২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ডিএসইতে ৫৯ ভাগ কোম্পানির দর কমেছে

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ দেশের দুই পুঁজিবাজারে বুধবার মূল্য সূচকের পতনে লেনদেন শেষ হয়েছে। এদিন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) তুলনায় লেনদেন কমলেও বেড়েছে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই)। এদিন ডিএসইতে ৫৮ দশমিক ৯২ বা প্রায় ৫৯ ভাগ কোম্পানির দরপতন হয়েছে।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, বুধবার ডিএসইতে ২৫৫ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে; যা আগের দিনের চেয়ে ৩৯ কোটি টাকা বা ১৩ দশমিক ২৮ শতাংশ কম লেনদেন। আগের দিন এ বাজারে লেনদেন হয়েছিল ২৯৪ কোটি টাকার শেয়ার। ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয় ৩১৪টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ড। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৯৫টির, কমেছে ১৮৫টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৪টির শেয়ার দর।

এদিকে বাজারে ধারাবাহিক দরপতন হলেও পরিস্থিতি উত্তরণে কোন উদ্যোগ নেই। বাজারের স্থিতিশীলতা ফিরিয়ে আনার জন্য বিনিয়োগকারীরা ক্ষীণ কণ্ঠে ডিএসইর সামনে বিক্ষোভ করে আসছে। কিন্তু তাতেও কোন লাভ হচ্ছে না। ক্রমাগত দরপতনে শেয়ারবাজার ‘মৃতপ্রায়’ অবস্থায় এসে পৌঁছলেও নিয়ন্ত্রক সংস্থাগুলো নীরব ভূমিকা পালন করছে। বিনিয়োগকারীদের অভিযোগ, অভিভাবকহীন অবস্থায় পড়েছে দেশের পুঁজিবাজার। ক্রমাগত দরপতনে বিনিয়োগকারীরা তাদের পুঁজি হারাচ্ছেন। কিন্তু কেউ এদিকে নজর দিচ্ছে না।

সকালে ইতিবাচক প্রবণতা দিয়ে শুরুর পরে ডিএসইএক্স বা প্রধান মূল্য সূচক ৩৯ পয়েন্ট কমে ৪ হাজার ৩৭১ পয়েন্টে অবস্থান করছে। ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ১১ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে এক হাজার ৫৪ পয়েন্টে। ডিএস৩০ সূচক ১৬ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৬৬৪ পয়েন্টে।

ডিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে থাকা দশ কোম্পানি হলো : তিতাস গ্যাস, সাইফ পাওয়ারটেক, ইফাদ অটোস, বেক্সিমকো, স্কয়ার ফার্মা, কেডিএস এক্সেসরিজ, ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন এ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট লিমিটেড, বেক্সিমকো ফার্মা এবং বিএসআরএম স্টিলস লিমিটেড। বুধবার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) ২২ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এদিন সিএসই সার্বিক সূচক ৯৭ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৩ হাজার ৩৭১ পয়েন্টে। সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২৪১টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৫৫টির, কমেছে ১৪৮টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৮টির।

সিএসইর লেনদেনের সেরা কোম্পানিগুলো হলো : আরএকে সিরামিক, ইফাদ অটোস, তিতাস গ্যাস, বেক্সিমকো, বিএসআরএম স্টিল, কেডিএস এক্সেসরিজ, সাইফ পাওয়ার টেক, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, ইউনাইটেড পাওয়ার ও খুলনা পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড।