২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

স্বপ্নের পথে এক অভিনয় শিল্পী

সংস্কৃতি ডেস্ক ॥ আমাদের দেশে সম্ভবত মধ্যবিত্ত ঘরের সন্তানরাই মিডিয়ার কাজের প্রতি দুর্বল থাকে বেশি। ছোটবেলা থেকে রেডিও টিভিতে নাটক দেখে, গান শুনে এই অঙ্গনে নিজেকে জড়ানোর স্বপ্ন দেখে। এক সময় সেই স্বপ্ন পূরণের জন্য চলে আসে দেশের নাগরিক সুবিধার কেন্দ্রবিন্দু রাজধানী ঢাকায়। তবে স্বপ্ন পথের যাত্রীদের দু’একজন ছাড়া প্রায় সবাই হারিয়ে যায় নানা কারণে। তেমনি একজন স্বপ্নবাজ তরুণ অভিনেতা আহমেদ সাজু। কুড়িগ্রামের সন্তান আহমেদ সাজুর বাবা ছিলেন বাউল শিল্পী। শিল্পীর ঘরে জন্ম হওয়ায় বাবা মায়ের স্বপ্ন পূরণ ও নিজের পছন্দের কাজ হিসেবে বেছে নেন অভিনয়। কুড়িগ্রামের রৌমারি সি জি জামান স্কুল থেকে এসএসসি পাস করার পর টাঙ্গাইল লায়ন নজরুল কলেজ থেকে ইন্টারমিডিয়েট পাস করেন। এর পর অনার্স মাস্টার্স শেষ করে নিয়মিত অভিনয় শুরু করেন। ঢাকায় এসে প্রথমে অবয়ব থিয়েটারে কাজ করছেন। এ ছাড়া নাচ গান আবৃত্তি ও কারাতেও দখল রয়েছে তার। অভিনয়ের ধারাবাহিকতায় কিছু টিভি নাটকে অভিনয় করেছেন আহমেদ সাজু। উল্লেখযোগ্য কাজগুলোর মধ্যে রয়েছে ইমদাদুল হক মিলন রচিত চ্যানেল আইয়ে প্রচারিত ধারাবাহিক ‘নূরজাহান’, লিটু করিমের ‘যৈবতি কইন্যা’, ‘মন দরজা’, হারুন অর রশিদের ‘গ্রীন সিগন্যাল’, ‘তাল কানা’, ‘জলপথ’ নাটকে কাজ করছেন। আগামী ২২ নবেম্বর থেকে আরটিভিতে প্রচার শুরু হবে আকিদুল ইসলাম রচিত ও পরিচালিত ধারাবাহিক নাটক ‘দুরের বাড়ি কাছের মানুষ’। এ নাটকে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করছেন তিনি। এছাড়া কিছু খ নাটকে অভিনয় করেছেন। এর মধ্যে ‘রঙ তামাশা’, ‘বকুল ভাবি’, ‘প্রেম জানে না রসিক কালা চাঁদ’, ‘নীল অধ্যায়’, ‘শালা ভার্সেস দুলাভাই’ প্রভৃতি। এছাড়া ওয়াহিদ আনামের বাংলালিংক এম এফ ইউ ও ড্যানিশ মিল্কের বিজ্ঞাপনে কাজ করেছেন। বর্তমানে সফিউল আজম শফিক পরিচালিত মুক্তিযুদ্ধের ওপর নির্মিত ‘উদীয়মান সূর্য’ চলচ্চিত্রে কাজ করছেন। বাস্তুববাদী এ্যাকশনধর্মী কাজগুলো করতে বেশি ভাল লাগে আহমেদ সাজুর। তিনি বলেন, আমি নজরুলের মতো প্রতিবাদী তাই নজরুল চেতনায় বিশ্বাসী। একজন ভাল মানুষ হিসেবে একজন ভাল শিল্পী হতে চাই। ভাল অভিনেতা হতে চাই। নিষ্ঠাবান অভিনয় শিল্পী আহমেদ সাজুর জন্য শুভ কামনা।