২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

অনলাইন ব্যাংকিং সিস্টেমে ভ্যাট প্রদান করা যাবে

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ ব্যাংকিং চ্যানেলের অত্যাধুনিক ইলেকট্রনিকস পেমেন্ট সিস্টেম ব্যবহার করে সহজেই মূল সংযোজন কর (ভ্যাট বা মূসক) পরিশোধ করা যাবে। ভ্যাট প্রক্রিয়ায় অটোমেশন চালু হলে এটিএম কার্ড, মোবাইল ব্যাংকিং ও ই-ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে ঘরে বসে সহজেই ভ্যাট দিতে পারবেন গ্রাহকরা। বিষয়টি নিয়ে গতকাল বাংলাদেশ ব্যাংকের সঙ্গে বৈঠক করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) প্রতিনিধিদল।

সূত্র জানায়, ২০১৬ সালের জুলাই থেকে নতুন ভ্যাট আইন কার্যকর হচ্ছে। আইন কার্যকর করার জন্য পুরো প্রকিয়াকে অটোমেশনের আওতায় আনতে হবে। ভ্যাট নিবন্ধন, ভ্যাটের ফরম পূরন ও জমা দান, নির্ধারিত ভ্যাট পরিশোদ সব কিছুি অনলাইনের মাধ্যমে করতে হবে। সম্পূর্ণ অটোমেশন করতে বিশ্বব্যাংকের সহায়তায় ৫৫১ কোটি টাকার একটি প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে এনবিআর। এ প্রকল্পের আওতায় ভ্যাট অনলাইন কার্যক্রম সম্পন্ন করা হবে। এ জন্য প্রয়োজনীয় সফটওয়্যার, হার্ডওয়্যার, নেটওয়ার্কিং ও ম্যানেজড সার্ভিসেসসহ অন্যান্য উপকরণ নিয়ে দ্রুত প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

ই-পেমেন্ট সিস্টেমে কিভাবে অনলাইনে ভ্যাট পরিশোধ করা যায় এ পদ্ধতি নিয়ে আলোচনা করতে গতকাল বাংলাদেশ ব্যাংকে যায় এনবিআর প্রতিনিধিদল। এনবিআরের প্রথম সচিব আব্দুর রহমান খানের নেতৃত্বে ওই প্রতিনিধি দল বাংলাদেশ ব্যাংকের পেমেন্ট সিস্টেমস বিভাগের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করে। বৈঠকে ই-পেমেন্ট সম্পর্কিত বিভিন্ন বিষয় সফটওয়্যার, নেটওয়ার্ক, ব্যাংকগুলোর সঙ্গে চুক্তি, লেনদেনের চার্জ ইত্যাদি বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ১৯৯১ সালে তখনকার অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমান ভ্যাট আইন চালু করেন। শুরুতেই ভ্যাট আইন নিয়ে নানা জটিলতা ও সমালোচনা দেখা দেয়। ভ্যাট প্রক্রিয়ায় স্বচ্ছতা আনয়নের জন্য আইএমএফ ও বিশ্বব্যাংকের পরামর্শ, দিক নির্দেশনা ও আর্থিক সহায়তায় নতুন ভ্যাট আইন সংসদে পাস হয়েছে। নতুন ভ্যাট আইনে সব ক্ষেত্রে ১৫ শতাংশ হারে ভ্যাট আরোপ করার কথা বলা হয়েছে।