১৬ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আহসানউল্লাহ মাস্টার হত্যাকান্ডের সাথে খালেদা-তারেক সরাসরি জড়িত : আশরাফ

নিজস্ব সংবাদদাতা, টঙ্গী ॥ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জনপ্রশাসন মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন, খালেদা জিয়া এবং তার পুত্র তারেক জিয়াই আহসান উল্লাহ মাস্টার হত্যাকান্ডের সাথে সরাসরি জড়িত। সময় এবং সুযোগ মত হত্যাকান্ডের জন্য মা-পুত্রের বিচারের সম্মুখীন করা হবে। সোমবার সন্ধ্যায় আশরাফুল ইসলাম টঙ্গী সফিউদ্দিন কলেজ মাঠে শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার এমপির ৬৫তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত এক জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, কোন সভ্যসমাজে হত্যাকারীদের উৎসাহ দেয় না। কিন্তু খালেদা এবং তারেক জিয়া একের পর এক হত্যাকান্ড ঘটিয়ে চলেছে এ বাংলাদেশে। তাদের কাউকে ক্ষমা করা হবে না। বাংলাদেশে প্রত্যেক হত্যাকান্ডেরই বিচার করা হবে।

টঙ্গী থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা মোঃ ফজলুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের পুত্র ও যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ জাহিদ আহসান রাসেল এমপি, গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব এড. আজমত উল্লা খান, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন এর ভারপ্রাপ্ত মেয়র আসাদুর রহমান কিরণ, গাজীপুর জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আলহাজ্ব কাজী মোজাম্মেল হক, গাজীপুর সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আতাউল্লাহ মন্ডল, গাজীপুর শহর আওয়ামীলীগ সভাপতি এড. ওয়াজ উদ্দিন মিয়া, গাজীপুর জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক ও শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের ছোট ভাই মোঃ মতিউর রহমান মতি, যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক মোঃ সাইফুল ইসলাম, জেলা আওয়ামীলীগ নেতা বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রউফ নয়ন, টঙ্গী থানা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা মোঃ জয়নাল আবেদীন, যুগ্ম-সম্পাদক কাজী ইলিয়াস আহম্মেদ, গাজীপুর মহানগর কৃষকলীগ সভাপতি ও কাউন্সিলর হেলাল উদ্দিন, কাউন্সিলর নূরুল ইসলাম নূরু, গাজীপুর মহানগর যুবলীগের আহ্বায়ক রাসেল সরকার, যুগ্ম আহ্বায়ক এম.এ সাত্তার মোল্লা, মহানগর মহিলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক নিলিমা আক্তার লিলি প্রমুখ।

উল্লেখ্য, গাজীপুরের সংসদ সদস্য আহসান উল্লাহ মাস্টার ২০০৪ সালের ৭ মে তৎকালীন বিএনপি জামায়াত জোট সরকারের আমলে সন্ত্রীরা দিনদুপুরে জনসভার মঞ্চে তাকে গুলি করে হত্যা করা হয়।