১৫ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রূপগঞ্জে ১৪ কিমি যানজট ॥ ভোগান্তি

নিজস্ব সংবাদদাতা, রূপগঞ্জ, ১০ নবেম্বর ॥ নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক ও এশিয়ান হাইওয়ে (বাইপাস) সড়কে দীর্ঘ প্রায় ১৪ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। এতে যাত্রীবাহী বাসসহ শত শত মালবাহী যানবাহন আটকা পড়েছে। দুটি মহাসড়কে ঘণ্টার পর ঘণ্টা যানজটে আটকা পড়ে ভোগান্তির শিকার হয়েছেন যাত্রীসাধারণ। মঙ্গলবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত উপজেলার ভুলতা ও গোলাকান্দাইল এলাকা থেকে এ যানজটের সৃষ্টি হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী, পরিহন শ্রমিক ও স্থানীয় সূত্র জানায়, এশিয়ান হাইওয়ে (বাইপাস) সড়ক ও ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক ভেঙ্গে বড় বড় গর্ত ও ভাঙ্গার সৃষ্টি হয়েছে। কোন স্থান দিয়ে যানবাহন চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। আর এ সড়ক দিয়ে চলাচল করতে গিয়ে ছোট-বড় যানবাহনগুলো সড়কেই বিকল হয়ে পড়ছে। তারপর আবার কাঞ্চন সেতুতে অতিরিক্ত টোল আদায় ও টোল আদায়ে ধীরগতি। প্রায়ই পরিবহন শ্রমিকদের সঙ্গে টোল কর্তৃপক্ষের বাকবিত-া ও মারপিটের ঘটনা ঘটছে। বিভিন্ন কারণে দুটি মহাসড়কে এখন যানজট নিত্যদিনের। এছাড়া মঙ্গলবার গাউছিয়া কাপড়ের বাজার। হাজার হাজার ক্রেতা-বিক্রেতার আগমন ঘটে এ বাজারে। যত্রতত্র যানবাহন দাঁড় করিয়ে মালামালসহ যাত্রী উঠানামা করে থাকে। এ থেকেই যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। রূপগঞ্জ থানা পুলিশ, ট্রাফিক পুলিশ ও কাঁচপুর হাইওয়ে থানা পুলিশ সদস্যরা যানজট নিরসন করতে অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। এদিকে, সিলেট বিভাগ, চট্টগ্রাম বিভাগের মালবাহী যানবাহনগুলো এশিয়ান হাইওয়ে (বাইপাস) সড়কযোগে খুলনা বিভাগ, রাজশাহী বিভাগসহ বিভিন্ন জেলায় চলাচল করে থাকে। এতে এ সড়কটি সব সময়ই ব্যস্ত থাকে।

ট্রাফিক পুলিশের ইন্সপেক্টর বেনজির আহাম্মেদ বলেন, ধুলাবালি খেয়ে যানজট নিরসনে কাজ করে যাচ্ছি। কোন প্রকার নিয়মনীতি না মেনে ছোট-বড় সব ধরনের যানবাহন চলাফেরা করছে। তারা আইন ভঙ্গ করছে। আইন ভঙ্গকারী বেশ কয়েকটি যানবাহনকে মামলা দেয়া হয়েছে। তারপরও যানবাহন চালকরা সচেতন হলে যানজট হতো না বলে তিনি দাবি করেন।

চট্টগ্রামে দুই লাশ নিয়ে পিবিআই বিপাকে

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ দুটি বেওয়ারিশ লাশ নিয়ে বিপাকে পড়েছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। গত বছরের ৫ ডিসেম্বর হাটহাজারী উপজেলা এবং চলতি বছরের ২৯ জানুয়ারি রাউজান উপজেলা থেকে এ দুটি লাশ উদ্ধার করা হলেও এখন পর্যন্ত কোন নাম ঠিকানা পাওয়া যায়নি। পিবিআই সূত্র জানায়, গত বছরের ৫ ডিসেম্বর বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে চট্টগ্রাম জেলার হাটহাজারী থানাধীন মধ্যম মার্দাশা উত্তর পাড়া নামকস্থানে সøুইস গেট এলাকা থেকে চোখ বাইরে থাকা ও চামড়া খসে পড়া লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় চলতি বছরের ৩ মার্চ মাসে হাটহাজারী থানায় মামলা দায়ের হয়। দীর্ঘ ছয় মাস যাবত জেলা পুলিশ এ মামলার তদন্ত করে। বাইরে থাকা নাম ঠিকানা উদ্ঘাটন করতে না পারায় তারা গত ১১ সেপ্টেম্বর পুলিশ হেডকোয়ার্টাসের অনুমতিক্রমে পিবিআই এর কাছে তদন্তভার ন্যস্ত করে। অপরদিকে, চলতি বছরের ২৯ জানুয়ারি রাউজান উপজেলার মুখছুড়ি রাবার বাগানের নির্জন পাহাড়ের ঢালে অজ্ঞাত নারীর অর্ধগলিত মৃতদেহ উদ্ধার করে রাউজান থানা পুলিশ।

নওগাঁয় চালক খুন করে মাইক্রোবাস ছিনতাই

নিজস্ব সংবাদদাতা, নওগাঁ, ১০ নবেম্বর ॥ সোমবার সন্ধ্যায় নওগাঁ থেকে ভাড়ায় যাওয়া নিখোঁজ মাইক্রোবাস চালক রহিদুল ইসলামের (৩০) মরদেহ জেলার রানীনগর উপজেলার বড়গাছা ত্রিমোহানী থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। রবিবার রাতে যাত্রীবেশী খুনীরা চালক রহিদুলকে হত্যা করে হাত, পা ও মুখ বেঁধে গ্রামের ত্রিমোহনী খালে ফেলে রেখে সাদা রংয়ের মাইক্রোবাস (নং-ঢাকা মেট্রো-চ-৫৩৮৪৬৪) ছিনতাই করে নিয়ে যায়। এর পর থেকে মাইক্রোসহ রহিদুল ইসলাম নিখোঁজ হয়।