২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

স্থানীয় সরকার নির্বাচন আইন সংশোধনে বিল উত্থাপন

সংসদ রিপোর্টার ॥ আগামীতে সকল স্থানীয় সরকার নির্বাচন রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীদের জাতীয় নির্বাচনের জন্য সংরক্ষিত প্রতীক নিতে হবে। এই বিধান কার্যকর করতে বিদ্যমান স্থানীয় সরকার আইনগুলো সংশোধনের লক্ষ্যে জাতীয় সংসদে পৃথক চারটি বিল উত্থাপন করা হয়েছে।

বুধবার ডেপুটি স্পীকার মোঃ ফজলে রাব্বী মিয়ার সভাপতিত্বে শুরু হওয়া সংসদ অধিবেশনে বিলগুলো উত্থাপন করেন স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন। বিলগুলো হচ্ছেÑ স্থানীয় সরকার (সিটি কর্পোরেশন) (সংশোধন) বিল-২০১৫, স্থানীয় সরকার (জেলা পরিষদ) (সংশোধন) বিল-২০১৫, স্থানীয় সরকার (উপজেলা পরিষদ) (সংশোধন) বিল-২০১৫ এবং স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) (সংশোধন) বিল-২০১৫। বিলগুলো অধিকতর পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়েছে। বিলের উদ্দেশ্য ও কারণ সংবলিত বিবৃতির ৩ অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে, দীর্ঘদিন ধরে জনগণ ও জনপ্রতিনিধিদের পক্ষ হতে সরাসরি অংশগ্রহণে স্থানীয় সরকার নির্বাচন সম্পন্ন করার দাবি উত্থাপিত হয়ে আসছে। জনগণের গণতান্ত্রিক এই প্রত্যাশার প্রতি গুরুত্ব প্রদান করে রাজনৈতিক দলসমূহের সরাসরি অংশগ্রহণের মাধ্যমে স্থানীয় সরকার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলে দলীয়ভাবে মনোনীত প্রার্থীরা নির্বাচনে অংশ নেয়ার সুযোগ পাবেন। এতে প্রার্থীদের দায়বদ্ধতা সৃষ্টি হবে এবং যথাযথভাবে রাজনৈতিক অঙ্গীকার পালনের সুযোগ সৃষ্টি হবে।

বিলের ৪ অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে, স্থানীয় সরকার আইনে নির্বাচনে প্রার্থিতার জন্য রাজনৈতিক দল কর্তৃক প্রার্থী মনোনয়নের সুযোগ নেই। এজন্য রাজনৈতিক দল মনোনীত প্রার্থী বা স্বতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার বিধান সংযোজন প্রয়োজন। এজন্য আইনের ২ ধারায় রাজনৈতিক দল ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর সংজ্ঞা সুনির্দিষ্ট করা প্রয়োজন। এছাড়া নির্বাচন কমিশন কর্তৃক নির্বাচন পরিচালনার জন্য বিধি প্রণয়ণের প্রয়োজন। এজন্য স্থানীয় সরকার (সিটি কর্পোরেশন) আইন-২০০৯, স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন-২০০৯, স্থানীয় সরকার (উপজেলা পরিষদ) আইন-১৯৯৮ ও স্থানীয় সরকার (জেলা পরিষদ) আইন-২০০০-এর ধারা ২ সংশোধন করাসহ আইনের অপরাপর তিনটি ধারায় প্রয়োজনীয় অনুচ্ছেদ সংশোধনের জন্য এই বিল আনা হয়েছে।