১৫ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আজ নূর হোসেন দিবস

আজ নূর হোসেন দিবস

স্টাফ রিপোর্টার ॥ শহীদ নূর হোসেন দিবস আজ। বাংলাদেশে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে আন্দোলন-সংগ্রামের এক অবিস্মরণীয় দিন। ১৯৮৭ সালের এই দিনে পুলিশের গুলিতে শহীদ হন তিনি। দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন। বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াও পৃথক বাণী দিয়েছেন।

রাষ্ট্রপতি তার বাণীতে বলেন, তিনি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করেন বাংলাদেশের মাটিতে নূর হোসেনের মতো সাহসী মানুষ যতদিন বেঁচে থাকবে, এদেশের গণতন্ত্র ততদিন বাধাগ্রস্ত হবে না। প্রধানমন্ত্রী বাণীতে বলেন, নূর হোসেনের আত্মত্যাগ তৎকালীন স্বৈরশাসনের বিরুদ্ধে গণতন্ত্রকামী মানুষের আন্দোলনকে বেগবান করে।

১৯৮৭ সালের ১০ নবেম্বর সকাল থেকেই সচিবালয়ের চারদিকে আন্দোলনকারী ছাত্র-জনতার মিছিল সমবেত হয়। তখন তোপখানা রোডের মুখে পুলিশ বক্স পেরিয়ে শুরু হয় নূর হোসেনদের সাহসী মিছিল, সাহসী যুবক উদাম গায়ে লিখেছিল ‘গণতন্ত্র মুক্তিপাক-স্বৈরাচার নিপাত যাক’। সমাবেশ শুরুর সঙ্গে সঙ্গে শুরু হয় পুলিশের বেধড়ক লাঠিচার্জ, টিয়ারগ্যাস নিক্ষেপ। পল্টন তখন রণক্ষেত্র। এরই মধ্যে খবর আসে পুলিশের গুলিবর্ষণে শহীদ হয়েছেন নূর হোসেন। আহত হয়েছেন অসংখ্য। নূর হোসেন আত্মদানের মাধ্যমে সেদিন গণতন্ত্রের নতুন সংগ্রাম শুরু হয়। সেই সংগ্রামের ধারায় ১৯৯০ সালের ৪ ডিসেম্বর স্বৈরাচারী শাসক পদত্যাগের ঘোষণা দেয়।

দিবসটি উপলক্ষে প্রতিবছরের মতো এবারও আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন বিস্তারিত কর্মসূচী গ্রহণ করেছে। কর্মসূচীর মধ্যে রয়েছে শহীদের মাজারে পুষ্পস্তবক অর্পণ, শহীদ নূর হোসেন স্কয়ারে শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন, আলোচনা সভা, সেমিনার, বিশেষ মোনাজাত প্রভৃতি।

শহীদ নূর হোসেন দিবস উপলক্ষে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে আজ মঙ্গলবার সকাল ৭টায় শহীদ নূর হোসেন স্কোয়ারে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হবে। এ সময়ে তার রুহের মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত হবে। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম এক বিবৃতিতে ‘শহীদ নূর হোসেন দিবস’ যথাযোগ্য মর্যাদার সঙ্গে পালনের জন্য সংগঠনের সকল শাখাসহ সর্বস্তরের জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। এছাড়া জাসদ, ওয়ার্কার্স পার্টি, বাসদসহ বিভিন্ন বাম রাজনেতিক দলের পক্ষ থেকে বিভিন্ন কর্মসূচী নেয়া হয়েছে।

স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনের অন্যতম সৈনিক আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা শফি আহমেদ জনকণ্ঠ’কে বলেন, গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য ১৯৮৭ সালে নূর হোসেন নিজের জীবন বিলিয়ে দিয়েছিল। কিন্তু সেই আন্দোলনে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে লক্ষ্য করে এরশাদের নির্দেশে গুলি চালিয়েছিল পুলিশ। তাদের মূল লক্ষ্য নূর হোসেন নয়, শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্য ছিল। তিনি বলেন, এখন রাজনীতির রঙ্গমঞ্চে এরশাদ দিব্যি পদচারণা করে যাচ্ছেন। অথচ সেই হত্যাকা-ের অপরাধে তাকে এখনও জেলে থাকার কথা।

শহীদ নূর হোসেনের স্বপ্ন এখনও সফল হয়নি- খালেদা ॥ স্বৈরাচারবিরোধী গণতান্ত্রিক আন্দোলনে শহীদ নূর হোসেনের স্বপ্ন এখনও পুরোপুরি সফল হয়নি বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া। শহীদ নুর হোসেন দিবস উপলক্ষে সোমবার সংবাদমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ মন্তব্য করেন।

দলের মুখপাত্র ড. আসাদুজ্জামান রিপন স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে খালেদা জিয়া বলেন, যে স্বপ্ন চোখে নিয়ে নুর হোসেন জীবন উৎসর্গ করেছিলেন, তার সে স্বপ্ন আজও পুরোপুরি সফল হয়নি। গণতন্ত্র আবার শৃঙ্খলিত হয়েছে অভিযোগ করে তিনি বলেন, দেশ থেকে গণতন্ত্রকে চিরতরে নির্বাসনে দেয়ার ষড়যন্ত্র চলছে। একতরফা নির্বাচনের মাধ্যমে একদলীয় সরকার ব্যবস্থা কায়েমের গোপন চক্রান্ত এখন স্পষ্ট হয়ে উঠেছে। ‘গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের সংগ্রামে শহীদ নুর হোসেন আমাদের প্রেরণা। তার দৃষ্টান্ত অনুসরণ করে একটি মুক্ত গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ ফিরে পেতে আমাদের সচেষ্ট হতে হবে,’ বলেন খালেদা জিয়া।

সকাল সাড়ে ৮টায় রাজধানীর জিরো পয়েন্টে শহীদ নুর হোসেন চত্বরে শহীদ নুর হোসেন স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করবে বিএনপি। কর্মসূচীতে দলের অঙ্গসংগঠন ও সহযোগী সংগঠনের সকল পর্যায়ের নেতা-কর্মীকে যথাসময়ে শহীদ নুর হোসেন চত্বরে উপস্থিত থাকার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে।