২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বিএনপির সঙ্গে কোন সমঝোতা নয় ॥ নাসিম

স্টাফ রিপোর্টার ॥ স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, বিএনপির সঙ্গে কোন আলোচনা বা সমঝোতা নয়। খালেদা জিয়ার দল লড়াইয়ে বিশ্বাসী নয়, তারা পালিয়ে যায়। কিন্তু আওয়ামী লীগ লড়াইয়ে বিশ্বাস করে। এ লড়াই হবে ২০১৯ সালের নির্বাচনে।

মঙ্গলবার রাজধানীর ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জনিয়ার্স বাংলাদেশ (অইডিইবি) ভবনে গণপ্রকৌশল দিবস ’১৫ ও আইডিইবির ৪৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত ‘বিল্ড স্কিল বাংলাদেশ’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, কার সঙ্গে সমঝোতা বা আলোচনা করব? এগুলো তো আসলে চটকদার কথা। এর মাধ্যমে কোন সমস্যার সমাধান আসে না। সংবাদ মাধ্যমে শুধু হেডলাইন হয়। বাংলাদেশের ইতিহাসে ’৯২-এর পর কোন সংলাপ সফল হয়নি। আমাদের চিন্তা-চেতনা ও ওনাদের চিন্তা-চেতনার মধ্যে বিস্তর ফারাক। যুদ্ধাপরাধীদের বিচার ও বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার প্রসঙ্গে ওনারা একমত হবেন না। তিনি মনে করেন তার বন্ধু একাত্তরের ঘাতক দালালরা। আমরা কোন আলোচনা বা সমঝোতা করব না। নির্বাচনের মাধ্যমেই সবকিছু নির্ধারিত হবে। আর ২০১৯ সালের আগে কোন নির্বাচন হবে না।

নাসিম বলেন, আমাদের লক্ষ্য ’৭১-এর ঘাতকদের দ- কার্যকর করা। বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া ও তার স্বামী জিয়াউর রহমান একাত্তরের খুনীদের প্রশ্রয় দিয়েছেন। খালেদা মনে করেন, একাত্তরের ঘাতক জামায়াত-শিবির তাদের বন্ধু। তাই তাদের সঙ্গে কোন আলোচনা হতে পারে না।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকা বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিমকে উদ্দেশ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, সেলিম ভাই অনেক ভাল কথা বলেন। তবে কথাগুলো একটু ঠিকভাবে বললেই হয়। আমরা চাই আমাদের সমালোচনা হোক। আপনি জাতীয় সংসদে এসে কড়া ভাষায় আমাদের সমালোচনা করুন।

এ সময় বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বিদেশী অশুভ শক্তিকে উদ্দেশে করে বলেন, পাকিস্তানীদের গোলামী (শাসন) থেকে নিজেদের রক্ষা করেছি, নতুন করে আমেরিকার গোলামী করার জন্য নয়। তিনি আরও বলেন, দক্ষতা কোন বিমূর্ত ধারণা নয়, দক্ষতার জন্য আদর্শ একটি বড় বিষয়। শ্রমিকদের আকাক্সিক্ষত শ্রমের মর্যাদা প্রতিষ্ঠা করতে সামাজিক ও অর্থনৈতিক মর্যাদা প্রতিষ্ঠা করতে হবে।

আলোচনা সভায় স্বাগত্য বক্তব্য রাখেন আইডিইবির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোঃ শামসুর রহমান। সংগঠনের সভাপতি এ কে এম হামিদের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন সাবেক শিক্ষামন্ত্রী শেখ শহীদুল ইসলাম, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) কার্যকরী সভাপতি মঈন উদ্দীন খান বাদল প্রমুখ।

নির্বাচিত সংবাদ