১৩ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

শিক্ষার্থীদের আইটি প্রশিক্ষণের দেবে যুক্তরাজ্য ভিত্তিক ইওয়াই

অনলাইন ডেস্ক ॥ বিশ্ব ব্যাংকের অর্থায়নে পরিচালিত একটি প্রকল্পের অধীনে যুক্তরাজ্য ভিত্তিক আর্নস্ট এন্ড ইয়াং (ইওয়াই) বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় এবং রংপুরের অপর তিনটি কলেজের শিক্ষার্থীদের তথ্যপ্রযুক্তি (আইটি) প্রশিক্ষণ দেবে।

কলেজ তিনটি হলো- কারমাইকেল কলেজ, রংপুর সরকারি কলেজ এবং বেগম রোকেয়া সরকারি কলেজ।

বিজ্ঞান, কম্পিউটার সাইন্সের শিক্ষার্থীদের গ্রাজুয়েট এবং পোস্ট গ্রাজুয়েটদের আইটি প্রশিক্ষণ প্রদানের জন্য লিভারেজিং আইসিটি প্রকল্প, ইওয়াই এবং বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে একটি ত্রিপক্ষীয় সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর হয়।

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ কে এম নূর-উন-নবী এবং এলআইসিটি প্রকল্প ম্যানেজমেন্ট বিষেশজ্ঞ সরকার আবুল কামাল আজাদ ও ইয়াই’র প্রকল্প ম্যানেজার রঞ্জন সুকলা তাদের নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন। এর তিনটি কলেজের অধ্যাপকগণ তিনটি পৃথক সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগের গ্রোথ, এ্যামপ্লয়মেন্ট ও গভর্ন্যন্স (এলআইসিটি) বিষয়ক লেভারজিং আইসিটি ৩০ হাজার শিক্ষার্থীকে আন্তর্জাতিক মানের আইটি প্রশিক্ষণ প্রদানের জন্য ইওয়াইকে নিয়োগ দিয়েছে।

দশ হাজার বিজ্ঞান, সিএস এবং সিএসই গ্রাজুয়েট ও পোস্ট গ্রাজুয়েটদের টপ আপ আইটি ট্রেনিং এবং ২০ হাজার উচ্চ মাধ্যমিকের শিক্ষার্থীদের প্রশিক্ষণ দেয়া হবে।

সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরের পর আবুল কালাম আজাদ বলেন, প্রশিক্ষণের মুখ্য উদ্দেশ্য হলো মানসম্পন্ন প্রশিক্ষণের মাধ্যমে ৩০ হাজার আইটি প্রফেসনাল সৃষ্টি করা। তিনি বলেন, দক্ষ আইটি জনশক্তির অভাবে বাংলাদেশ আইটি ইন্ডাস্ট্রি পিছিয়ে রয়েছে। দেশের আইটি ইন্ডাস্ট্রিতে দক্ষ জনশক্তির স্বল্পতা পূরণে এলআইসিটি প্রকল্প প্রশিক্ষণ কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

ইওয়াই ডিসেম্বরের শেষ নাগাদ ৩ হাজার তরুণকে ফাউন্ডেশন প্রশিক্ষণ দেয়ার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে।

চুক্তি অনুযায়ী ইওয়াই দেশে ও বিদেশে আইটি প্রতিষ্ঠানে দশ হাজার টপ আপ প্রশিক্ষিত তরুণদের মধ্যে ৬০ ভাগের চাকরি দেবে। বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির কক্ষে শনিবার এই ত্রিপক্ষীয় সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়।