২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের ওপর হামলায় সংসদে উদ্বেগ

সংসদ রিপোর্টার ॥ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের ওপর একের পর এক হামলায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন সাবেক আইনমন্ত্রী সংসদ সদস্য আব্দুল মতিন খসরু। বুধবার জাতীয় সংসদে পয়েন্ট অব অর্ডারে তিনি এটাকে ভাল লক্ষণ নয় বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন।

তিনি মঙ্গলবার ক্যান্টনমেন্ট এলাকায় মিলিটারি পুলিশের ওপর হামলার ঘটনা উল্লেখ করে বলেন, যারা আমাদের নিরাপত্তা দেবে তাদেরই যদি নিরাপত্তা না থাকে তবে জনগণের নিরাপত্তা দেবে কিভাবে? আব্দুল মতিন খসরু বলেন, ক্যান্টনমেন্ট এলাকায় ওই দুর্বৃত্ত মিলিটারি পুলিশের ওপর হামলার দুঃসাহস কিভাবে পেল? তারা পুলিশের ওপর হামলা করছে, পুলিশ মারছে। আবার ক্যান্টনমেন্ট এলাকায় মিলিটারি পুলিশের ওপর হামলা হলো, এটা ভাল লক্ষণ না। তিনি বলেন, সমস্ত গোয়েন্দা সংস্থা দিয়ে তথ্য বের করতে হবে। কেন তারা এটা করছে। এই শক্তিকে চিরতরে নির্মূল করার জন্য যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। এজন্য তিনি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে ব্যবস্থা নেয়ার আহ্বান জানান।

এদিকে, পয়েন্ট অব অর্ডারে সরকারপ্রধানের কাছে বিরোধীদলীয় নেতা বেগম রওশন এরশাদ আন্দোলনরত শিক্ষকদের দাবির মর্যাদাপূর্ণ সমাধান চান। তিনি বলেন, সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারীদের চাকরির একটি নীতিমালা ছিল। সেই নীতিমালার আলোকে শিক্ষকদের পে স্কেল, সিলেকশন গ্রেড ছিল, কিন্তু সেটা বাতিল করা হয়। তিনি বলেন, বর্তমান সরকার অষ্টম পে স্কেল ঘোষণা করেছে। এতে তাদের খুশি হওয়ার কথা ছিল, কিন্তু বিপত্তি অন্য খানে তাদের সিলেকশন গ্রেড, টাইম স্কেল বাতিল করা হয়েছে। এ কারণে তারা আন্দোলন করছে। এতে তাদের সামনে পদোন্নতির আর কোন আশা নেই। যে কারণে তাদের মনে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। এ সময় তিনি নন-এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের এমপিওভুক্ত করার দাবি জানিয়ে বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এর একটা সুরাহা করুন। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করা হলে আন্দোলন বন্ধ হয়ে যাবে।