞ্জ নামে এক প্রতিষ্ঠানে তিনি চাকরি করেন। রবিবার বিকাল ৫টার দিকে মতিঝিলের একটি ব্যাংক থেকে প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে ৪০ লাখ টাকা তুলে এক পার্টিকে দিতে যাচ্ছিলেন। এ সময় র‌্যাবের পোশাক পরিহিত কয়েক ব্যক্তি অস্ত্র হাতে মামলার কথা বলে তাকে এলোপাতাড়ি মারতে মারতে একটি মাইক্রোতে তুলে নেয়। অপহরণকারীরা তার চোখ বেঁধে ফেলে। তিনি কিছুই দেখতে পাচ্ছিলেন না। প্রায় ৩ ঘণ্টা পর ৪০ লাখ টাকা ও মোবাইল রেখে কেরানীগঞ্জের একটি জায়গায় (ঝিলমিল আবাসন প্রকল্প) তাকে গাড়ি থেকে নামিয়ে দেয়। সেখান থেকে তিনি দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় এসে পুলিশকে ঘটনাটি জানান।

নির্বাচিত সংবাদ