২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

দরপতনের কারণ সম্পর্কে লিখিত চেয়েছে কমিশন

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ পুঁজিবাজারে দরপতনের কারণ সম্পর্কে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) কাছে লিখিত বক্তব্য চেয়েছে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। বৃহস্পতিবার দুপুরে বিএসইসি কার্যালয়ে বাজার পরিস্থিতি নিয়ে বিএসইসির সঙ্গে ডিএসইর এক বৈঠকে এ লিখিত প্রস্তাব চাওয়া হয়। বৈঠক শেষে ডিএসই ব্যবস্থাপনা পরিচালক স্বপন কুমার বালা বলেন, আমরা বাজারের সাম্প্রতিক পরিস্থিতি নিয়ে বিএসসির সঙ্গে আলোচনা করেছি। ব্যাংকগুলোর অতিরিক্ত বিনিয়োগ সমন্বয় ও এক্সপোজার লিমিটের সংজ্ঞা পরিবর্তনের কারণে বাজারে নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে; আমরা সে বিষয়টি বিএসইসিকে অবহিত করেছি। এ বিষয়ে বিস্তারিত ব্যাখ্যা লিখিত আকারে জমা দেয়ার জন্য বলেছে। শুধু সাম্প্রতিক দরপতনই নয়; ২০১০ সালে ব্যাংকের বিনিয়োগ প্রত্যাহার, ব্যাংকের এক্সপোজার লিমিট পরিবর্তনের ফলে বাজারে কি ধরনের প্রভাব পড়ছে বা পড়েছে সেগুলোর পর্যালোচনাও লিখিতভাবে দেয়ার জন্য বলেছে বিএসইসি। লিখিত প্রস্তাব পাওয়ার পর বিষয়গুলো নিয়ে অর্থ মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে বিএসইসি বৈঠক করবে বলেও জানান স্বপন কুমার। বৈঠকে বিএসইসির চেয়ারম্যান ড. খায়রুল হোসেন ছাড়াও চার কমিশনার ও ডিএসইর ব্যবস্থাপনা পরিচালক স্বপন কুমার বালাসহ পরিচালনা পর্ষদের সদস্যরা অংশ নেন।

বিইআরসির সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে তিতাসের আপীল

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ ভোক্তাপর্যায়ে গ্যাসের মূল্য বাড়লেও বিতরণকারী পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের চার্জ কমিয়েছে জ্বালানি খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি)। আর বিইআরসির এমন সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে উচ্চ-আদালতে আপীল করেছে রাষ্ট্রায়ত্ত এ কোম্পানিটি। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। প্রসঙ্গত, বিইআরসির আদেশে গত ২৭ আগস্ট থেকে সব ধরনের গ্রাহক শ্রেণীভিত্তিক গ্যাসের মূল্য পুনর্নির্ধারণ অর্থাৎ বাড়ানো হয়, যা ১ সেপ্টেম্বর থেকে কার্যকর হয়েছে। কিন্তু গ্রাহক পর্যায় গ্যাসের মূল্য বাড়ানো হলেও প্রতিষ্ঠানটির আয়ের প্রধান উৎস বিতরণ চার্জ গড়ে প্রায় ৫৮ শতাংশ কমিয়েছে বিইআরসি।