১৯ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মিসবাহর ভাবনাজুড়ে বিপিএল

  • ‘ছাড়পত্র’ পাচ্ছেন না কেন্দ্রীয় চুক্তিতে থাকা লঙ্কান ক্রিকেটাররা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বয়স বিয়াল্লিশের কোঠায়। ইতোমধ্যে ওয়ানডে ছেড়েছেন, টেস্ট থেকেও অবসর নেয়ার দ্বারপ্রান্তে। অথচ দরজায় কড়া নাড়া বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ (বিপিএল, টি২০) নিয়ে রোমাঞ্চিত মিসবাহ-উল হক। সাদা পোশাকের পাকিস্তান অধিনায়কের ভাবনাজুড়ে এখন কেবলই বিপিএল। অন্যদিকে ঝামেলায় পড়েছেন লঙ্কান ক্রিকেটাররা। বিপিএলে খেলতে কেন্দ্রীয় চুক্তিতে থাকা ক্রিকেটারদের নো অবজেকশন সার্টিফিকেট (এনওসি- ছাড়পত্র) দিচ্ছে না শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড (এসএলসি)। মঙ্গলবার এসএলসির পক্ষ থেকে এ খবর জানানো হয়। ঘরোয়া প্রিমিয়ার লীগ এবং আসন্ন নিউজিল্যান্ড সফরের জন্যই মূলত লঙ্কান কর্তাদের এমন সিদ্ধান্ত। এতে বিপিএলের জৌলুস অনেকটাই কমে যাবে। কারণ দেশটির জনপ্রিয় ক্রিকেটারের অনেকেই এসএলসির কেন্দ্রীয় চুক্তির আওতায় রয়েছেন।

‘আমি খেলাটা চালিয়ে যেতে চাই, ধরে রাখতে চাই ফিটনেস। প্রেরণারও একটা বিষয় আছে। যখনই দেশের হয়ে ডাক পড়ুক, খেলাটা আমি খেলতে চাই প্রস্তুতি নিয়েই। কারণ আমি ক্রিকেট ভালবাসি। বাংলাদেশের বিপিএল নিয়ে সত্যি রোমাঞ্চিত আমি। এটা দারুণ এক জনপ্রিয় টুর্নামেন্ট। যেখানে অংশ নিয়ে আমি ফিটনেস ও ফর্ম ধরে রাখতে পারব।’ বলেন মিসবাহ। বিপিএলের এবারের আসরে সাকিব আল হাসানের দল রংপুর রাইডার্সের হয়ে খেলার জন্য ইতোমধ্যেই চুক্তি সেরেছেন তিনি। আমিরাতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের সফল পরিসমাপ্তির পর মিসবাহর হাতে এখন অফুরন্ত সময়। আগামী ফেব্রুয়ারি-মার্চে পাকিস্তানের ঘরোয়া ক্রিকেটেরও অনেক পরে ইংল্যান্ড সফর। মিসবাহ আরও যোগ করেন,‘ ‘ছয়-সাত মাস আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেট নেই। আমি খেলার বাইরে থাকলাম দীর্ঘদিন, আর প্রস্তুততি ছাড়াই নেমে গেলাম বিশ্বমানের খেলোয়াড়দের বিপক্ষে, সেটা সম্ভব নয়। তাই এই সময়টা নিজেকে অনুপ্রাণিত করা খুব জরুরী।’ ওদিকে মঙ্গলবারই লঙ্কান ক্রিকেটারদের ওপর বিধি নিষেধ আরোপ করে এসএলসি।

‘আমরা কেন্দ্রীয় চুক্তিতে থাকা খেলোয়াড়দের ছাড়তে পারছি না। কারণ নিউজিল্যান্ড সফর ২৭ নবেম্বর। আর বিপিএল ২২ নবেম্বর থেকে। তার আগে আমাদের ঘরোয়া ক্রিকেটও রয়েছে।’ বলেন শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট অপারেশন ম্যানেজার কার্লটন বার্নাডস। যদিও বিপিএল কর্তা নিজাউদ্দিন চৌধুরী এখনও আশাবাদী! শেষ পর্যন্ত লঙ্কান ক্রিকেটাররা না এলে জৌলুস কমবে বিপিএলের। কারণ অজন্তা মেন্ডিস, লাহিরু থিরিমান্নে, উপুল থারাঙ্গা, সচিত্র সেনানায়েকে, জীবন মেন্ডিস, মিলিন্দা শ্রীবর্ধনের মতো তারকা ক্রিকেটার দেশটির কেন্দ্রীয় চুক্তির মধ্যে রয়েছেন। এর মধ্যে ‘বিশেষ’ পরমিশন পাবেন জীবন মেন্ডিস।